মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১৪ আষাঢ় ১৪২৯, ২৭ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

নতুন সেটআপে মিত্রদের সুযোগ নাকচ ইমরান খানের

জোট সরকার ব্ল্যাকমেইলের শিকার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ এপ্রিল, ২০২২, ১২:০০ এএম

প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান নতুন সেটআপে মিত্র রাখার সুযোগ প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন যে, জোট সরকার ব্ল্যাকমেইলের শিকার। গত মঙ্গলবার এক জনসভায় ইমরান বলেন, ‘এবার আমরা আমাদের সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগণ - ‘মতাদর্শিক কর্মীদের’ নিয়ে সরকার গঠন করব’। প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন যে, দলে স্বার্থের কোনো স্থান নেই এবং ‘সৎ আপত্তিকারী, আন্তরিক এবং ত্যাগী কর্মীদের এগিয়ে আনা হবে’।

এর আগে, প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সভাপতিত্বে ইসলামাবাদে পিটিআই-এর কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় যেখানে একটি সংসদীয় বোর্ড গঠনের অনুমোদন দেওয়া হয়। সূত্রের খবর, কেন্দ্রীয় সংসদীয় বোর্ড প্রার্থী ও টিকিট বণ্টন নিয়ে একটি নীতিমালা তৈরি করবে। এ প্রসঙ্গে নির্বাচনের প্রস্তুতি ত্বরান্বিত করার নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী।

সংবাদ সম্মেলনের সময় প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ঘোষণা করেন যে, আগামী তিন মাসের মধ্যে সারা দেশে আগামী সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তিনি বলেন, এবার পাকিস্তান তাহরিকে ইনসাফ (পিটিআই) টিকিট বিতরণ করবে। তিনি স্বীকার করেছেন যে, তার দল অতীতে টিকিট বণ্টনে ভুল করেছে, যার জন্য তাকে অনেক মূল্য দিতে হয়েছে, কিন্তু বলেন, ‘আমরা আমাদের ভুল থেকে শিখি’।

সাম্প্রতিক ঘটনাবলী সম্পর্কে মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিদেশ থেকে ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল এবং এ পদক্ষেপে আমাদের জনগণ বিশ্বাসঘাতক হয়েছে। তিনি আশা প্রকাশ করেন, জনগণ এ ধরনের পদক্ষেপ প্রত্যাখ্যান করবে এবং আগামী সাধারণ নির্বাচনে যারা বিদেশি ষড়যন্ত্রের অংশ হয়েছে তাদের রাজনীতিকে চিরতরে কবর দেবে, তাদের শিক্ষা দেবে। তিনি বলেন, এ দেশদ্রোহীরা দেশের স্বাধীন পররাষ্ট্রনীতি শেষ করার পরিকল্পনা করেছে এবং আমরা প্রতিটি ফোরামে তাদের বিরুদ্ধে লড়াই করব। তার প্রধান রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ জেইউআই-এফ-এর ফজলুর রহমান, পিএমএল-এন-এর শাহবাজ শরিফ এবং পিপিপির আসিফ জারদারির কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিন পুতুল গত ৩০ বছর ধরে জাতীয় সম্পদ লুট করে বিদেশে লুকিয়ে আছে। ‘তারা বলতে পারে যে, তাদের ব্যক্তিগত স্বার্থের কারণে ভিক্ষুকদের বেছে নেওয়া যায় না’, তিনি যোগ করেন।

তিনি বলেন, দেশে নাটক তৈরি হয়েছে। যারা পিটিআই থেকে সরে এসেছিলেন তারা লাহোরের একটি স্থানীয় হোটেলে জড়ো হয়েছিল। তিনি বলেন, এ ধরনের হীন কৌশল গণতন্ত্র, ভবিষ্যৎ প্রজন্মের ভবিষ্যৎ ও জাতির ঐক্যকে হুমকির মুখে ফেলেছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, যারা পিটিআই আসনে বা সংরক্ষিত আসনে নির্বাচিত হয়েছেন তারা কয়েক কোটি টাকার বিনিময়ে তাদের বিবেক বিক্রি করেছেন এবং এ ধরনের বিশ্বাসঘাতকদের আজীবন নিষেধাজ্ঞা নিশ্চিত করা হবে।
তিনি বলেন, এ ধরনের উপাদান জাতি, দেশ ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মের সাথে বিশ্বাসঘাতক, তাদের শাস্তি না হলে তারা ক্ষুদ্র আর্থিক লাভের জন্য গণতন্ত্রের জন্য দর কষাকষি চালিয়ে যাবে।

প্রধানমন্ত্রী ইমরান বলেন, এ ধরনের প্রবণতা দিয়ে যেকোনো বিদেশি দেশ বিধায়কদের আনুগত্য কিনে নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করতে পারে। তিনি তাদের বিরুদ্ধে আইনি লড়াই করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, যোগ করেছেন যে, মামলাটি সুপ্রিম কোর্ট গ্রহণ করেছে।

তিনি বলেন, ‘এরা সবাই দেশদ্রোহী যারা বিদেশী ষড়যন্ত্রে ভূমিকা রেখেছে’। পুরো জাতি এ ধরনের প্রবণতাকে প্রতিহত করবে, কারণ এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্ত এবং ষড়যন্ত্র সফল হবে না। কারণ এটি দেশের ভবিষ্যতকে হুমকির মুখে ফেলেছে।
প্রধানমন্ত্রী তার দলের কর্মীদেরকে বিশ্বাসঘাতকদের বিরুদ্ধে প্রতিদিন শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিবাদ করতে বলেছেন, বিশেষ করে অনাস্থা প্রস্তাবে যোগদানের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে।

সিদ্ধানের আগে বিদেশী ষড়যন্ত্র সম্পর্কে জানতে চান সুপ্রিমকোর্ট
এদিকে বুধবার প্রধান বিচারপতি উমর আতা বন্দিয়াল বলেছেন, ইমরানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব বিদেশী ষড়যন্ত্রের অজুহাতে খারিজ করে ডেপুটি স্পিকারের জারি করা রায়ের বিরুদ্ধে সুয়োমটো মামলার রায় দেওয়ার আগে সুপ্রিম কোর্ট প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র সম্পর্কে আরো জানতে চেয়েছিল। গতকাল এ মামলার শুনানির সময় বিচারপতি বান্দিয়াল বলেন, আমরা দেখতে চাই যে, কী ষড়যন্ত্র ছিল সেই প্রস্তাব খারিজ করার জন্য।

তিনি যোগ করেছেন যে, স্পিকারের হাউসের আলোচ্যসূচি থেকে বিচ্যুত হওয়ার এবং অন্য কিছু ‘তথ্যের’ ওপর নির্ভর করার ক্ষমতা আছে কিনা তাও আদালত পরীক্ষা করবে।
‘এ ধরনের উপাদান উপস্থিত ছিল কিনা... জাতীয় নিরাপত্তা কমিটির বৈঠক কখন হয়েছিল’ বিচারপতি বান্দিয়াল জিজ্ঞাসা করতে গিয়ে বলেন এবং পিটিআই আইনজীবী বাবর আওয়ানকেও আদালতকে বলতে হবে যদি একটি সাংবিধানিক প্রক্রিয়াকে পাশ কাটিয়ে দেওয়া যায়। মামলায় একটি অভিযোগ করা হয়েছিল, তিনি বলেন, আদালত মামলায় ‘তথ্যের’ ওপর ফোকাস করতে চেয়েছিল কারণ এ রায়টি স্পিকারের একটি পদক্ষেপ ছিল।

আওয়ান বলেন, মিশনের উপপ্রধান, প্রতিরক্ষা অ্যাটাশে এবং অন্য তিনজন কূটনীতিক উপস্থিত ছিলেন এমন একটি বৈঠক সংক্রান্ত একটি বার্তা ৭ মার্চ পাকিস্তানে পৌঁছেছিল। আওয়ান ব্যাখ্যা করেছেন যে, পররাষ্ট্র দফতর মেমোটি পরীক্ষা করেছে এবং তারপরে একটি বৈঠক ডাকা হয়েছিল যা অনুপলব্ধতার কারণে পররাষ্ট্র সচিব উপস্থিত ছিলেন না। সূত্র : এক্সপ্রেস ট্রিবিউন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (6)
জসিম ৭ এপ্রিল, ২০২২, ৪:৪৫ এএম says : 0
সঠিক সিদ্ধান্ত
Total Reply(0)
Mohammad Abul Mamun ৭ এপ্রিল, ২০২২, ৯:২৩ এএম says : 0
ইমরান ব্যাক্তিগতভাবে কেমন তা আমরা জানি না, তবে তার কর্মকান্ড সবসময় দুর্বল ও অসহায়দের পক্ষেই, এই কারনে ইমরানের প্রতি দেশে ও বিদেশে সাধারন মানুষের সমর্থন অনেক। আমরা তার দীর্ঘায়ু কামনা করছি।
Total Reply(0)
Jashim Chowdhury ৭ এপ্রিল, ২০২২, ৯:২৪ এএম says : 0
যুক্তরাষ্ট্রের সাহায্য সহযোগিতায় পাকিস্তান চলে, সেনাবাহিনী তদারকি করে, একটু হেরফের হলে সরকারের গদি ভেঙ্গে পড়ে!
Total Reply(0)
Bacheu Rahaman ৭ এপ্রিল, ২০২২, ৯:২৪ এএম says : 0
ও দেশের সুপ্রিয় কোর্ট কি রায় দেবে জানিনা, তবে প্রেসিডেন্ট জিযাউল হক থেকে আমার দেখা পাকিস্তানের সব থেকে যোগ্য প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এ নিয়ে কোন সন্দেহ নেই!
Total Reply(0)
Sa Mansoor Bahadur ৭ এপ্রিল, ২০২২, ৯:২৫ এএম says : 0
দূর্নীতিবাজ কিছু সদস্য আর দূর্নীতিবাজ বিরোধীদলের ষড়যন্ত্রের শিকার ইমরান খান, যিনি সদা সত্য ও স্পষ্টবাদী, নির্ভীক, সাধারণ একজন মানুষ ও অধিনায়ক যিনি নিজে ক্লিন থেকে দেশকে দূর্নীতিমুক্ত করতে চেয়েছেন, আস্তে-আস্তে দেশের উন্নয়ণ,কৃষি, শিল্প কারখানায় অভূতপূর্ব উন্নতি সাধন করছিলেন। এমতাবস্থায় ঠিক কী জন্য তার উপর সাংসদরা অনস্তা প্রস্তাব আনলেন তা এখনও অস্পষ্ট। তবে ইমরান খান চাইলে ক্ষমতায় বসে থাকতে পারতেন, তার বিপুল পরিমান সমর্থন দিয়ে। বিশেষকরে পশতুন, বেলুচি, শ্রেরখি ও সিন্ধী জনগোষ্ঠীর বিশাল সমর্থন দিয়ে কিন্তু তিনি তা করেন নি, একজন দূরদর্শী নেতার এটাই মহৎ গুণ। এটা মানতে হবে, এই মূহুর্তে সেনাবাহিনী যদি জোরকরে কিছু করতে চাই তাহলে দেশে দীর্ঘস্থায়ী গৃহযুদ্ধ লেগে যাবে, এতে সেনাবাহিনীসহ দেশটির অপূরণীয় ক্ষতি হতে পারে। তাই এই মহান নির্লোভী নেতা, দেশপ্রেম দেখিয়ে, সংসদ ভেঙ্গে দিতে রাষ্ট্রপতিকে অনুরোধ জানান।
Total Reply(0)
Maruf Ahmed ৭ এপ্রিল, ২০২২, ৮:১৫ এএম says : 0
পাকিস্তানের ব্যাপারে যে সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে এই নিউজটি একটি সাধারণ পাঠক বুঝতে পারবেনা কারন গুগল ট্রান্সলেট থেকে ট্রান্সলেট করে হুবহু বসিয়ে দেয়া হয়েছে সাংবাদিকতার ভাষা এখানে ব্যবহার করা হয়নি, ইনকিলাব একটি স্বনামধন্য পত্রিকা আমরা আশা করব ভবিষ্যতে অবশ্যই সাবলীল ভাষায় সাংবাদিকতার ভাষায় সংবাদ পরিবেশন করার জন্য।
Total Reply(1)
মীর মনিরুল আলম ৭ এপ্রিল, ২০২২, ১০:১৪ এএম says : 0
সঠিক মন্তব্য করেছেন। প্রতিবেদনটি পড়ে আমার কাছেও তাই মনে হয়েছে।

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps