শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৫ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

জঙ্গি ও সন্ত্রাস দমনেও কাজ করছে কাস্টম

আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস আজ সংবাদ সম্মেলনে এনবিআর চেয়ারম্যান

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৩ এএম

আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস আজ। বাংলাদেশসহ ওয়ার্ল্ড কাস্টমস অর্গানাইজেশনের সদস্যভুক্ত ১৮৩টি দেশে নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিবসটি পালন করা হবে। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘তথ্য সংস্কৃতি বিকাশ এবং তথ্য ইকোসিস্টেম বিনির্মাণের মাধ্যমে ডিজিটাল কাস্টমসের সম্প্রসারণ।’ দিবসটি উপলক্ষে প্রেসিডেন্ট মো. আব্দুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। তারা বাণীতে কাস্টমস বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং সেবাগ্রহীতাসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

দিবসটি উপলক্ষে রাজস্ব বোর্ডে গতকাল মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলন হয়। এতে ‘কাস্টমস হাউজে ব্যবসায়ীদের হয়রানি করা হয়’, এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম বলেন, এনবিআরে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ জানাতে হবে। জেনারেল কথা বলে লাভ নেই। আমরা আহ্বান করছি সুনির্দিষ্ট অভিযোগ জানানোর জন্য। কবে কোথায় কী ঘটনা ঘটেছে, যেটার জন্য আপনারা ভুক্তভোগী হয়েছেন, অভিযোগ দেন আমরা ব্যবস্থা নেব। তিনি বলেন, করোনার বর্তমান পরিস্থিতিতে কাস্টমস এখন রাজস্ব আহরণ ছাড়াও নিরাপত্তা, আন্তর্জাতিক জঙ্গিবাদ এবং সন্ত্রাস দমনে কাজ করছে।

ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, তারা অনেক অভিযোগ সাংবাদিক কিংবা অ্যাসোসিয়েশনের কাছে করছে। কিন্তু সুনির্দিষ্ট অভিযোগ তো আমাদের কাছে করতে হবে। আমরা কোনো প্রতিকার করি কি না সেটা অভিযোগ না করলে কীভাবে জানা যাবে। ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেন আমার মাল আটকে আছে। তার পেছনের কারণ কী দেখার চেষ্টা করি? শর্তগুলো পূরণ করছি কি না, সেটা আমরা দেখি না। হয়ত শর্ত ছিল এটমিক এনার্জি কমিশন বা পরিবেশ অধিদফতরের ছাড়পত্র লাগবে সেগুলো তাদের কাছে নেই।

এলডিসি থেকে উত্তরণে কাস্টমস আদায়ে কী ধরনের চ্যালেঞ্জ হবে এমন প্রশ্নের জবাবে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, এলডিসি থেকে উত্তরণে আমদানি ও রফতানিতে আমাদের যে তীব্র প্রতিযোগিতার মুখোমুখি হতে হবে সেটা সক্রিয় বিবেচনায় আছে। অর্থনৈতিক উন্নয়নের প্রতিটি ধাপেই অনেক চ্যালেঞ্জ আসবে। কাস্টমসের আয় কমে আসবে। কাস্টমসের আয় হ্রাস সেটা অভ্যন্তরীণ ভ্যাট ও ইনকাম ট্যাক্স থেকে রিকভার করতে হবে। আমরা সেই জায়গাটাকে সমন্বয় করার চেষ্টা করছি।

অনুষ্ঠানে এনবিআর সদস্য (ভ্যাটনীতি) মাসুদ সাদিক বলেন, চট্টগ্রাম কাস্টম হাউজে প্রতিদিন বিল অব এন্ট্রি হয় ১০ হাজার। এর মধ্যে এক্সপোর্ট রিলেটেড ৫ হাজার। আমদানি বিল অব এন্ট্রি ২ হাজার। এই ২ হাজার পণ্য ছাড়ে বিলম্ব হতে পারে। পণ্য ছাড়ে অনেক রকম প্রত্যয়নপত্র দাখিল করতে হয়। কেউ সংক্ষুব্ধ হলে অভিযোগ করতে পারেন। এছাড়াও সংবাদ সম্মেলনে এনবিআরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত অর্থবছরে মোট রাজস্বের মধ্যে ৭৭ হাজার ১৫০ কোটি টাকা এবং চলতি অর্থবছরের ডিসেম্বর ২০২১ পর্যন্ত মোট রাজস্বের ৪১ হাজার ১৯৪ কোটি টাকা বাংলাদেশ কাস্টমস থেকে এসেছে। যা গত অর্থবছরের তুলনায় প্রবৃদ্ধি ২২ দশমিক ৪৪ শতাংশ।
আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস উপলক্ষে আজ বুধবার হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন