রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে সিরিজ জয়ের ইতিহাস, অভিনন্দনে ভাসছেন টাইগাররা

সোশ্যাল মিডিয়া ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ এপ্রিল, ২০২২, ৮:২৯ এএম

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তাদের মাটিতেই প্রথমবারের মতো ঐতিহাসিক সিরিজ জয়ে প্রাণঢালা অভিনন্দন ও শুভেচ্ছায় ভাসছেন টাইগাররা। সিরিজ জয়ের সঙ্গে সঙ্গে টাইগারভক্তরা সামাজিক মাধ্যমে একের পর এক স্ট্যাটাস ও পোস্ট দিয়ে প্রিয় দলকে অভিনন্দন ও ভালবাসায় সিক্ত করেন।

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে এর আগে কোনো ফরম্যাটে একটিও জয় ছিল না বাংলাদেশের, সেখানে শুধু ম্যাচ জয়ই নয়, সিরিজ জয় রীতিমত অবিশ্বাস্য একটি ব্যাপার। বাংলাদেশের ক্রিকেট উন্নতির দুর্দান্ত একটি মাইলফলক হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকবে এই সিরিজ জয়।

তাসকিনের আগুনঝরা বোলিংয়ের পর জয়টা প্রায় বাংলাদশের হাতের মুঠোতেই চলে এসেছিল। বাকি ছিল শুধু আনুষ্ঠানিকতা। বোলাররা দক্ষিণ আফ্রিকাকে ১৫৪ রানে অলআউট করে দিয়ে ম্যাচকে যতটা সহজে পরিণত করেছিলেন, ব্যাটাররা সেই সহজ কাজটাতে আরও সহজ করে নিলেন। বিশেষ করে অধিনায়ক তামিম ইকবাল। অপর ওপেনার লিটন দাসকে নিয়ে অবিশ্বাস্যভাবে ১২৭ রানের জুটি গড়ে বাংলাদেশের জয়কে হাতের মুঠোয় নিয়ে আসেন তিনি।

শেষ পর্যন্ত লিটন আউট হয়ে গেলেও সাকিব আল হাসানকে সঙ্গে নিয়ে সেঞ্চুরিয়নের সুপার স্পোর্টস পার্কে মাত্র ২৬.৩ ওভারে ৯ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে ম্যাচ জিতে ইতিহাস গড়ে মাঠ ছাড়লেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। দক্ষিণ আফ্রিকার মত পরাশক্তিধর দেশের মাটিতে গিয়ে তাদেরই বিপক্ষে এই প্রথম সিরিজ জয়ের ইতিহাস রচনা করলেন বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তাদের মাটিতেই প্রথমবারের মতো ঐতিহাসিক সিরিজ জয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সকল খেলোয়াড়, কোচ ও ম্যানেজারসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে প্রাণঢালা অভিনন্দন জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওয়ানডে সিরিজের মতো টেস্টেও বাংলাদেশ দল জয়ের জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা অব্যাহত রাখবে বলে অভিনন্দন বার্তায় রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে টাইগারভক্তদের বাছাই করা কিছু অভিনন্দন বার্তা তুলে ধরা হলো।

সরদার মোঃ নয়ন লিখেছেন, ‘‘দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে! যে মাটিতে উপমহাদেশের দলগুলোর মধ্যে শ্রীলঙ্কা কখনো জিততে পারেনি, ভারত জিতেছে একবার, পাকিস্তান দুবার...সেখানে এখন বাংলাদেশও বুক ফুলিয়ে গর্ব করতে পারে।তা-ও কী দাপটেই না সিরিজটা জিতল! সেঞ্চুরিয়নে আজ তৃতীয় ওয়ানডেতে তাসকিন আহমেদের দারুণ বোলিংই বাংলাদেশের জয়ের ভিত গড়ে দিয়েছিল, দক্ষিণ আফ্রিকার ভিটেতে তাদের ১৫৪ রানের লক্ষ্যটা পেরোতে খুব বেশি কসরতের দরকার ছিল না।’’

টাইগারদের প্রশংসা করে কামাল হোসাইন খান লিখেছেন, ‘‘তামিম এবং তাসকিনময় দিনে দেশের বাহিরে কি অসম্ভব সিরিজ জয়। ব্যাটিং /বোলিং দুই জায়গায় শ্রেষ্ঠত্ব দেখিয়েছে আজ বাংলাদেশ। অনেক অনেক শুভ কামনা টিম টাইগার।’’

শুভেচ্ছা জানিয়ে গোলাম রাসুল লিখেছেন, ‘‘আলহামদুলিল্লাহ প্রথমবারের মতো দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে, তাদের মাঠে প্রথম ওয়ানডে সিরিজ জয়।
আমরা এরকম বাংলাদেশকে চাই। অভিনন্দন টিম বাংলাদেশ, অভিনন্দন তাসকিন আহমেদ। আবারো প্রমাণ হয়ে গেল টিম হিসেবে খেললে আমরা যেকোন প্রতিপক্ষকে হেঁসে খেলে হারিয়ে দিতে পারি অন্তত ওডিআই ফরমেটে। আজকের খেলা এককথায় জাস্ট অসাধারণ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps