বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯, ০৬ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ভালোবেসে বিয়ের ৪ দিন পর লাশ উদ্ধার

যশোর ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ২২ এপ্রিল, ২০২২, ১২:২৭ এএম

মোবাইলে আব্দুল্লাহর সঙ্গে প্রেম হয় বিথীর। চলে তিন মাস। এরপর প্রেমিকের টানে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে আব্দুল্লাহর বাড়িতে চলে যান বিথী। সেখানেই বিয়ে হয় দুইজনের। আর বিয়ের চারদিনের মাথায় স্বামীর বাড়ি থেকে বিথী আক্তার (১৯) এর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার দোহাকূলা ইউনিয়নের বালিয়াডাঙ্গা গ্রামে গত বুধবার রাতে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য যশোর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।
নিহত বিথী যশোর সদরের বাহাদুরপুর গ্রামের বিল্লাল হোসেনের মেয়ে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আব্দুল্লাহর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল বিথীর। ১৫ এপ্রিল বিথী পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠান দেখার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়ে আব্দুল্লাহর বাড়িতে ওঠেন। সেখানে আব্দুল্লাহর পরিবারের উপস্থিতিতে তাদের বিয়ে হয়। পরে বিয়ের বিষয়টি তার পরিবারকে জানান বিথী। রাতে সেহরি খাওয়ার সময় উঠে আব্দুল্লাহ স্ত্রীকে বিছানায় দেখতে না পেয়ে খুঁজতে শুরু করেন। পরে পাশের ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পায় পরিবারের সদস্যরা।
নববধূর চাচা বাবু অভিযোগ করে বলেন, ‘বিথীকে হত্যার পর মরদেহ ঝুলিয়ে রেখেছে তার স্বামীর পরিবারের লোকজন। বিথীর মরদেহ খেলে স্পষ্ট সেটা বোঝা যাচ্ছে। গলায় ফাঁস দিলে দাগ থাকবে, তার কোনো প্রমাণ নেই।’ এ ঘটনায় হত্যা মামলা করা হবে বলেও জানান তিনি।
বাঘারপাড়া থানা ওসি ফিরোজ উদ্দীন জানিয়েছেন, ‘ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি যশোর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পেলে হত্যা নাকি আত্মহত্যা সেটি জানা যাবে। এ ঘটনায় আপাতত অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড হয়েছে।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps