বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ০৭ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

মঠবাড়িয়ায় বেড়িবাঁধ নির্মানে সংঘর্ষে ৩ চীনা নাগরিকসহ আহত ৯ আটক ৩

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১ মে, ২০২২, ৫:৫৬ পিএম

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার বাদুরা গ্রামে রোববার সকালে বেড়িবাঁধ নির্মানকে কেন্দ্র করে স্থানীয়দের সাথে সংঘর্ষে ৩ চীনা নাগরিকসহ ৯ জন আহত হয়েছে। আহতরা হলো চায়না নাগরিক প্রজেক্টের ম্যানেজার মি. মাজিমাও (৩১), সুপারভাইজার মি. চ্যাং ডিউ (২৭) ও সুপারভাইজার মি. লেই বো (৩৬), বাংলাদেশী মো. জিল্লুর রহমান (২৬), মো. ইলিয়াস (৩৪), নিজাম শিকদার (৪০), মানিক (৩২), বাহাদুর উকিল (৬০) ও জাকারিয়া খান (৩০)। এদের মধ্যে মারাত্মক আহত জাকারিয়া খান বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে এবং বাহাদুর উকিলকে ভান্ডারিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদের ভান্ডারিয়া হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। আহত চায়না নাগরিকরা প্রোজেক্টে কর্মরত শ্রমিক বলে জানা গেছে। হামলার ঘটনায় ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ।
জানাযায়, নির্মান প্রকল্পের জন্য জমি অধিগ্রহণে জটিলতা ও এলাকার চাহিদাকে প্রাধান্য না দিয়ে বেড়িবাধ নির্মান করায় এলাকাবাসী ক্ষুব্দ হয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পরে। এলাকায় বর্তমানে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঊর্মি ভৌমিক ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন।
ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. কামাল হোসেন মুফতি জানান, আহত অবস্থায় ভান্ডারিয়া হাসপাতালে ৩ জন চায়না নাগরিক ও ৬ জন বাঙ্গালি জরুরি বিভাগে চিকিৎসা নিয়েছে। আহতদের মধ্যে ২ জন চায়না নাগরিকের হাতে ও পায়ে এবং ১ জনের মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছে। মো. বাহাদুর উকিল নামে একজন বাঙ্গালী হাসপাতালে ভর্তি আছেন।
মঠবাড়িয়া থানার ওসি নুরুল ইসলাম বাদল জানান, বেড়িবাধ নির্মানের জন্য রবিবার সকালে ভেপু মেশিন দিয়ে মাটি কাটতে গেলে এলাকাবাসী তাতে বাঁধা দেয়। এ সময় চায়না প্রোজেক্টের শ্রমিকদের সাথে স্থানীয় লোকজনের সংঘর্ষ হয়। এতে ৩ জন চায়না নাগরিক ও ৬ জন বাঙ্গালী শ্রমিক আহত হয়েছে। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। হামলার বিষয়ে থানায় মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps