সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

গাড়ির চেয়ে ব্যাটারির দাম বেশি! সাধের মার্সিডিজই এখন গলার কাঁটা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ জানুয়ারি, ২০২২, ৪:৩৪ পিএম

রঞ্জিৎ সিংহ। ব্রিটেনের লেস্টারের বাসিন্দা। মার্সিডিজের গুণমুগ্ধ ভক্তও বটে। তাই আট বছর আগে ২৭ হাজার পাউন্ড (বাংলাদেশী মুদ্রায় প্রায় ৩১ লাখ ২৯ হাজার টাকা) দিয়ে মার্সিডিজের হাইব্রিড গাড়ি কিনেছিলেন। সে সময় তাকে জানিয়ে দেয়া হয়েছিল গাড়ির ব্যাটারির মেয়াদ আট বছর। তার পর তা বদলাতে হবে।

কিন্তু সেই ব্যাটারিই যে রঞ্জিতের বড় মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়াবে আট বছর পর সেটা তিনি হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছেন। ব্যাটারি বদলাতে গিয়ে তার দাম শুনে প্রায় ভিরমি খাওয়ার অবস্থা বছর তেষট্টির রঞ্জিতের। তাকে বলা হয় ব্যাটারির দাম ১৫ হাজার পাউন্ড (বাংলাদেশী মুদ্রায় ১৭ লাখ ৩৮ হাজার টাকা)! এর পরই রঞ্জিৎ তার গাড়ির বর্তমান বাজারদরের খোঁজ নেন। দেখা যায়, সেই গাড়ির দাম সাড়ে ১৪ লাখ ৩৭ হাজার টাকা। মাথায় যে বজ্রাঘাত হয় রঞ্জিতের। এ তো গাড়ির থেকে ব্যাটারির দাম বেশি!

ব্যাটারির দাম প্রায় সাড়ে ১৭ লাখ টাকা। তার উপর গাড়ির মেকানিক প্রতি ঘণ্টায় চার্জ নেবেন ২০০ পাউন্ড (বাংলাদেশী মুদ্রায় ২৩ হাজার টাকার বেশি)। এর পরই রঞ্জিৎ হাইব্রিড গাড়ির এক জন বিশেষজ্ঞের কাছে ছুটে যান পরামর্শ নেয়ার জন্য। কিন্তু সেখানে গিয়েও তাকে হতাশ হতে হয়। ওই বিশেষজ্ঞ জানান, এই গাড়ির সস্তায় সারনোর কোনও উপায়ই নেই। হয় ব্যাটারি পাল্টাতে হবে, না হয় গাড়িটি বেচে দিতে হবে। আবার শখ করে কেনা মার্সিডিজকেও হাতছাড়া করতে চাইছেন না রঞ্জিৎ।

ফলে গাড়ির ব্যাটারি পাল্টাবেন, নাকি বিক্রি করে দেবেন তা নিয়ে উভয় সঙ্কটে পড়েছেন তিনি। রঞ্জিতের মেয়ে রামনিক কউর একটি গাড়ি সংস্থায় কাজ করেন। তিনি বলেন, ‘বাবা খুবই হতাশ। গাড়িটি নিয়ে কী করবেন বুঝে উঠতে পারছেন না। তিনি অবসরপ্রাপ্ত। ফলে এই বিপুল টাকাও তার কাছে নেই।’ ফলে খাজনার থেকে বাজনা বেশি— মার্সিডিজ কিনে এখন এমন দশাই হয়েছে রঞ্জিতের কাছে। সূত্র: দ্য মিরর।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন