বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ০৭ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে সরকারি ভূমি দখল, চেয়ারম্যানকে শোকজ

নোয়াখালী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৪ মার্চ, ২০২২, ৬:৩৫ পিএম

সুবর্ণচর উজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মো. মহি উদ্দিন চৌধুরী কর্তৃক সরকারি ভ‚মি দখলের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে ওই চেয়ারম্যানকে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয়েছে। দখলকৃত ওই ভ‚মিতে ‘দেশরত্ন শেখ হাসিনা সমুদ্র বিজ্ঞান ও সামুদ্রিক সম্পদ ব্যবস্থাপনা ইনিস্টিটিউট’ স্থাপনের জন্য ইতোমধ্যে প্রস্তাব প্রেরণ করা হয়েছিল।

বৃহস্পতিবার চেয়ারম্যান মো. মহি উদ্দিনকে কারণ দর্শানোর নোটিশের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সুবর্ণচর উপজলো সহকারি কমিশনার (ভ‚মি) মো. আরিফুর রহমান।

স্থানীয় সরকার শাখা নোয়াখালীর উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আবু ইউসুফ স্বাক্ষরিত ওই নোটিশে উল্লেখ করা হয়, সুবর্ণচর উপজেলার ৮নং মোহাম্মদপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মহি উদ্দিন চৌধুরী ৩০৬ নং উরির চর মৌজা ও ২৬৬নং চর ল²ী মৌজার সরকারি ১নং খাস খতিয়ানভূক্ত ভ‚মি জবর দখল করে। পরে সে বিভিন্ন ব্যক্তিগণকে অবৈধভাবে তা লীজ প্রদান করে। এ বিষয়ে উল্লেখপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সহকারি কমিশনারকে (ভূমি) নির্দেশ দেওয়া হয়। সরেজমিন তদন্ত শেষে কমিশনার প্রতিবেদন দাখিল করেন।

ওই ভ‚মিতে ‘দেশরত্ন শেখ হাসিনা সমুদ্র বিজ্ঞান ও সামুদ্রিক সম্পদ ব্যবস্থাপনা ইনিস্টিটিউট’ স্থাপনের জন্য ইতোমধ্যে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। এ ভূমিতে মহামান্য হাইকোর্ট বিভাগে রিট পিটিশন মামলা নং ৫১৯৪/২০০৪ ও ৪৬৩০/২০১০ বিচারাধীন থাকা অবস্থায় এ ধরণের কার্যকলাপ স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন, ২০০৯ এর ধারা ২৮ (৮) (ঘ) অনুযায়ী অসদাচরণ ও ক্ষমতার অপব্যবহারের সামীল হওয়ায় আপনার বিরুদ্ধে আইন মোতাবেক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য স্থানীয় সরকার বিভাগে কেন প্রস্তাব প্রেরণ করা হবেনা তা এ নোটিশ প্রাপ্তির ৭ কার্যদিবসের মধ্যে ব্যাখ্যা প্রদানের জন্য অনুরোধ করা হলো ।

সরকারি খাস জমি অবৈধ দখল করে তা লিজ দেয়ার বিষয়ে জানতে মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. মহি উদ্দিনের ব্যবহৃত মুঠোফোনে একাধিকবার চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি। তবে তার ইউপি সচিব জানিয়েছেন চেয়ারম্যান অসুস্থতার কারনে ঢাকা গিয়েছেন।

সুবর্ণচর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. আরিফুর রহমান জানান, সরজমিনে তদন্ত করে চেয়ারম্যান মহি উদ্দিনের বিরুদ্ধে সরকারি ভ‚মি দখলের অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে। ওই প্রতিবেদনের পর তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয়েছে। তার দখলকৃত জমির পরিমাণ প্রায় ৭শত একর।

স্থানীয় সরকার শাখা নোয়াখালীর উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আবু ইউসুফ বলেন, সরকারি ভ‚মি দখলের বিষয়ে অভিযুক্ত চেয়ারম্যানকে একটি নোটিশ দেওয়া হয়েছে। নোটিশ গ্রহণের ৭দিনে মধ্যে তাকে ব্যাখা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps