শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১ আষাঢ় ১৪২৯, ২৪ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ফরিদপুরে স্ত্রীর মামলায় ওসি স্বামী কারাগারে

ফরিদপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৭ মার্চ, ২০২২, ৮:১৯ পিএম

ফরিদপুরে স্ত্রীর করা নারী নির্যাতন মামলায় চুয়াডাঙ্গার দর্শনা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. শামসুদ্দোহার জামিন নামঞ্জুর করেছে আদালত। সোমবার (৭ মার্চ) দুপুরে ফরিদপুরের জেলা দায়রা জর্জ আদালতের বিচারক মো. সেলিম মিয়া তার জামিন নামঞ্জুর করলে ওসি স্বামী এখন জেলে। ফরিদপুর জর্জ কোর্টের আইনজীবী শাহ মো. আবু জাফর বিকালে ইনকিলাবকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এ আইনজীবী জাফর ইনকিলাবকে বলেন, এর আগে নিম্ন আদালত ওই পুলিশ কর্মকর্তার জামিন নামঞ্জুর করলে সে আদেশের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ দায়রা জর্জ আদালতে জামিন আবেদন করে। পরে দায়রা জর্জ আদালতের বিচারক মো. সেলিম মিয়া তার জামিন নামঞ্জুর করেন।

এর আগে গত মাসের ২৪ ফেব্রুয়ারী, রাতে ঢাকার রাজাবাজার এলাকা থেকে ওই পুলিশ কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করে পুলিশের একটি টিম। এর পরদিন ২৫ ফেব্রুয়ারী, বিকালে তাকে ফরিদপুরের ১নং আমলি আদালতে পাঠানো হলে বিচারক তার জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানো নির্দেশ দেন। গ্রেফতার হওয়া শামসুদ্দোহা গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার নুরউদ্দিন আহমেদের ছেলে।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ৭ আগস্ট ফরিদপুর শহরের গোয়ালচামট এলাকার ফারুক আহমেদের মেয়ে ফারজানা আক্তার তুলির সঙ্গে বিয়ে হয় শামসুদ্দোহার। ৯ ফেব্রুয়ারি, কোতোয়ালি থানায় তার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন স্ত্রী তুলি। তুলির অভিযোগ, মাদক ও পর নারীতে আসক্ত তার স্বামী শামসুদ্দোহা। বিয়ের পর যৌতুকের দাবিতে তার ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন শুরু করেন। অসুস্থ বাবা-মায়ের চিকিৎসার কথা বলে তিনি ৪০ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। কয়েক দফায় ১৫ লাখ টাকা দেওয়া হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps