বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯, ২৯ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

মুসলিম বিশ্বকে জেগে উঠতে হবে

ইসরাইলি বর্বরোচিত হামলার নিন্দা ও প্রতিবাদ বিভিন্ন ইসলামী দলের নেতৃবৃন্দ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ এপ্রিল, ২০২২, ১২:০০ এএম

মুসলিম বিশ্বের নীরবতার কারণেই ইসরাইলি সন্ত্রাসী বাহিনী দিন দিন বেপরোয়া হয়ে নিরীহ ফিলিস্তিনি মুসল্লিদের ওপর অন্যায় ভাবে হামলা চালাচ্ছে। রমজান মাসের পবিত্রতাকে নষ্ট করেছে ইহুদি বাহিনী। ফিলিস্তিনি রোজাদার মুসলমানের ওপর ইহুদি বাহিনীর বর্বরোচিত হামলার প্রতিবাদে মুসলিম বিশ্বকে জেগে উঠতে হবে। আল-আকসায় ফিলিস্তিন মুসল্লিদের ওপর ইসরাইলি বাহিনীর বর্বরোচিত হামলার প্রতিবাদে গতকাল বিভিন্ন ইসলামী দলের নেতৃবৃন্দ পৃথক পৃথক বিবৃতি ও ইফতার মাহফিলে এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন ঃ অধিকৃত জেরুজালেমের আল আকসা মসজিদে ইসরাইলি পুলিশের হামলায় দেড় শতাধিক ফিলিস্তিনি মুসলিম আহত এবং চলতি রমজানেই ১৪ জন মুসলিম হত্যার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন প্রধান আমীরে শরীয়ত আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী। তিনি বলেন, ফিলিস্তিন, ভারতসহ দেশে দেশে মুসলমানদের উপর নির্বিচারে জুলুম চলছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসলিম নিপীড়নের খবর মিডিয়ায় প্রচার হলেও মানবতার দাবিদার শান্তিকামি বিশ্ব নেতৃবৃন্দ বরাবরই নিরব ভূমিকা পালন করছে। গতকাল শনিবার রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর জামিয়া নূরিয়া ইসলামিয়া মিলনায়তনে বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের উদ্যোগে আয়োজিত ইফতার মাহফিলে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। মুসলমানদের অধিকার রক্ষায় বিশ্ব মুসলিম নেতৃবৃন্দকে এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি।

এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, দলের মহাসচিব মাওলানা হাবিবুল্লাহ মিয়াজি, নায়েবে আমীর ও ঢাকা মহানগর আমীর মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা সানাউল্লাহ হাফেজ্জী, মাওলানা ফিরোজ আশরাফী, মুফতি সুলতান মহিউদ্দিন, খেলাফত আন্দোলন নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার আমির আলহাজ আতিকুর রহমান নান্নুমুন্সি, মাওলানা সাইফুল ইসলাম সুনামগঞ্জী ,মাওলানা সাজেদুর রহমান ফয়জী, হাজী জালালুদ্দিন বকুল, মাওলানা আব্দুল্লাহ ইয়াহইয়া।

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ ঃ জেরুজালেমে অবস্থিত মুসলমানদের পবিত্র স্থান মসজিদে আল আকসায় ফিলিস্তিনি রোজাদার মুসল্লিদের উপর ইসরাইলি বাহিনীর সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব শায়খুল হাদিস হাফেজ মাওলানা ড. গোলাম মহিউদ্দিন ইকরাম।

গতকাল শনিবার এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, মুসলিম বিশ্বের নীরবতার কারণেই ইসরাইলি সন্ত্রাসী বাহিনী দিন দিন বেপরোয়া হয়ে নিরীহ মুসল্লিদের ওপর অন্যায় ভাবে হামলা চালাচ্ছে। রমজান মাসের পবিত্রতাকে নষ্ট করেছে। ফিলিস্তিনি রোজাদার মুসলমানের ওপর ইহুদি বাহিনীর বর্বরোচিত হামলার প্রতিবাদে মুসলিম বিশ্বকে জেগে উঠতে হবে।
ইসলামী ঐক্যজোট ঃ ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুর রকিব অ্যাডভোকেট ও মহাসচিব অধ্যাপক মাওলানা আব্দুল করিম এক বিবৃতিতে আল আকসায় রোজাদার মুসল্লিদের ওপর ইসরাইলি বাহিনীর বর্বরোচিত হামলার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়ে বলেন, জাতিসংঘ, ওআইসিসহ সকল মানবাধিকার সংগঠনকে ইসরাইলি বাহিনীর বর্বরতা বন্ধের কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। রোজাদার নিরস্ত্র মুসল্লিদের ওপর নগ্ন হামলার ঘটনায় মুসলিম উম্মাহর হৃদয়ে রক্তক্ষরণ শুরু হয়েছে।

বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস ঃ আল-আকসা মসজিদে মুসল্লিদের ওপর ইসরাইলি সেনাদের হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের আমীর শায়খুল হাদীস আল্লামা ইসমাঈল নূরপুরী ও ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মাওলানা জালালুদ্দীন আহমদ এক বিবৃতিতে বলেছেন, রমজান মাসে মুসল্লিদের ওপর হামলা চালিয়ে অনেক মুসল্লিকে আহত করা হয়েছে যা অত্যন্ত অমানবিক ও জঘন্যতম মানবাধিকার লঙ্ঘন।
নেতৃদ্বয় বিবৃতিতে আরও বলেন, ফিলিস্তিনের ভূখণ্ডে ইসরাইলি বাহিনীর সহিংসতা শোচনীয়ভাবে বেড়েই চলেছে, যা অত্যন্ত দুঃখজনক। নিরীহ ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরাইলের হামলা বন্ধে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে উদ্যোগ নেয়ার আহ্বান জানান তারা।

জাতীয় ইমাম পরিষদ বাংলাদেশ ঃ শুক্রবার পবিত্র আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণে ইসরায়েলি পুলিশের হামলায় ১৫০ জনেরও বেশি ফিলিস্তিনি মুসলমান আহত হওয়ার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন জাতীয় ইমাম পরিষদ বাংলাদেশের নেতৃবৃন্দ। এক যুক্ত বিবৃতিতে জাতীয় ইমাম পরিষদ বাংলাদেশের সভাপতি মুফতি আব্দুল্লাহ ইয়াহইয়া ও সেক্রেটারী জেনারেল মুফতি আ ফ ম আকরাম হুসাইন বলেন, ইসরাইল ন্যাক্কারজনকভাবে ফিলিস্তিনের রোজাদার ও নামাজরত মুসল্লিদের ওপর বর্বর ও নিষ্ঠুর হামলার ঘটনায় শুধু ফিলিস্তিন নয়; গোটা পৃথিবীর মুসলমানরা আহত হয়েছে। তাদের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ শুরু হয়েছে। গত বছর রমজান মাসেও তারা আল আকসার নিরস্ত্র-নিরীহ মুসল্লিদের ওপর হামলা চালিয়েছিল। ইসরাইলি এসব সন্ত্রাসবাদ দমনে বিশ্ব সম্প্রদায়কে স্থায়ী পদক্ষেপ নেয়া জরুরি হয়ে পড়েছে। তারা ইসরাইলি বর্বরোচিত হামলার নিন্দা জানানোর জন্য প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

সম্মিলিত ইসলামী ঐক্যজোট ঃ সম্মিলিত ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আবু জাফর কাসেমী ও মহাসচিব অ্যাডভোকেট খায়রুল আহসান এক যৌথ বিবৃতিতে মসজিদুল আকসায় ইসরাইলের পুলিশের অবৈধ অভিযানের তীব্র নিন্দা ও ধিক্কার জানান। নেতৃবৃন্দ বলেন, ইসরাইলের এহেন অবৈধ মারাত্মক হামলার বিষয়ে বিশ্ব নেতৃবৃন্দ নিরব ভূমিকা পালন করছে। নেতৃদ্বয় আরো বলেন, আজ সময় এসেছে সারাবিশ্বের মুসলমানদের জেগে উঠার। তারা জাতিসংঘ ও বিশেষ করে পশ্চিমা বিশ্বের প্রতি ইসরাইলকে ফিলিস্তিনের উপর হামলা বন্ধ করতে চাপ সৃষ্টি করার এবং ফিলিস্তিনকে স্বাধীন করে দেয়ার আহবান জানান।
আন্তর্জাতিক মজলিসে তাহাফফুজে খতমে নবুওয়ত বাংলাদেশ ঃ আন্তর্জাতিক মজলিসে তাহাফফুজে খতমে নবুওয়াত বাংলাদেশের মহাসচিব আল্লামা মুহিউদ্দিন রাব্বানী এক বিবৃতিতে বলেন, পবিত্র আল-আকসা মসজিদে মুসল্লিদের ওপর বর্বর হামলা চালিয়েছে ইসরাইলী পুলিশ। সহিংস এ হামলায় আহত হয়েছেন অন্তত ২০০ ফিলিস্তিনি। আল-আকসা মসজিদে মুসল্লিদের ওপর ইসরাইলী বাহিনীর বর্বর হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। তিনি বলেন, এই হামলার মাধ্যমে ইসরাইল বিশ্বের কোটি কোটি মুসলমানের অনুভূতিতে চরম আঘাত দিয়েছে। এটি মানবাধিকারের ভয়াবহ লঙ্ঘন। ইসরাইলের অব্যাহত আগ্রাসন অবসানের জন্য আমরা দ্রুত আন্তর্জাতিক সম্পদ্রায়কে পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।
বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টি ঃ মুসলমানদের পবিত্র মসজিদ বায়তুল মোকাদ্দাসে রোজাদার মুসলমানদের ওপর ইসরাইলের বর্বর ও সন্ত্রাসী হামলার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানান বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টির নির্বাহী সভাপতি ও জাতীয় সংহতি মঞ্চের প্রধান সমন্বয়কারী মাওলানা একে এম আশরাফুল হক। এক বিবৃতিতে তিনি আরো বলেন, জাতিসংঘ, আমেরিকা ও পশ্চিমারা সমগ্র বিশ্বে কথিত সন্ত্রাস দমন ও মানবাধিকার লঙ্ঘন প্রতিরোধের নেতৃত্ব দিয়ে থাকে। অথচ ফিলিস্তিনে মুসলমানদের ওপর, মুসলমানদের বিশেষ পবিত্রস্থান বায়তুল মোকাদ্দাসের ইহুদিদের বর্বর ও সন্ত্রাসী হামলা ও ভারতে মুসলিম নিধন তাদের চোখে পড়ে না। বিশ্ব শক্তির ওই দ্বিচারিতার কারণে সমগ্র বিশ্বে আজ মুসলমানদের অন্যায়-অথ্যাচার ও জুলুম-নির্যাতন চলছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
মোঃ শহীদুল ইসলাম ১৭ এপ্রিল, ২০২২, ৪:৪৭ এএম says : 0
ফিলিস্তিনের ভূমি দখল করে ইসরাইলের সৃষ্টি হওয়ার পর থেকেই, নিরিহ ফিলিস্তিন বাসীদের উপর ইসরাইলিদের এই ভয়াবহ বর্বরতা দেখেও অন্যান্য মুসলিম দেশ হাত গুটিয়ে বসে থাকার কারণেই পৃথিবীর অন্যান্য দেশেও মুসলিম নির্যাতন শুরু হয়েছে। কার্যত সারা বিশ্বেই এখন নির্বিচারে মুসলিম নির্যাতন এবং হত্যা চলমান। মনে হয় যেন মুসলিমদের জন্য গোটা পৃথিবীটাই ফিলিস্তিন এর মতো একটি কারাগার হয়ে যাবে।
Total Reply(0)
সোলায়মান ১৭ এপ্রিল, ২০২২, ৭:৫৫ এএম says : 0
জেগে উঠার কোন বিকল্প নেই
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps