বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

স্বামীকে দায়ী করে স্ত্রীর আত্মহত্যা

স্টাফ রিপোর্টার, কুমিল্লা থেকে : | প্রকাশের সময় : ১৮ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০১ এএম

কুমিল্লার লাকসামে চার বছর বয়সী শিশু পুত্রের সামনে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন নাজমা বেগম নামে এক প্রবাসীর স্ত্রী। আত্মহত্যার আগে নিজের হাতে লিখা চিরকুটে মৃত্যুর জন্য স্বামীকে দায়ী করে গেছেন ওই গৃহবধূ। গত রোববার রাতে লাকসাম উপজেলা পরিষদের উত্তর পাশে একটি চারতলা ভবনের নিচতলার ঘর থেকে ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত নাজমা বেগম কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার সরেসপুর ইউনিয়নের পালপাড়া গ্রামের প্রবাসী নাছির উদ্দিনের স্ত্রী। তিনি দুই সন্তানের জননী।
লাকসাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেজবাহ উদ্দিন ভূইয়া গতকাল সোমবার স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানান, লাকসাম পৌরশহরে পশ্চিমগাঁও এলাকায় আবদুল মতিন প্রফেসরের ৪তলা ভবনের নিচ তলায় ভাড়া থাকতেন নাজমা আক্তার। দুই দিন আগে বড় ছেলে নাহিদ নানার বাড়ির মনোহরগঞ্জে যায়। গত রোববার ছোট ছেলে নাফিজকে সঙ্গে নিয়ে দুপুরের খাবার খেয়ে শোয়ার ঘরে যান নাজমা। পরে নাজমা আক্তার তার স্বামী নাছির উদ্দীনের সঙ্গে মুঠোফোনে কথা বলেন। এ সময় তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ছেলে নাফিজের সামনে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন নাজমা। এ সময় নাফিজের চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এসে নাজমাকে ঝুলন্ত দেখতে পায়।
খবর পেয়ে রাত ৮টার দিকে লাকসাম থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। গতকাল সোমবার সকালে লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। নাজমা আত্মহত্যার আগে একটি চিরকুট লিখে গেছেন- আমি বাঁচতে চাই না, আমি মরতেই চাই, আমার মৃত্যুর জন্য আমার স্বামীই দায়ী।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন