শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিতে ইইউ ভাইস প্রেসিডেন্টকে চিঠি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০১ এএম

মানবাধিকার ইস্যুতে বাংলাদেশ সরকার, র‌্যাব এবং পুলিশের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিতে ইউরোপীয় ইউনিয়নের ভাইস প্রেসিডেন্ট জোসেফ বোরেলকে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

গত ২০ জানুয়ারি সেøাভাকিয়ার এমপি স্টেফানেক ইভান এ চিঠি দেন। আইনের শাসন না থাকা, বিচার বহির্ভূত হত্যা এবং দুর্নীতির মতো ইস্যুগুলোর উল্লেখ করে তিনি নিষেধাজ্ঞা জারির আবেদন করেছেন। স্টেফানেক ইভান একই সঙ্গে ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টের মানবাধিকার বিষয়ক সাব কমিটির সদস্য। ওই চিঠিতে তিনি বলেছেন, বাংলাদেশে মানবাধিকার, কথা বলার স্বাধীনতা, নাগরিক ও রাজনৈতিক অধিকার পরিস্থিতির ক্রমশ অবনতি হচ্ছে। চিঠিতে তিনি সম্প্রতি র‌্যাবের বর্তমান ও সাবেক সাত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দেয়া যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার কথা তুলে ধরেন।

তিনি আরো লিখেছেন, উল্লিখিত বিষয়ে আমি আপনার কাছে অনুরোধ করবো, আপনার ক্ষমতা ব্যবহার করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন, সংক্ষেপে র‌্যাব-এর বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিতে সহায়ক হোন। আমি বাংলাদেশ পুলিশ ও সরকারের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়ায় সাহায্য চাইছি। বাংলাদেশে ক্ষমতাসীন দল মাঝে মাঝেই অমানবিক ‘প্র্যাকটিস’ ব্যবহার করে, যা এরই মধ্যে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান রিপোর্ট করেছে। এর মধ্যে আছে নির্বাচনের ফল জালিয়াতি করা অথবা রাজনৈতিক ভিন্ন মতাবলম্বীদের দমনপীড়ন করা।

যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা সম্পর্কে স্টেফানেক ইভান বলেন, বছরের পর বছর ধরে বাংলাদেশে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড চলছে। বিশেষ করে এক্ষেত্রে ২০১৮ সালের মে মাসে টেকনাফে কাউন্সিলর আকরামুল হককে হত্যার প্রসঙ্গ রেফারেন্স হিসেবে তুলে ধরা হয়েছে। এসব কারণে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। তাই জোসেফ বোরেলকে চিঠিতে স্টেফানেক ইভান লিখেছেন, অনেক বছর ধরে র‌্যাবের বিরুদ্ধে বারবার নিষেধাজ্ঞা দেয়ার জন্য আহ্বান জানিয়ে আসছে মানবাধিকার বিষয়ক সংগঠনগুলো ও যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি সিনেট পরিষদ। বাংলাদেশে ভয়াবহ দুর্নীতি রয়েছে। আর পুলিশকে নিয়ন্ত্রণ করে সরকার। দুর্ভাগ্যজনক হলো- আরেকটি উদ্বেগজনক পরিসংখ্যান, তা হলো বাংলাদেশি বহু নাগরিক নিখোঁজের। এ সংখ্যা কয়েক শত, ৫ শতাধিক।

নাগরিকদের একটি গ্রুপ এ সংখ্যা প্রামাণ্য হিসেবে তুলে ধরেছে। আরো দুঃখজনক বিষয় হলো, অনেক নিখোঁজ ব্যক্তিকে পরে পাওয়া গেছে। কিন্তু দুর্ভাগ্য হলো, তখন তাদের দেহে কোনো প্রাণের চিহ্ন নেই। এ বিষয়ে তদন্ত করছে জাতিসংঘ।

ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টের এ সদস্য বলেছেন, এর আগে বাংলাদেশে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনসহ বিভিন্ন মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিষয়ে সমালোচনা করেছে জাতিসংঘ ও ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ফলে মুক্তভাবে কথা বলার স্বাধীনতার কণ্ঠ রুদ্ধ করা হয়েছে। অনলাইনে ভিন্ন মতাবলম্বীদের অপরাধী বানানো হয়েছে এবং লঙ্ঘন করা হয়েছে আন্তর্জাতিক আইন।

এক্ষেত্রে ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন ফর হিউম্যান রাইটসের বিবৃতি উদ্ধৃত করেন স্টেফানেক ইভান। তা হলো- এসব নিয়ম লঙ্ঘনের মধ্যে আছে ২০১৮ সালের জানুয়ারি থেকে ২০২১ সালের জুনের মধ্যে ১১৩৪টি বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড। সাধারণ নাগরিকদের পাশাপাশি রাজনৈতিক বিরোধীপক্ষের বিরুদ্ধে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হয় নির্যাতনকে। স্টেফানেক ইভান বলেছেন, ২০২৬ সালের মধ্যে নিম্ন আয়ের দেশের তকমা থেকে উন্নতি ঘটবে বাংলাদেশের। পার্শ্ববর্তী অনেক দেশকে পেছনে ফেলছে এ দেশটি। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক হলো, দেশটির এ উন্নতির সঙ্গে চিহ্নিত হয়ে আছে মানবাধিকার লঙ্ঘন এবং দুর্নীতি।

বেদনার সঙ্গে আমাকে বলতেই হচ্ছে, ক্ষমতাসীন দল ক্ষমতায় আসার পর থেকে গণতান্ত্রিক মূল্যবোধকে দমন করা হয়েছে। উদাহরণ হিসেবে, সংবাদ মাধ্যম আছে আতঙ্কে। রাজনৈতিক বিরোধীদের করা হয় অপমান। ফলে এ পরিস্থিতি অত্যন্ত গুরুতর। আর এ জন্যই আমি আপনাকে অনুরোধ করছি, দেশটিতে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় সহায়তা করতে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (15)
Abdul Khalek ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ৪:২৯ এএম says : 0
হে আল্লাহ তুমি আমাদের বাংলাদেশটাকে হেফাজত করো
Total Reply(0)
Manzurul Islam ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ৪:৩১ এএম says : 0
এসব নিষেধাজ্ঞা যে কতটা অর্থনৈতিক ক্ষতি করবে তা ভবিষ্যতে টের পাবো
Total Reply(0)
Md Faruk Abdullah ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ৪:৩৩ এএম says : 0
মনে হচ্ছে একটা অন্ধকার নেমে আসছে
Total Reply(0)
Snigdha Shishir ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ৪:৪৫ এএম says : 2
বাংলাদেশের বিরুদ্ধে যেকোনো ধরনের চক্রান্ত রুখে দেওয়া হবে
Total Reply(0)
H R Rakib ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ৪:৪৫ এএম says : 4
এগুলা আমাদের উন্নয়ন কে ব্যাহত করার ষড়যন্ত্র
Total Reply(0)
আরিফুল ইসলাম ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:৫৯ এএম says : 0
ধন্যবাদ আপনাকে
Total Reply(0)
Saimon Ahmed ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ৭:১৬ এএম says : 0
দীর্ঘ দিন ধরে ক্ষমতাচ্যুত থাকা বাংলাদেশের প্রধান বিরোধী দল বিএনপির আন্তর্জাতিক কুটনৈতিক তৎপরতার বিরূপ প্রভাব আমাদের দেশের এই বর্তমান সংকটের জন্য দায়ী!
Total Reply(0)
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ৯:০৭ এএম says : 0
দুঃখজনক হলেও সত্য, সরকার esob নিয়ে কোনো কাজ করবে না. উল্টো কিসু মন্ত্রী আমলারা কাদা ছড়াছড়ি আর দোষারোপ করতে besto হয়ে পড়বে. Othocho এইসব কিন্তু serious issue. Economically bad impact pore. সরকার এর উচিত.. এগুলো মেনে নিয়ে correction করার initiative নেয়া.
Total Reply(0)
Azmal Hossain ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ৯:৩০ এএম says : 0
মানবাধিকার লুন্ঠন করে কথিত উন্নয়নের দরকার নাই
Total Reply(0)
শামিম আহমেদ ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ১০:০১ এএম says : 0
বাংলাদেশের পরিণতি হতে যাচ্ছে লিবিয়া,ইরাক,সিরিয়া,ইয়েমেনের মতো। আরও এজন্য দায়ী আওয়ামীলীগ সরকার।
Total Reply(0)
Shafiq Ahmed ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ১০:০৮ এএম says : 1
এখন সরকারের উচিত, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা। তানাহলে এর ফল ভোগ করতে হবে জনসাধারণকে।
Total Reply(0)
mamoon ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ১০:২৮ এএম says : 0
ei issue te shobar prothome zoktorashtro ke nishedhakka daea uchit
Total Reply(0)
hm alamin official1 ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ১১:৪৩ এএম says : 0
বাংলাদেশে ইসলামি শাসন চাই।।
Total Reply(0)
রফিকুল ইসলাম ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ৪:০৫ পিএম says : 0
বাংলাদেশ তাহলে ইয়েমেন সিরিয়া আফগানিস্তান ইরাক এর পরিনতি কি ভোগ করতে যাচ্ছে ভবিষ্যতে
Total Reply(0)
মো সামছুল আরেফিন ২৭ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৩ এএম says : 0
আমি বলব এই সরকারের বেপক উন্নয়ন মুলক কাজ কে থামানো একটি গোষ্ঠীর কাজ পেছনের দিক গেলাম না ওরে দালাল এর দল 2001 নির্বাচন পরে এক মাস কেনো বাংলাদেশের কোন থানায় পুলিশ মামলা নিতে চায় নি তখন এই মানবাধিকার কমিশনের চোখ দেখেনি জাতি জানতে চায়।
Total Reply(0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন