ঢাকা শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ০২ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউল সানী ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

বিচার বিভাগের স্বাধীনতা অর্থবহ করতে প্রয়োজন কার্যকর গণতন্ত্র -ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন

প্রকাশের সময় : ২ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন বলেছেন, কার্যকর গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া ছাড়া বিচার বিভাগের স্বাধীনতা অর্থবহ হবে না। আইনত (বিচার বিভাগ) স্বাধীন করা হয়েছে। কিন্তু এটাকে স্বাধীন রাখার যে ব্যবস্থা, সেটা তো করা হয়নি। অর্থাৎ বিশেষ করে হাইয়েস্ট কোর্টের স্বাধীনতার ব্যাপারটা চিন্তায় ছিল। লোয়ার কোর্ট সুপ্রিম কোর্টের অধীনে থাকবে, এটা নির্বাহী বিভাগ নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে না। আগে ল’ মিনিস্ট্রি নিয়ন্ত্রণ করত, হোম মিনিস্ট্রিও কিছুটা করত। আইনত হয়ে গেছে স্বাধীন। কিন্তু এই স্বাধীনতাটাকে কার্যকর করার জন্য যেটা করা দরকার সেটা করা হচ্ছে না। সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি এখনো রাজনৈতিক বিবেচনায় নিয়োগ হচ্ছে। আমরা যারা তখনকার কেয়ারটেকার সরকারে ছিলাম, তখন বলেছিলাম বিচারপতিরা স্বাধীনভাবে একটা কমিশনের মাধ্যমে নিয়োগপ্রাপ্ত হবেন। সেই কমিশনটা রাখা হয়নি। বিচার বিভাগের স্বাধীনতার জন্য আর কি কোনো পদক্ষেপ গ্রহণের বাকি আছে জানতে চাইলে মইনুল হোসেন বলেন, আইনের কোনো দরকার নেই, শুধু মানুষজনকে আর সরকারকে আইনের শাসনে বিশ্বাস করতে হবে। যদি সংসদ গণতান্ত্রিক পন্থায় ঠিকমতো কাজ করতে পারে, তখনই আইনের শাসন কাজ করতে পারে। অনলাইন পোর্টাল দ্য রিপোর্ট ২৪ ডট কমকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেন।
বিচার বিভাগের স্বাধীনতার সঙ্গে গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার সম্পর্ক কতটুকু? এসময় তিনি বলেন, স্বাধীন বিচার বিভাগ গণতন্ত্রের সঙ্গে অবশ্যই সম্পর্কিত। কার্যকর গণতন্ত্র ছাড়া বিচার বিভাগের স্বাধীনতা অর্থবহ হবে না। আমি তো বললাম আইনত বিচার বিভাগকে স্বাধীন করলেন, অথচ বিচারক নিয়োগ করবেন রাজনৈতিক বিবেচনায়। তাহলে কি করে স্বাধীন বিচার বিভাগ কাজ করবে? তারপর দল নিয়ন্ত্রিত পার্লামেন্টের দ্বারা আপনি বিচারপতিদের বিচার করতে চাইবেন, তাহলে কেমন করে বিচার বিভাগ স্বাধীনভাবে কাজ করবে? বিচারপতিদের তো পুলিশ বিভাগ নেই, তাদের অর্ডার তো সরকারের মাধ্যমেই মানতে হবে। গণতন্ত্র তো ভিন্ন ভিন্নভাবে কাজ করতে পারে না, এটা একটা সামগ্রিক ব্যাপার। সরকারের সদিচ্ছাটাকেই বিচার বিভাগের স্বাধীনতার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ মনে করছেন? জানতে চাইলে তিনি বলেন, সদিচ্ছা না, আমি সিস্টেমটাকে কার্যকর করার কথা বলছি। আমার কথা হবে, গণতান্ত্রিক সিস্টেমটাকে মেনে চলতে হবে সকলকেই।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন