শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯, ০১ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

পোশাকশ্রমিককে ধর্ষণের দায়ে ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কার

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ মার্চ, ২০২২, ১০:২০ এএম

সাভারের আশুলিয়ায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক পোশাকশ্রমিককে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের নেতার বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত মো. সাকিব হোসেন ভূঁইয়া এশিয়ান ইউনিভার্সিটির আশুলিয়া ক্যাম্পাস শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক। এ ঘটনায় তাকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।

বুধবার (২৩ মার্চ) রাত সাড়ে ১০টার দিকে এশিয়ান ইউনিভার্সিটির ছাত্রলীগের সভাপতি নুরুল হাসনাত শুভ ও সাধারণ সম্পাদক ওয়াসিদ আল জাহিদ স্বাক্ষরিত একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এসব তথ্য জানা যায়।

মো. সাকিব ভূঁইয়ার গ্রামের বাড়ি আশুলিয়ার ঘোষবাগ এলাকার ঘোষবাগ প্রাইমারি স্কুল-সংলগ্ন এলাকায়।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সাভারের আশুলিয়ায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক পোশাকশ্রমিককে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে। পরে ভুক্তভোগী পোশাকশ্রমিককে আবারও বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রায় ৫ ঘণ্টা একটি 'ল' চেম্বারে বসিয়ে রাখা হয়। শেষ পর্যন্ত পালিয়ে গিয়ে মোবাইল ফোন বন্ধ করে দেন সাকিব।

ভুক্তভোগী ওই নারীর সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ‘আমার সাথে প্রতারণা করেছে সাকিব। আমাকে তার খালাতো ভাই ডেকে বিয়ের কথা বলেছিল। আমিও রাজি হয়েছিলাম। কিন্তু বিকেল ৩টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত একটা 'ল' চেম্বারে আমাকে বসিয়ে রাখা হয়। আসছি আসছি করে প্রায় ৫ ঘণ্টা পর সে ফোন বন্ধ করে দেয়। আগামীকাল পর্যন্ত আমি অপেক্ষা করব। তারপর আমি আইনের আশ্রয় নেব।’

তিনি আরও জানান, সাকিবের বাড়িতে যোগাযোগ করলে তাকে বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছে বলে জানায় সাকিবের পরিবার। তারা দায় এড়াতে চাইছে বলে দাবি করেন ভুক্তভোগী নারী।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, সম্মিলিত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এশিয়ান ইউনিভার্সিটির শাখার এক জরুরি সিধান্ত অনুয়ায়ী মো. সাকিব হোসেন ভূঁইয়াকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়। নৈতিক স্খলন ও দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে এই বহিষ্কারাদেশ জারি হলো।

একই সঙ্গে মো. সাকিব হোসেন ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের তদন্তের জন্য এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ছাত্রলীগের সহসভাপতি তারিকুল হাসান নাজমুল ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. জাকির হোসেনসহ দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
jack ali ২৪ মার্চ, ২০২২, ১২:৫৯ পিএম says : 0
According to Islamic law he should be stoned to death.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps