রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

মোহামেডান-আবাহনীর সহজ জয়

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ১২:০৪ এএম

ঘরোয়া ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) নিজ নিজ ম্যাচে সহজ জয় পেয়েছে ঐতিহ্যবাহী মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব ও ঢাকা আবাহনী লিমিটেড। গতকাল বিকালে মুন্সিগঞ্জের শহীদ বীরশ্রেষ্ঠ ফ্লাইট লে. মতিউর রহমান স্টেডিয়ামে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবকে ২-০ গোলে হারিয়ে জয়ের ধারায় ফিরেছে মোহামেডান। বিজয়ী দলের হয়ে মালির ফরোয়ার্ড অধিনায়ক সোলায়মানে দিয়াবাতে ও স্থানীয় মিডফিল্ডার শাহরিয়ার ইমন একটি করে গোল করেন। অন্যদিকে নব-নির্মিত বসুন্ধরা কিংস অ্যারেনায় আবাহনী ৩-১ ব্যবধানে হারায় শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রকে হারায়। আবাহনীর পক্ষে মিডফিল্ডার জুয়েল রানা, ইরানি ডিফেন্ডার মিলাদ শেখ সোলায়মানি ও ফরোয়ার্ড অধিনায়ক নাবীব নেওয়াজ জীবন একটি করে গোল করেন। শেখ রাসেলের হয়ে একমাত্র গোলটি শোধ দেন পর্তুগালের ফরোয়ার্ড ইসমাইল রুতি।
কাল মুন্সিগঞ্জে মোহামেডানের বিপক্ষে ম্যাচের শুরুতে দাপট দেখালেও শেষ পর্যন্ত তা ধরে রাখতে পারেনি সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব। ধীরে ধীরে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে মোহামেডান দুই অর্ধে একটি করে গোল আদায় করে নেয়। ম্যাচের ১২ মিনিটে সাইফের নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড এমেকা ওগবাগের ভলি ক্রসবারের একটু উপর দিয়ে যাওয়ায় গোল হয়নি। ২৪ মিনিটেও ভাগ্য সহায় ছিল না সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের। নিহাদ জামান উচ্ছ¡াস বক্সে বলের নাগাল পাওয়ার আগেই তা ক্লিয়ার করে মোহামেডানকে ম্যাচে রাখেন গোলরক্ষক মোহাম্মদ সুজন। এরপরই মোহামেডান গুছিয়ে ওঠে আক্রমণে গিয়ে সফলতা পায়। ম্যাচের ৩২ মিনিটে নাইজেরিয়ার ওবি মনেকের ফ্রি কিক থেকে বল পেয়ে গোল করেন সালায়মানে দিয়াবাতে (১-০)। এগিয়ে থেকে বিরতিতে যাওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই দ্বিতীয় গোলের দেখা পায় মোহামেডান। ম্যাচের ৪৯ মিনিটে বক্সের ভেতর থেকে মোহামেডানের শাহরিয়ার ইমনের শট কাছের পোস্ট দিয়ে জালে জড়ালে ব্যবধান বাড়ে (২-০)। ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ পুরোটাই তখন সাদাকালোদের হাতে। শেষ দিকে তারা ব্যবধান আরও বাড়তে পারতো। কিন্তু ইমনের শট ক্রসবার কাঁপিয়ে ফিরে আসলে হতাশ হতে হয় মোহামেডানকে। ফলে শেষ পর্যন্ত ২-০ ব্যবধানের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে মতিঝিলের দলটি।
ম্যাচ জিতে মোহামেডান চার খেলায় দ্বিতীয় জয়ে ৮ পয়েন্ট নিয়ে তালিকায় চতুর্থস্থানে জায়গা পেয়েছে। সমান ম্যাচে দু’টি করে জয় ও হারে ৬ পয়েন্ট নিয়ে সাইফ রয়েছে পঞ্চমস্থানে।
একই দিন বিকালে লিগের আরেক ম্যাচে বসুন্ধরা কিংস অ্যারেনায় শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের বিপক্ষে ঢাকা আবাহনী শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ফুটবল উপহার দেয়। যা শেষ পর্যন্ত ধরে রাখে তারা। লিগে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে একটি পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নামে আবাহনী। ডিফেন্ডার টুটুল হোসেন বাদশার জায়গায় সুযোগ পান রেজাউল করিম। শুরু থেকে আক্রমণাত্মক ফুটবল খেললেও আবাহনী গোল পায় দ্বিতীয়ার্ধে। ম্যাচের ৪৯ মিনিটে জুয়েল রানার গোলে এগিয়ে যায় স্বাধীনতা ও ফেডারেশন কাপের চ্যাম্পিয়ন আবাহনী (১-০)। ৬১ মিনিটে মিলাদ শেখ সোলায়মানির গোলে ব্যবধান বাড়ায় তারা (২-০)। ম্যাচের ৬৪ মিনিটে শেখ রাসেলের পক্ষে ইসমাইল রুতি গোল করে ব্যবধান কমান (১-২)। আক্রমণের ধারা অব্যহত রেখে ৮৪ মিনিটে নাবীব নেওয়াজ জীবন গোল করলে আবাহনীর সহজ জয় নিশ্চিত হয় (৩-১)।
চার ম্যাচ শেষে তিন জয় ও এক ড্রতে ১০ পয়েন্ট নিয়ে তালিকায় শীর্ষে উঠল আবাহনী। সমান ম্যাচে একটি করে জয় ও হার এবং দুই ড্রতে ৫ পয়েন্ট পেয়ে সপ্তমস্থানে শেখ রাসেল।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps