মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২২ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সিলেটে এক গৃহবধূকে হত্যা, স্বামী-দেবর লাপাত্তা

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ৫:৫২ পিএম

সিলেট মহানগর পুলিশের মোগলাবাজার থানার জালালপুর এলাকায় স্বামী ও স্বামীর পরিবারের সদস্যদের নির্যাতনে এক গৃহবধূর মৃত্যু ঘটেছে। শিল্পী বেগমের (২৬) স্বামীর বাড়ি জালালপুর এলাকার হাসামপুরে। শিল্পীর স্বামী আব্দুর রফিক (৩৫) হাসামপুর গ্রামের ইশাদ আলীর পূত্র। পেশায় একজন দিনমজুর তিনি। আজ মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে শিল্পী বেগম স্বামীর বাড়িতে মৃত্যুবরণ করেন। অভিযোগ উঠেছে, আজ সকালে যৌতুকের জন্য শিল্পিকে নির্যাতন করেন স্বামী-দেবর ও স্বামীর বাড়ির অন্যরা। খবর পেয়ে বিকাল ৩টার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করেমোগলাবাজার থানার একদল পুলিশ। লাশ ময়না তদন্তের জন্য সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণে করা হয়েছে।

জানা যায়, আব্দুর রফিকের সঙ্গে প্রায় ৭ বছর আগে সিলেটের কুচাই এলাকার মৃত কুটন মিয়ার মেয়ে শিল্পী বেগমের বিয়ে হয়। সংসারে দুই ছেলে ও দুই মেয়ে সন্তান রয়েছে। বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই যৌতুকের জন্য স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন শিল্পীর উপর নির্যাতন চালাতে থাকে। সর্বশেষ আজ সকালে স্বামী রফিক ও তার পরিবারের সদস্যরা ২ লাখ টাকা বাবার বাড়ি থেকে নিয়ে আসার জন্য শিল্পীকে মারধর করতে থাকে। স্বামী রফিক শিল্পীকে এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি মারতে থাকেন। একপর্যায়ে শিল্পী গুরুতর আহত হয়ে পড়লে রফিক ফোন দিয়ে স্ত্রীর বোন ফাতেমাকে শিল্পী অসুস্থ হয়েছে বলে খবর দেয়। খবর পেয়ে বাবার বাড়ির লোকজন আসার আগেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন শিল্পী। এ বিষয়ে মোগলাবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) ফরিদ উদ্দিন বলেন, স্বামী ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ তুলেছেন মৃত গৃহবধূর মা-বোন। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তিনি বলেন, ঘটনার পর থেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না শিল্পীর স্বামী ও দেবরকে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন