ঢাকা, বুধবার, ০৫ আগস্ট ২০২০, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

শাহজাদ ঝড়ে লন্ডভন্ড চিটাগাং

প্রকাশের সময় : ১০ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস রিপোর্টার : ক্রিকেটে তাদের আবির্ভাব এখনো হামাগুঁড়ি দেয়া শিশুর মতো। যে এখনো দাঁড়াতে শিখছে অভিভাবকদের হস্তক্ষেপে। তবে এরই মধ্যে ‘টি-২০ স্পেশালিস্ট’ ট্যাগ লেগে গেছে দেশটির বেশ কিছু ক্রিকেটারের গায়ে। সেই আফগানিস্তানের বর্তমান এক ব্যাটিং দানব মোহাম্মদ শাহজাদ। গতকাল তারই এক তান্ডবের সাক্ষি হলো বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)। তার এক ঝড়েই লন্ডভন্ড চিটাগাং ভাইকিংস। মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সন্ধ্যার ম্যাচে তার ব্যাটে ‘রাইডে’ রীতিমতো উড়েছে রংপুর রাইডার্স। শহীদ আফ্রিদি, সোহাগ গাজীরা লক্ষটা ছোটই রেখেছিলেন। তবে সেটাকে আরো কম বানিয়ে ফেলেন মোহাম্মদ শাহজাদ। বিস্ফোরক এই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানের তান্ডবে নিজেদের প্রথম ম্যাচে তামীমের দলকে ৯ উইকেটে হারিয়েছে নাঈম ইসলামের দল। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে দুই বল বাকি থাকতে ১২৪ রানে অলআউট হয়ে যায় চিটাগাং। জবাবে ১৫ ওভারে সৌম্য সরকারের উইকেট হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় রংপুর। ইনিংসটির দৈর্ঘ্য ছিল মাত্র ৭৬ মিনিট।
সৌম্যর সঙ্গে ১০ ওভার স্থায়ী ৭৭ রানের উদ্বোধনী জুটিতে রংপুরকে দারুণ সূচনা এনে দেন মোহাম্মদ শাহজাদ। দু’জনের আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে ৩৯ বলে আসে দলের অর্ধশতক। টাইমাল মিলসের প্রথম ওভারে একটি করে ছক্কা-চারে ১১ রান নেয়া সৌম্য ফিরেন এই ইংলিশ পেসারের দ্রæত গতির এক বলে। ব্যাট ছুঁয়ে এনামুল হকের গøাভসে জমা পড়ার আগে ২৫ বলে দু’টি ছক্কা ও একটি চারে ২৩ রান করেন বাঁহাতি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান। ১৮ রানে শোয়েব মালিকের বলে মিলসের হাতে জীবন পাওয়া শাহজাদ অপরাজিত থাকেন ৮০ রানে। তার ৫২ বলের ইনিংসটি গড়া ১১টি চার ও তিনটি ছক্কায়। তাসকিন আহমেদের এক ওভারে ১৮ রান নিয়ে তিনি জয় এনে দেয়ার সময় রংপুরের হাতে ছিল আরো ৫ ওভার। ৫ ওভার স্থায়ী অবিচ্ছিন্ন ৪৮ রানের জুটিতে মোহাম্মদ মিঠুনের অবদান ১২ রান। দলটির একমাত্র উইকেট হিসাবে ২৩ রানে সাজঘরে ফেরেন সৌম্য সরকার। তার উইকেটটি নেন তাইমাল মিলস।
এর আগে সন্ধ্যায় টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ১২৪ রান করে আলআউট হয়েছে চিটাগাং। ব্যাট হাতে তেমন কিছু করতে পারেননি জাকির হাসান, নাজমুল হোসেন মিলন, আব্দুর রাজ্জাকরাও। তাই সংগ্রহ খুব একটা বড় হয়নি চিটাগাংয়ের। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩০ রান এসেছে দলটির পাকিস্তানী রিক্রুট শোয়েব মালিকের ব্যাট থেকে। ৩২ বেল খেলে এই রান করেন তিনি। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ এনামুল হক করেন ১৬ বলে ২৫ রান। এছাড়া প্রথম ম্যাচের হাফ সেঞ্চুরিয়ান অধিনায়ক তামীম ইকবাল এদিন করেছেন মাত্র ১১ রান। দু’টি করে উইকেট নেন রংপুরের সোহাগ ও গিøসন। আফ্রিদি চার ওভারে ১২ রান দিয়ে নেন এক উইকেট। বোলিং সংশোধন করে ঘরোয়া ক্রিকেটে নিজেকে প্রমাণ করার কঠিন পরীক্ষায় থাকা বাঁহাতি স্পিনার সানি চার ওভারে ১৯ রান দিয়ে নেন এক উইকেট। এছাড়া একটি শিকার আসে রুবেল হোসেনের ঝুঁলিতেও।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন