সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

১২ মানবাধিকার সংস্থার চিঠি আমলে নিয়েছে জাতিসংঘ

সাংবাদিকদের মুখপাত্র ডোজারিক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০০ এএম

মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে শান্তিরক্ষা মিশনে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) কে নিষিদ্ধ করতে ১২ শীর্ষ মানবাধিকার সংগঠনের পক্ষে জাতিসংঘে পাঠানো চিঠি প্রসঙ্গে সংস্থাটি জানিয়েছে, তারা চিঠিটি দেখেছে, পড়েছে এবং এতে যে বিষয়টির (র‌্যাবের নিষেধাজ্ঞা) কথা বলা হয়েছে সে বিষয়ে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে।
গত বৃহস্পতিবার জাতিসংঘের নিয়মিত ব্রিফ্রিংয়ে বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতির অবনতি এবং র‌্যাবের নিষেধাজ্ঞা ইস্যুতে করা দুই জন সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে এভাবেই জাতিসংঘের জবাব তুলে ধরেন মহাসচিব আন্থোনিও গুতেরেসের মুখপাত্র স্টিফেন ডোজারিক।

ডোজারিক জানান, মানবাধিকার বিষয়টিকে জাতিসংঘ সবচাইতে বেশি অগ্রাধিকার দেয়। বাংলাদেশে মানবাধিকার লংঘনের দায়ে জাতিসংঘ মিশনে র‌্যাবের নিষেধাজ্ঞার যে দাবি উঠেছে পিসকিপিং ডিপার্টমেন্ট তা অধিকতর গুরুত্বের সঙ্গে দেখভাল করবে বলেও উল্লেখ করেন মহাসচিবের মুখপাত্র।
নিয়মিত ব্রিফ্রিংয়ে জাতিসংঘের স্থায়ী সংবাদদাতা মুশফিকুল ফজল আনসারী জানতে চান- ‘১২ শীর্ষ মানবাধিকার সংগঠন জাতিসংঘ মিশনে র‌্যাবের নিষেধাজ্ঞার যে দাবি উঠেছে সে বিষয়ে আমি পূর্বের সহকর্মী জেমসের (আল-জাজিরার ডিপ্লোমেটিক এডিটর) করা প্রশ্নের সম্পূরক একটা প্রশ্ন করতে চাই। এই চিঠিতে রবার্ট এফ কেনেডি হিউম্যান রাইটস-এর প্রেসিডেন্ট কেরি কেনেডি বলেছেন, ‘র‌্যাবের মানবাধিকার লঙ্ঘনের প্রমাণ এখন হাতেনাতে। জাতিসংঘের এ ব্যাপারে সীমারেখা টেনে দেবার সময় এসেছে’। এ মন্তব্যের সঙ্গে আপনি কি একমত পোষণ করেন’?

জবাবে মহাসচিবের মুখপাত্র বলেন, আমরা চিঠিটি দেখেছি, পড়েছি এবং এতে যে বিষয়টির (মানবাধিকার লংঘন) কথা বলা হয়েছে সেটার দিকেই আমাদের মনোযোগ।
তিনি আরো বলেন, পিসকিপিং ডিপার্টমেন্টের আমাদের যে সহকর্মী বিষয়টি নিয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত তিনি মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিষয়টি অধিকতর গুরুত্বের সঙ্গে দেখভাল করেন। একই কারণে বিগত বছরগুলোতে মানবাধিকার পরিস্থিতি উন্নয়ন এবং যাচাই-বাছাই আমাদের কার্যক্রম অব্যাহত ছিল।
এর আগে ১২ মানবাধিকার সংগঠনের পাঠানো চিঠি, যুক্তরাষ্ট্রের আরোপ করা নিষেধাজ্ঞা এবং বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে প্রশ্ন উত্থাপন করেন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম আল-জাজিরার কূটনৈতিক এডিটর জেমস বেইস।

তিনি জানতে চান, বাংলাদেশের বিশেষ বাহিনী র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-কে শান্তিরক্ষা মিশন থেকে বাদ দিতে জাতিসংঘের পিসকিপিং অপারেশন এর আন্ডার সেক্রেটারি’র কাছে চিঠি পাঠিয়ে আহবান জানিয়েছে ১২ মানবাধিকার সংস্থা। আপনি এটাও অবগত আছেন যে বাংলাদেশের এ বাহিনীর ওপর যুক্তরাষ্ট্র নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। এ বিষয়ে জাতিসংঘ কি অবগত? কিংবা কোন পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে কি না?

জবাবে ডোজারিক বলেন, আমরা যে চিঠিটা পেয়েছি সেটা খুব বেশি সময় হয়নি। আমরা আপনাকে যেটা স্মরণ করিয়ে দিতে চাই সেটা হল-মানবাধিকার পরস্থিতি যাচাই-বাছাইয়ে জাতিসংঘ তার অবস্থান আরো দৃঢ় করেছে। সেটা যেকোনো দেশের যেকোনো বাহিনীই হোক। যা হচ্ছে তাকে আমরা খুব গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করছি।
মুখপাত্রের উত্তরের মধ্যেই সাংবাদিক জেমস আবার বলেন, বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠন যেটা বলছে এই বাহিনীকে (র‌্যাব) যদি এখনো মিশনে যুক্ত রাখা হয় তবে তা মানবাধিকার পক্ষে অবস্থান জোরালো থাকবে না। ডোজারিক বলেন, আমি ইতোমধ্যে বলেছি। বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখছি।

উল্লেখ্য, শান্তিরক্ষা মিশন থেকে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) কে অবিলম্বে বাদ দিতে জাতিসংঘের প্রতি আহবান জানিয়েছে আন্তর্জাতিক ১২টি শীর্ষ মানবাধিকার সংগঠন। এর পূর্বেও মানবাধিকার সংগঠনগুলো বাংলাদেশে অব্যাহত মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবার আহবান জানিয়েছিল বিশ্ব সংস্থাটির নিকট। র‌্যাবের মানবাধিকার লংঘনের সুস্পষ্ট প্রমাণ রয়েছে উল্লেখ করে জাতিসংঘের ‘পিস অপারেশন’ এর আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল জিন পিয়েরে ল্যাক্রোইক্স কাছে একটি চিঠি পাঠিয়েছে ১২ শীর্ষ মানবাধিকার সংস্থা। বৃহস্পতিবার হিউম্যান রাইটস ওয়াচের তাদের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করেছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
Md Fayer ২২ জানুয়ারি, ২০২২, ১:৩৭ এএম says : 0
জাতিসংঘের উচিত দুর্নীতির টাকা যতো দেশে পাচার হয়েছে সব টাকা বাজে আপ্ত করে দেশে নিরপেক্ষ নির্বাচনের দিয়ে গণতান্ত্রিক সরকারের হাতে অবৈধ টাকা গুলো ফিরিয়ে দেওয়া।এই কাজটা করা একান্ত দরকার।এবং দুর্নীতি বাজদের মূখোশ উম্মোচিত করা এইটি জনগণের দাবি।
Total Reply(0)
Md Jahangir Alom ২২ জানুয়ারি, ২০২২, ১:৩৭ এএম says : 0
যখন ইরাকে লিবিয়ায় সিরিয়ায় আফগানিস্তানে মিথ্যা অজুহাতে হামলা চালিয়ে আমেরিকা আর তাদের দোসররা লাখ লাখ নিরীহ মানুষ হত্যা করলো তখন কোথায় ছিলো মানবাধিকার আর কোথায় ছিলো জাতিসংঘ
Total Reply(0)
Mamunur Rashid ২২ জানুয়ারি, ২০২২, ১:৩৮ এএম says : 0
আল্লাহ ছাড় দেন,কিন্তু ছেড়ে দেন না।রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারনে, সরকারের আদেশে অনেক ভাইকে যারা গুম করেছে, খুন করেছে, নির্যাতন করে শেষ করে দিয়েছে তাদের পরিবারের আত্মানাদ এখনো চলিতেছে, যদিও কিছু ক্ষেত্রে তাদের সফলতা আছে।মজলুমদের দোয়া আল্লাহ কবুল করবেই,ইনশাআল্লাহ।
Total Reply(0)
Md Hamidul Haque ২২ জানুয়ারি, ২০২২, ১:৩৮ এএম says : 0
শুধু কিছু মানুষের অতিরিক্ত ধান্দাবাজির কারনে র্যাবের সাধারণ সদস্যরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।
Total Reply(0)
Noman Chowdhury Sumon ২২ জানুয়ারি, ২০২২, ১:৩৮ এএম says : 0
১২ সংগঠন ফিলিস্তিন , ইয়েমেনে ইরাক সিরিয়া লিবিয়াতে যে মানবাধিকার সেকেন্ড সেকেন্ড নষ্ট হচ্ছে এ বিষয়ে কোন চিঠি দিয়েছিল কোন দিন?
Total Reply(0)
M A Badsha ২২ জানুয়ারি, ২০২২, ১:৩৯ এএম says : 0
স্বাধীন সার্বভৌম জাতি হিসাবে জাতি সংঘের এই ধরণের সিদ্ধান্ত আমাদের জন্য লজ্জাজনক।
Total Reply(0)
মোহাম্মদ তফাজ্জল হোসেন তপু ২২ জানুয়ারি, ২০২২, ৫:৩০ পিএম says : 0
মানবাধিকার হঠাৎ করে দেখবাল যারা করতে ছেন তিনারা ফিলিস্তিনের অবস্থা দেখেন না তিনারা ইয়েমেন, মায়ানমারের মানুষের অবস্থা দেখেন না মুল কারন বাংলাদেশের অর্থ নিতি,বাংলাদেশের উন্নয়ন, এটা ওনাদের সহ্য হচ্ছেনা, কোন দমক দিয়ে বাংলাদেশ কে দাবানো যাবে না,জয় বাংলা।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন