বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯, ২৯ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

এবার দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট জয়ের মিশন

মাউন্ট মঙ্গানুইয়ের স্মৃতি ফেরাতে চান ইবাদত

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ মার্চ, ২০২২, ১২:৩৬ এএম

দুই দশকের দুঃস্বপ্নের সব সফর শেষে মিলেছে অনির্বচনীয় স্বাদ। দক্ষিণ আফ্রিকায় স্বাগতিকদের বিপক্ষে প্রথম জয়ের পর ধরা দিয়েছে সিরিজ জয়ও। এতে বেড়েছে স্বপ্নের পরিধি। দক্ষিণ আফ্রিকায় এখন পর্যন্ত খেলা ছয় টেস্টেই হেরেছে বাংলাদেশ। এর পাঁচটিতে ইনিংস ব্যবধানে, অন্যটিতে বড় রানে। সেই ম্যাচেও দুই ইনিংস মিলিয়ে বাংলাদেশ পার হতে পারেনি স্বাগতিকদের প্রথম ইনিংসের সংগ্রহ। এমন বিবর্ণ রেকর্ডের পরও সফরকারীরা এবার টেস্ট জয়ের স্বপ্ন দেখছে ওয়ানডে সিরিজ জয়ের আত্মবিশ্বাসে।
বাংলাদেশের পেসার ইবাদত হোসেনের মনে হচ্ছে, দেশটিতে টেস্টেও ব্যর্থতার বৃত্ত এবার ভাঙা সম্ভব। ডারবানের চ্যাটসওয়ার্থ ক্রিকেট ওভালে গতকাল অনুশীলন শেষে বিসিবির পাঠানো ভিডিও বার্তায় গতিময় পেসার ইবাদত শোনালেন সেই আশাবাদ, ‘দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে সিরিজ জেতা খুবই কঠিন ছিল। আমাদের পেসাররা খুব ভালো বোলিং করেছে, তামিম ভাই, মুশফিক ভাই, সাকিব ভাই, লিটন খুব ভালো ব্যাটিং করেছে। ওয়ানডেতে সিরিজ জেতার পর সবাই আরও উজ্জীবিত। সবার মধ্যে আত্মবিশ্বাস জেগেছে, এই আত্মবিশ্বাস নিয়ে আমরা টেস্ট ম্যাচ শুরু করতে চাই। ইনশাআল্লাহ আমরা এই টেস্টে ভালো কিছু করব।’
ওয়ানডে সিরিজের আগে স্রেফ দিন চারেক অনুশীলনের সুযোগ মিলেছিল। তাদের সঙ্গেই দক্ষিণ আফ্রিকায় পা রাখা টেস্ট দল অনেক দিন সময় পেয়েছে প্রস্তুতি নেওয়ার। ব্যাটিং কোচ জেমি সিডন্সের তত্ত্বাবধানে অনুশীলন করেছে গ্যারি কারস্টেনের একাডেমিতে। সব মিলিয়ে প্রস্তুতিতে কোনো কমতি দেখছেন না ইবাদত, ‘প্রস্তুতি ম্যাচের জায়গায় আজ (গতকাল) আমরা ম্যাচ পরিস্থিতি তৈরি করে অনুশীলন করেছি। যদিও বৃষ্টির কারণে কিছুটা বিঘ্নিত হয়েছে। তবে উইকেট খুব ভালো। আশা করছি, ম্যাচেও একই ধরনের উইকেট থাকবে। সবাই চেষ্টা করছি, নিজেদের মতো প্রস্তুতি নেওয়ার। নিজের লাইন, লেংথ ঠিক রাখার দিকে মনোযোগ দিয়ে প্রস্তুতি নিচ্ছি।’
ওয়ানডের মতো আসন্ন সিরিজেও পেসারদের বড় ভূমিকা রাখতে হবে, ভালো করেই জানেন ইবাদত। সতীর্থদের সাম্প্রতিক সময়ের পারফরম্যান্স তাকে দেখাচ্ছে বড় আশা, ‘আমাদের পেসারদের উন্নতির গ্রাফ যদি লক্ষ্য করেন, তাসকিন, মুস্তাফিজ, শরিফুল আমরা সবাই খুব ভালো করার চেষ্টা করছি। পেসাররা সবাই উন্নতি করেছি। চেষ্টা করছি কীভাবে আরও উন্নতি করা যায়। সবার আত্মবিশ্বাস এখন অনেক উঁচুতে। আমরা দেশে ও দেশের বাইরে সবাই মিলে দেশকে জেতাব।’
প্রোটিয়াদের মাঠে জেতা সম্ভব, এই আত্মবিশ্বাস বাংলাদেশ পেয়েছিল বছরের শুরুতে নিউজিল্যান্ডের মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে টেস্ট জয় থেকে। এবার যেন সেটা ফিরিয়ে দিয়েছে ওয়ানডে দল। তারা টেস্ট দলকে দেখিয়েছে, দক্ষিণ আফ্রিকায়ও জেতা সম্ভব। এখানে টেস্টেও জয়খরা কাটাতে উন্মুখ নিউ জিল্যান্ডে জয়ের নায়ক ইবাদত, ‘এই বছরটা আমরা খুব ভালোভাবে শুরু করেছি, টেস্ট দিয়ে। ওখান থেকে দলের আবহ পাল্টে গেছে, সবার আত্মবিশ্বাস বেড়েছে। আমরা যেহেতু বছরটা খুব ভালোভাবে শুরু করেছি, চেষ্টা করছি এই আত্মবিশ্বাস নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার। এই আত্মবিশ্বাস নিয়ে ওয়ানডে সিরিজ জিতেছি, এখন যে টেস্ট সিরিজ আছে এটাও আমরা জিততে চাই।’
আগামী বৃহস্পতিবার ডারবানের কিংসমেডে প্রথম টেস্টে মাঠে নামবে বাংলাদেশ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps