বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

নরওয়েতে তালেবান প্রতিনিধিরা, কূটনৈতিক স্তরে কথা

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ জানুয়ারি, ২০২২, ১১:৪৮ এএম

নরওয়ে সফরে তালেবান প্রতিনিধিরা। কূটনৈতিক স্তরে আলোচনা হবে। তাদের যাওয়ার ফলে বিক্ষোভও শুরু। এই প্রথম ইউরোপের কোনো দেশে সরকারি সফরে গেলেন তালেবান প্রতিনিধিরা। শনিবার গভীর রাতে তারা অসলো পৌঁছান। রোববার থেকে আলোচনা শুরু হয়েছে।

নরওয়ের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তরফে জানানো হয়েছে, আগামী সপ্তাহে পশ্চিমা দেশগুলির কূটনীতিকদের সঙ্গে বৈঠক করবে তালেবান। তার আগে এই বৈঠক হচ্ছে। তলেবান প্রতিনিধিদলে আছেন ১৫ জন। সকলেই পুরুষ। নরওয়ে সরকারই তাদের যাওয়ার ব্যবস্থা করেছে। রোববার অসলোতে তারা আফগানিস্তানের মানবাধিকার ও নারী অধিকার কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন।

তালেবান কর্মকর্তা সংবাদসংস্থা এপি-কে জানিয়েছেন, প্রথম দিনের আলোচনা হয়েছে আফগানিস্তান সরকারকে স্বীকৃতি দেয়ার লক্ষ্যে। তার দাবি, এই ধরনের আমন্ত্রণ ও আলোচনার ফলে ইউরোপ, অ্যামেরিকা ও অন্য দেশের ভুল ধারণার পরিবর্তন হবে। আফগানিস্তান সরকারের প্রতি তাদের মনে ভুল ছবি রয়েছে। সেটাও ঠিক হবে। কিন্তু অধিকংশ দেশই বারবার জানিয়ে দিয়েছে, আলোচনা মানে তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি দেয়া নয়।

মানবাধিকার কর্মী জামিলা আফগানি সংবাদসংস্থা এএফপি-কে বলেছেন, ''বৈঠকে কিছু আলোচনা ইতিবাচক হয়েছে। তালেবান প্রতিনিধিরা ধৈর্য ধরে সবকিছু শুনেছেন। আমাদের যাবতীয় উদ্বেগের জবাব দিয়েছেন। এখন দেখার তারা কাজে কী করে?'' এদিকে কিছু আফগান নরওয়ের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অফিসের সামনে বিক্ষোভও দেখিয়েছে। তারা চিৎকার করে বলে, 'তালেবান নয়'। তাদেরকে 'সন্ত্রাসবাদী' বলে অভিহিত করে ওই বিক্ষোভকারীরা। এছাড়া যুক্তরাজ্য ও ক্যানাডায় নরওয়ের দূতাবাসের সামনেও বিক্ষোভ দেখানো হয়।

সোমবার থেকে তালেবান প্রতিনিধদের সঙ্গে নরওয়ের কূটনীতিকদের আলোচনা শুরু হবে। গত অগাস্টে আফগনিস্তানে ক্ষমতা দখলের পর এই প্রথম কোনো ইউরোপীয় দেশের কূটনীতিকদের সঙ্গে সরকারিভাবে আলোচনা করবেন তালেবান প্রতিনিধিরা। এই আলোচনায় মানবাধিকার এবং মানবিক ত্রাণের বিষয়টি গুরুত্ব পাবে।

তালেবান প্রতিনিধিরা নরওয়ে এবং ইইউ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। তাছাড়া তারা যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, জার্মানি, ইটালি এবং আমেরিকার প্রতিনিধিদের সঙ্গেও আলোচনা করবেন। মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, প্রতিনিধিত্বমূলক রাজনৈতিক ব্যবস্থা চালু করা, মানবাধিকার ও আর্থিক সংকটের জরুরি ভিত্তিতে মোকাবিলা, নিরাপত্তা ও সন্ত্রাসবাদ-বিরোধী ব্যবস্থা নেয়ার মতো বিষয়গুলি নিয়ে কথা হবে। মেয়েদের শিক্ষার বিষয়টি আলোচনায় বিশেষ গুরুত্ব পাবে।

তালেবান মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ সংবাদসংস্থা এপি-কে বলেছেন, ''পশ্চিমা দুনিয়ার চাহিদা মেটাবার জন্য পদক্ষেপ নিয়েছে তালেবান। আমরা আশা করি, পশ্চিমা দেশগুলির সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক ভালো হবে।'' সূত্র: এপি, এএফপি, রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন