রোববার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১৯ আষাঢ় ১৪২৯, ০৩ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ভাস্কর্যের দাম ১৩৮ কোটি টাকা!

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ মার্চ, ২০২২, ১:২০ পিএম

ইতালির কিংবদন্তি ভাস্করের তৈরি শেষ ভাস্কর্যের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে বলে দাবি করল লন্ডনের একটি নিলামঘর। শ্বেতপাথরের ভাস্কর্যটি আগামী জুলাইয়ে নিলামে তুলতে চলেছে তারা। ইতিমধ্যেই দামও নির্ধারণ করা হয়ে গিয়েছে সেটির।

কিংবদন্তি ভাস্করের শেষ কাজের নিলাম শুরু হবে ১ কোটি ৬০ লাখ ডলার থেকে। যা বাংলাদেশী মুদ্রায় প্রায় ১৩৮ কোটি টাকার সমান। তবে মূর্তিটির বিশেষত্ব শুধু তার ভাস্করের শেষ কাজ বলে নয়। এই মূর্তি আসলে যিশু খ্রিস্টের প্রিয় শিষ্যা ম্যারি ম্যাগডালেনের। যাকে বহু বিতর্কিত এক ইংরেজি ‘বেস্টসেলার’ উপন্যাসে যিশুর পত্নী বলেও দাবি করা হয়েছিল।

মূর্তিটির নাম ‘অর্ধশায়ি্তা ম্যাদ্দালেনা’। যেটি ইতালির ভাস্কর আন্তোনিও ক্যানোভা তার মৃত্যুর আগে তৈরি করেছিলেন বলে দাবি করেছেন লন্ডনের নিলামঘর ক্রিস্টি। অ্যান্তোনিও ছিলেন ইতালির নব্যধ্রুপদি ঘরানার শিল্পী। শিল্প বিশেষজ্ঞরা বলেন, ক্যানোভাই ছিলেন সে যুগের অন্যতম সেরা। শ্বেতপাথরের মূর্তিতে তিনি যে কমনীয়তা ফুটিয়ে তুলতেন, তা অতুলনীয়। ক্যানোভার বিশেষত্ব ছিল তার মূর্তির হাত-পায়ের আঙুলের গড়ন হত নিখুঁত।

ক্রিস্টির বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, সদ্য খুঁজে পাওয়া এই ভাস্কর্যটির আঙুলেও আন্তোনিওর সেই বিশেষত্ব প্রকট। ১৮২২ সালে আন্তোনিওর মৃত্যু হয়েছিল। পরীক্ষা করে দেখা গিয়েছে, ওই ভাস্কর্যটির কাজও শেষ হয়েছিল ওই বছরেই। তাই মূর্তিটি যে ক্যানোভারই তৈরি সে নিয়ে সন্দেহের তেমন অবকাশ নেই। লন্ডনের ওই নিলামঘর ক্রিস্টিতে এই সপ্তাহান্তে প্রদর্শন করা হচ্ছে আন্তোনিওর শেষ কাজ। ক্রিস্টি জানাচ্ছে, শ্বেতপাথরের ওই মূর্তি আন্তোনিওর হারিয়ে যাওয়া শেষ ‘মাস্টারপিস’!

তবে মূর্তির চড়া দামের নেপথ্যে কিছু বিতর্কও আছে। ম্যাগডালেন বাইবেলের নতুন নিয়ম-এর অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ চরিত্র। তিনিই যিশুকে পুনরুত্থিত অবস্থায় প্রথম প্রত্যক্ষ করেন। পরে ম্যাগডালেন হয়ে ওঠেন এক বিতর্কিত চরিত্রও। বাইবেলের কিছু ভাষ্যে তাকে 'রূপোপজীবিনী' বলে বর্ণনা করা হয়। তবে ক্যাথলিক খ্রিস্ট ধর্মে তার গুরুত্ব আজও অপরিসীম। পরে ড্যান ব্রাউন তার ঝড় তোলা উপন্যাস 'দা ভিঞ্চি কোড'-এ ম্যাগডালেনকে যিশুর পত্নী বলে দাবি করেন। তার এই দাবির পিছনে ছিল মাইকেল বেইগ্যান্ট, রিচার্ড লি প্রমুখ ইতিহাসবিদের গবেষণা।

এমন ম্যাগডালেনকে যে ভাবে উপস্থাপন করেছিলেন আন্তোনিও, তা-ও বিস্ময়কর। এই ভাস্কর্যে ঊর্ধ্বাংঙ্গ অনাবৃত অবস্থায় অর্ধশায়িতা রয়েছেন ম্যাগডালেন। বস্তুত ম্যাগডালেনের আবিষ্ট অবস্থার প্রতিরূপ এটি। ক্রিস্টি জানিয়েছে আপাতত লন্ডনে থাকলেও অর্ধশায়িত ম্যাগডালেনকে এর পর নিউ ইয়র্ক এবং হংকংয়ে তাদের সংস্থার নিলামঘরেও রাখা হবে। তার পর আগামী ৭ জুলাই থেকে নিলামে উঠবে এই ভাস্কর্য। যার শুরুর দাম উঠতে পারে ৬৬ লাখ ডলার থেকে ১ কোটি ৬০ লাখ ডলার পর্যন্ত। সূত্র: দ্য ইকনোমিক টাইমস।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps