ঢাকা শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৩ আশ্বিন ১৪২৭, ২৯ মুহাররম ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ঢাকা সিটির অবৈধ দখলদার উচ্ছেদে সহযোগিতার হাত বাড়াবে বিচার বিভাগ-প্রধান বিচারপতি

প্রকাশের সময় : ১৩ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা শহরে অবৈধ দখলদারিত্ব উচ্ছেদে প্রয়োজন হলে বিচার বিভাগ সিটি করপোরেশনের জন্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেবে, এমন আশ্বাস দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। গতকাল শনিবার রাজধানীর নারিন্দা রোডের শ্রী শ্রী মাধব গৌড়ীয় মঠের ভক্তি বিলাস তীর্থ ভবনের চতুর্থ ও পঞ্চম তলার নির্মাণকাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
প্রধান বিচারপতি বলেন, যারা সিটি কর্পোরেশনের জমি দখল করে রেখেছে, সেগুলোসহ রাস্তা-ঘাট উচ্ছেদে যদি কোনো প্রতিবন্ধকতা আসে, তাহলে আপনাদের (দুই মেয়র) জন্য বিচার বিভাগ হাত প্রসারিত করবে।
প্রধান বিচারপতির সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে গত ৭ নভেম্বর দখল উচ্ছেদে বিচার বিভাগের সহযোগিতা চেয়েছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আনিসুল হক। সেই আহ্বানের পাঁচ দিন পর এই সহযোগিতার আশ্বাস দিলেন প্রধান বিচারপতি।
ধর্মীয় সহিংসতা রোধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়ে প্রধান বিচারপতি বলেন, সাঁওতাল অধিবাসীদের ওপর যে হামলা চালানো হয়েছে, ঘর-বাড়ি পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে; তারা অত্যন্ত গরিব সম্প্রদায়ের। আমি আশা রাখব, যারা প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীতে আছেন তারা একটু সচেতন হবেন। তাহলে এ ঘটনার আর পুনরাবৃত্তি ঘটবে না। ধর্মীয় উপাসনালয়ে যাতে কোনো আঘাত না আসে আপনারা দুই মেয়রও সেদিকে খেয়াল রাখবেন।
সুরেন্দ্র কুমার সিনহা আরো বলেন, বাংলাদেশে গণতন্ত্র ও আইনের শাসন আছে। এখানে কিছু লোক বেশ কিছু দিন ধরে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার চেষ্টা করছে।
সংখ্যালঘুদের অধিকার নিশ্চিত করতে ক্ষমতাসীনদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘যারা ক্ষমতায় আছেন আমি তাদেরও বলছি, যারা বিভিন্ন ধর্মাবলম্বী তাদের ধর্ম পালনে যেন বাধা না দেই, তাদের ধর্মীয় উপাসনালয় বানিয়ে দেই। কেউ কারো প্রতি আঘাত না করি, কারো মন্দির-মসজিদে বাধা না দেই। তাদের সহাবস্থানে বাধা সৃষ্টি করব না। যারা এসব করছে তারা ব্যক্তিগত স্বার্থের জন্য এগুলো করছে।
শ্রী শ্রী মাধব গৌড়ীয় মঠের সভাপতি শ্রী গিরিধারী লাল মোদীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন