বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

জাতিসংঘে হলোকস্ট অস্বীকারের নিন্দা জানানোর দাবি ইসরাইল ও জার্মানির

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ জানুয়ারি, ২০২২, ৪:৫৩ পিএম

হলোকস্টকে অস্বীকার বিশ্বব্যাপী শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানের জন্য হুমকি, জানালেন ইসরাইল ও জার্মানির রাষ্ট্রদূত৷ ইহুদি নির্মূলে অনুষ্ঠিত ভানজে সম্মেলনের ৮০ বছর পূর্তিতে এই আহ্বান জানান দুই দেশের রাষ্ট্রদূত৷

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে আজ দুই দেশ হলোকস্টের অস্বীকৃতিকে প্রত্যাখ্যান এবং নিন্দা জানানোর একটি প্রস্তাব সর্বসম্মতভাবে গ্রহণের জন্য উপস্থাপন করবে৷ ইসরাইলের জার্মান রাষ্ট্রদূত সুজানে ভাসুম-রাইনের এবং জার্মানির ইসরাইলি রাষ্ট্রদূত জেরেমি ইসাকারাওফ নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের বৈঠকের আগে যৌথভাবে এক বিবৃতিতে এই আহ্বান জানিয়েছেন৷

তারা বলছেছেন, “বিশ্বের সব রাষ্ট্রে এবং সমাজে বৈচিত্র, সহাবস্থান, সহনশীলতার প্রতি আশা আর উৎসাহের এক প্রতীক হবে এই প্রস্তাব৷ এই প্রস্তাব সবাইকে স্মরণ করাবে যে হলোকস্টকে অস্বীকার করার কোন উপায় নেই বরং এমন ঘটনা আর যাতে না ঘটে সেটা মনে রাখতে হবে৷” জার্মান পত্রিকা টাগেসস্পিগেল এবং ইসরাইলের পত্রিকা মারিভে তাদের এই আপিল প্রকাশ হয়েছে৷

১৯৪২ সালে বার্লিনের ভানজে লেকের পাশে একটি ভিলাতে ভানজে সম্মেলন করেছিল নাৎসি নেতারা৷ সেই সম্মেলনে ইউরোপের ১ কোটি ১০ লাখ ইহুদিকে হত্যার পরিকল্পনা করেছিল তারা৷ যদিও এই সম্মেলন অনুষ্ঠানের আগে থেকেই ইহুদি গণহত্যা শুরু হয়েছিল৷ ৮০ বছর আগের সেই সম্মেলনের কথা স্মরণ করেই আজ এই আহ্বান জানিয়েছেন দুই দেশের রাষ্ট্রদূত৷

জাতিসংঘের এই প্রস্তাবে ইহুদিবিদ্বেষ এর সংজ্ঞা এবং এ বিষয়ে আরো শিক্ষা ও সচেতনতা বাড়ানোর প্রস্তাব দেয়া হয়েছে৷ এছাড়া যারা হলোকস্টকে অস্বীকার করে তাদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম কোম্পানিগুলোকে৷

জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনালেনা বেয়ারবক বলেছেন, ‘‘নাৎসি আমলে জার্মান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে যারা কর্মরত ছিলেন তারাও ওই গণহত্যা এবং অপরাধের অংশীদার৷'' তিনি হলোকস্টে নিহতদের কথা স্মরণ করে বলেন, ‘‘তাদের সাথে জার্মানি কি করেছে তা আমরা কখনোই ভুলবো না৷''

১৯৪৫ সালের ২৭ জানুয়ারি সোভিয়েত সৈন্যরা আউশভিৎস নাৎসি শিবির মুক্ত করেন৷ এই দিনটি আন্তর্জাতিক হলোকস্ট স্মরণ দিবস হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া হয়েছিল জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে৷ সূত্র: এপি, এএফপি, রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন