রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

২০০০ বছরের ভয়ঙ্কর রহস্য, মাটি খুঁড়তেই সামনে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ১:৩৯ পিএম

ইতিহাসের আর এক নাম যেন মিশর। হাজারও রহস্য জড়িয়ে রয়েছে তাকে ঘিরে। একে তো বিশাল আকৃতির পিরামিড, তার ওপর পিরামিডের মধ্যে সমাহিত হাজারও মমির জন্য বিখ্যাত মিশর। মৃতদেহ সংরক্ষণের জন্য তৈরি করা হত মমি। এই প্রাচীন প্রক্রিয়ার জন্য মিশর গোটা পৃথিবীর কাছে বিখ্যাত হয়ে রয়েছে সুদীর্ঘ কাল ধরে। একটি কিংবা দু'টি নয়, সম্প্রতি মিশর থেকে মাটি খুঁড়ে পাওয়া গিয়েছে পঞ্চাশটি মমি। তাও আবার ওই মমিগুলি একই পরিবারের বলে অনুমান করেছেন প্রত্নতাত্ত্বিকরা। ঘটনা চাঞ্চল্যের পাশাপাশি প্রত্নতাত্ত্বিকদের মধ্যে নতুন এক রহস্যের জন্ম দিয়েছে ইতিমধ্যেই।

সাম্প্রতিক এই ঘটনাটি ঘটেছে মিশরের রাজধানী কায়রো থেকে প্রায় ২১১ মাইল দূরে টুনা এল গালেব এলাকায়। জানা গিয়েছে, ওই এলাকায় একটি কবরস্থানে তাঁদের খনন কাজ করছিলেন প্রত্নতাত্ত্বিকরা। এ পর্যন্ত সব ঠিকই ছিল। কিন্তু প্রত্নতাত্ত্বিকরা লক্ষ্য করেন মাটির গভীরে লুকিয়ে রয়েছে মমির সারি। একসঙ্গে সারি দেওয়া রয়েছে প্রায় ৫০টি মমি। আর তাতেই চোখ কপালে ওঠে ইতিহাসবিদদের। মাটি খুঁড়ে পাওয়া ওই মমিগুলির মধ্যে ১২টি শিশুর দেহ রয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রত্নতাত্ত্বিকরা। পাশাপাশি সারি দেওয়া সাজানো ওই মমিগুলি একই পরিবারের বলে অনুমান করেছেন তারা। কিন্তু এ কী করে সম্ভব? সেই ভাবনায় ক্রমশ ভাবিয়ে তুলেছে গোটা প্রত্নতাত্ত্বিক মহলকে।

জানা গিয়েছে, মাটি খুঁড়ে পাওয়া ওই মমিগুলি নিয়ে ইতিমধ্যেই জোরালো গবেষণা শুরু করেছেন ইতিহাসবিদরা। গবেষকরা ইতিমধ্যেই অনুমান করেছেন ওই মমিগুলি প্রায় দু'হাজার বছরের পুরনো। মৃত ওই ব্যক্তিরা একই পরিবারের বলে অনুমান করেছেন তারা। পাশাপাশি ওই মমিগুলি কোনও উচ্চমধ্যবিত্ত পরিবারের বলেও ইতিমধ্যে অনুমান করেছেন প্রত্নতাত্ত্বিকরা।

ইতিমধ্যেই ইতিহাসবিদরা জানিয়েছেন, এই ঘটনা নজিরবিহীন। সারা পৃথিবীতে এমন কোনও ঘটনা এখনও পর্যন্ত ঘটেনি বলে জানিয়েছেন তাঁর। প্রত্নতাত্ত্বিকরা জানিয়েছেন, প্রাচীনকালে বয়স্ক মানুষদের মমি করে রাখা হত, এ রকম নমুনা বহুবার মিলেছে। সম্প্রতি একই পরিবারের ৫০টি মমি এবং তার মধ্যে ১২ টি শিশুর দেহ, এই ঘটনা প্রাচীন ধারণাকে বদলে দিয়েছে বলে জানিয়েছেন তারা। তবে মৃতদেহগুলি এখনও পর্যন্ত সনাক্ত করা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছেন গবেষকরা।

কিন্তু মাটি খুঁড়ে পাওয়া একই পরিবারের ৫০টি মমি যে টলেমাস যুগের তা এক প্রকার নিশ্চিত হয়েছেন ইতিহাসবিদরা। এমনকি প্রায় ৩০৫ খ্রিস্টপূর্বাব্দের শুরুতে এই পরিবারটিকে মমি করা হয়েছিল বলে অনুমান ইতিহাসবিদদের। ঘটনায় মিশরের সুপ্রিম কাউন্সিল অফ অ্যান্টিকুইটিজের সেক্রেটারি জেনারেল জানিয়েছেন, কবরস্থান থেকে মাটি খুঁড়ে পাওয়া ওই ৫০টি মমির সমাধিতে কোনও নাম খোদাই করা ছিল না। তবে ওই মৃতদেহগুলির বয়স আনুমানিক দু'হাজার বছর বলে জানিয়েছেন তিনি। সূত্র: নিউজ ১৮।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps