মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১৪ আষাঢ় ১৪২৯, ২৭ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

মেসিডোনিয়ার স্বপ্নযাত্রা থামিয়ে বিশ্বকাপে পর্তুগাল

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩১ মার্চ, ২০২২, ১২:০০ এএম

 

রইল বাকি ৫
আজ রাতেই ২০২২ কাতার ফুটবল বিশ্বকাপের ড্র। বাছাইপর্বে রোমাঞ্চ-উত্তেজনার নানা ধাপ পেরিয়ে মূল টুর্নামেন্টে খেলা নিশ্চিত করেছে অধিকাংশ দল। বহুল প্রতীক্ষার প্রহর শেষে অনেকে ফিরেছে বৈশ্বিক আসরে। ‘হেভিওয়েট’ কেউ কেউ আবার বাদ পড়েছে বাছাইয়েই। কাতারের দোহায় হবে বিশ্বকাপের ড্র। ৩২ দলের আসরে স্বাগতিক কাতারসহ এরই মধ্যে বাছাই পেরিয়ে টুর্নামেন্টে জায়গা পাকা করেছে ২৭ দল। বাকি ৫টি স্থানের লড়াইয়ে আছে কয়েকটি দল। তার আগে গতপরশু রাতে শেষ রোমাঞ্চের ছোঁয়া লেগেছে বাছাইপর্বে। যেখানে মেসিডোনিয়ার স্বপ্নযাত্রা থামিয়ে মূল পর্বে উঠেছে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর পর্তুগাল, মোহাম্মদ সালাহর মিশরকে কাঁদিয়ে বিশ্বকাপে নাম লিখিয়েছে তারই ক্লাব সতীর্থ সাদিও মানের সেনেগাল, আরেকবার বিশ^ মঞ্চে খেলার ইচ্ছায় অবসর ভেঙে ফেরা জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচের সুইডেনের স্বপ্ন গুড়িয়ে শেষ বত্রিশে নাম লিখিয়েছে রবের্ত লেভান্দোভস্কির পোল্যান্ডও।


ম্যাচের আগে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো বলেছিলেন, গ্যালারিতে ভক্তদের গর্জন শুনতে চান তিনি, শুনতে চান সমবেত জাতীয় সঙ্গীত। ফুটবলের এই মহাতারকাকে নিরাশ করেননি পর্তুগিজরা। অধিনায়কের সঙ্গে ঠিকই তারা সুর মেলান জাতীয় সঙ্গীতে। সুতীব্র চিৎকারে সমর্থন দেন দলকে। সেই সাথে যোগ হওয়া ভাগ্যের ছোঁয়ায় বিশ^ মঞ্চে ঠাঁই করে নিয়েছে পর্তুগাল। প্রতিপক্ষের ছোট একটা ভুল, সেটাই যথেষ্ট হলো ব্রুনো ফের্নান্দেসের জন্য। চমৎকার ফিনিশিংয়ে দলকে এগিয়ে নিলেন এই মিডফিল্ডার। নর্থ মেসিডোনিয়ার বিপক্ষে বাঁচা-মরার লড়াইয়ে দ্বিতীয়ার্ধে করলেন আরেক গোল। শেষ বাধা পেরিয়ে কাতার বিশ্বকাপে খেলা নিশ্চিত করল পর্তুগাল। গতপরশু রাতে ঘরের মাঠে প্লে-অফের ফাইনালে ২-০ গোলে জিতেছে রোনালদোর দল।
অনেকটা যেন ঘোষণা দিয়েই জয়। টানা দুটি নক-আউট ম্যাচ জিতে তবেই এই জায়গায় পৌঁছতে পারলেন রোনালদোরা। এদিন মেসিযোনিয়ার আগে গত বৃহস্পতিবার তুরস্ককে ৩-১ গোলে হারিয়ে তারা এগিয়ে যান বিশ্বকাপের পথে শেষ ধাপে। সব ঠিকঠাক থাকলে আগামী নভেম্বরে রোনালদো খেলবেন নিজের পঞ্চম বিশ্বকাপে। ততদিনে বয়স হবে তার ৩৮ ছুঁইছুঁই। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গোটা দলের সঙ্গে ছবি দিয়ে সেই উচ্ছ্বাসের বার্তা ছড়িয়ে দিলেন পর্তুগাল অধিনায়ক, ‘লক্ষ্য পূরণ হলো, কাতার বিশ্বকাপে আমরা, আমাদের প্রাপ্য জায়গায় আমরা! অক্লান্ত সমর্থন দিয়ে যাওয়ার জন্য সব পর্তুগিজের প্রতি কৃতজ্ঞতা।’
এই নিয়ে টানা ষষ্ঠবার বিশ্বকাপ খেলার যোগ্যতা অর্জন করল পর্তুগাল। এই সময়টায় ২০০৬ বিশ্বকাপে চতুর্থ হয় তারা, রোনালদোর যেটি ছিল প্রথম বিশ্বকাপ। এরপর আর কোয়ার্টার-ফাইনালেও ওঠা হয়নি তাদের।

সালাহর মিশরকে কাঁদিয়ে বিশ্বকাপে
মানের সেনেগাল
মাস দুয়েক আগে টাইব্রেকারে হেরে আফ্রিকান নেশন্স কাপ থেকে খালি হাতে ফিরতে হয়েছিল মিশরকে। আবারও সেই একই প্রতিপক্ষ, একইরকম পেনাল্টি শুটআউট। কিন্তু ভাগ্য বদলাল না তাদের। পুরনো ক্ষতে প্রলেপ দিতে পারলেন না মোহামেদ সালাহ ও তার সতীর্থরা। ১২ গজ দূর থেকে জালে বল পাঠালেন সাদিও মানে। কাতার বিশ্বকাপের টিকেট নিশ্চিত করার আনন্দে ভাসল সেনেগাল।
ডায়ামিনিয়াডিওয়ে বাছাইয়ে প্লে-অফের ফিরতি লেগে টাইব্রেকার নামক ভাগ্য পরীক্ষায় ৩-১ ব্যবধানে জিতে বিশ্বকাপ খেলা নিশ্চিত করে সেনেগাল। প্রথম লেগে মিশর ১-০ গোলে জয়ের পর এখানে স্বাগতিকরা একই ব্যবধানে জিতলে দুই লেগ মিলিযে স্কোরলাইন দাঁড়ায় ১-১। ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে। পেনাল্টি শুট আউটে দুই দলের নেওয়া প্রথম চার শটে একটিও গোল হয়নি। ব্যর্থতার সেই তালিকায় আছে মিশরের সবচেয়ে বড় তারকা সালাহও। সেনেগাল তাদের বাকি তিন শটের সবকটিতেই গোল পায়। কিন্তু মিশর তৃতীয় শটে গোল পেলেও চতুর্থ শটে আবারও ব্যর্থ হয়। ফলে সেনেগালের পঞ্চম শটে মানে লক্ষ্যভেদ করলেই জয় নিশ্চিত হয়ে যায় আফ্রিকান চ্যাম্পিয়নদের।
এই নিয়ে টানা দ্বিতীয় ও মোট তৃতীয়বার বিশ্বকাপে উঠল সেনেগাল। বিশ্বসেরা টুর্নামেন্টে তাদের সর্বোচ্চ সাফল্য ২০০২ আসরে, সেবার চমক জাগিয়ে কোয়ার্টার-ফাইনালে উঠেছিল তারা।

ইব্রার সুইডেনকে হারিয়ে বিশ্বমঞ্চে লেভার পোল্যান্ড
রবের্ত লেভান্দোভস্কি নাকি জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচ? গোল করে জবাবটা যেন নিজেই লিখে দিলেন প্রথম জন। সুইডেনের চাপ সামলে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই জালে বল পাঠালেন পোলিশ তারকা। খানিক পর প্রতিপক্ষের ভুলে আরেকটি গোল আদায় করে নিল তারা। ঘরের মাঠে দারুণ জয়ে কাতার বিশ্বকাপে পা রাখল পোল্যান্ড। পোল্যান্ডের শহর খজুফে বাছাইয়ে প্লে-অফের ‘বি’ গ্রুপের ফাইনালে ২-০ গোলে জিতেছে স্বাগতিকরা। লেভান্দোভস্কি দলকে এগিয়ে নেওয়ার পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন পিওতর জেলেনস্কি।
চার বছর আগের রাশিয়া বিশ্বকাপের কোয়ার্টার-ফাইনালিস্ট সুইডেন এবার বাছাইপর্বও পার হতে পারল না। অন্যদিকে, টানা দ্বিতীয়বারের মতো বিশ্বসেরার মঞ্চে জায়গা করে নিল পোল্যান্ড। রাশিয়ার আসরে গ্রুপ পর্ব থেকে ছিটকে পড়েছিল তারা। লেভানদোভস্কির কাঁধে চড়ে এবার নিশ্চয় বড় স্বপ্ন দেখছে দলটি।

পাঁচ মিনিটের ঝড়ে স্বপ্নভঙ্গ মাহরেজদের
মাত্র পাঁচ মিনিট। পাঁচ মিনিটে কত কিছুই না ওলট-পালট হয়ে যায়! পাঁচ মিনিট আগেও আলজেরিয়ান খেলোয়াড়েরা জানতেন একটু দাঁতে দাঁত চেপে সময়টা কাটিয়ে দিলেই বিশ্বকাপ অপেক্ষা করছে তাঁদের জন্য। পাঁচ মিনিট পর উল্টে গেল সবকিছুই। আলজেরিয়ার বিশ্বকাপ-আশা শেষ। শেষ মুহূর্তের গোলে রিয়াদ মাহরেজদের আলজেরিয়াকে টপকে বিশ্বকাপে জায়গা করে নিয়েছে ক্যামেরুন। ফলে বিশ্বকাপের সময়টা টিভির সামনে বসেই কাটাতে হবে ২০১৯ সালের আফকনজয়ীদের।
প্রথম লেগে ক্যামেরুনের লিম্বেতে স্ট্রাইকার ইসলাম সিøমানির গোলে জয় পায় আলজেরিয়া। আলজেরিয়ার মাঠে দ্বিতীয় লেগে এরিক-মাক্সিম চুপো-মোতিংয়ের গোল এগিয়ে যায় ক্যামেরুন। দুই লেগ মিলিয়ে সমতায় থাকা ম্যাচটি গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। ১১৮ মিনিটে গোল করে ম্যাচে সমতা আনার পাশাপাশি দুই লেগ মিলিয়ে দলকে এগিয়ে দেন আলজেরিয়ান ডিফেন্ডার আহমেদ তুবা। কিন্তু আলজেরিয়ানদের স্বপ্নভঙ্গ হতে পাঁচ মিনিটও লাগল না। যোগ করা সময়ের তৃতীয় মিনিটে ক্যামেরুনের হয়ে গোল করেন লিওঁর উইঙ্গার কার্ল-তোরো একাম্বি। দুই লেগ মিলিয়ে স্কোরলাইনে সমতা থাকলেও অ্যাওয়ে গোলের হিসাবে এগিয়ে যায় ক্যামেরুন। আর সেটাই কাল হয় আলজেরিয়ার জন্য।

নেই ‘সুপার ঈগল’, স্ল্যাক স্টার ঘানা, মরক্কো ও তিউনিসিয়ার টিকিট
২০০৬ সালে জার্মানিতে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ খেলতে পারেনি নাইজেরিয়া। ১৬ বছর পর ২০২২ কাতার বিশ্বকাপেও আফ্রিকা থেকে আসা দলগুলোর মধ্যে থাকছে না ‘সুপার ইগল’খ্যাত নাইজেরিয়ার নাম। নিজেদের মাঠ আবুজায় প্লে অফের ফিরতি লেগে ঘানার সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করায় কাতার বিশ্বকাপে খেলা হচ্ছে না নাইজেরিয়ার। প্রথম লেগে ঘানার মাঠে গোলশুন্য ড্র করে আফ্রিকার ‘সুপার ঈগল’রা। দুই লেগ মিলিয়ে প্রতিপক্ষের মাঠে গোল করার সুবিধা নিয়ে কাতার বিশ্বকাপে নাম লেখায় ‘ব্ল্যাক স্টার’ ঘানা। ২০০৬ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত টানা তিন বিশ্বকাপে খেলা ঘানা কাতারে চতুর্থ বিশ্বকাপে খেলবে। এদিকে, কাসাব্লাঙ্কায় প্লে অফের ফিরতি লেগে গণপ্রজাতন্ত্রী কঙ্গোকে ৪-১ গোলে হারায় মরক্কো। কিনশাসায় প্রথম লেগে ১-১ গোলে ড্র হয়। দুই লেগ মিলিয়ে ৫-২ গোলের জয়ে কাতার বিশ্বকাপের টিকিট পেয়েছে মরক্কো। আর তিউনিসে ঘরের মাঠে প্লে অফ ফিরতি লেগে গোলশুন্য ড্র করে তিউনিসিয়া। বামাকোয় প্রথম লেগ ১-০ গোলে জেতায় দুই লেগ মিলিয়ে ১-০ গোলের জয়ে ষষ্টবারের মতো বিশ্বকাপে খেলার টিকিট পেয়েছে তিউনিসিয়া।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps