মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১৪ আষাঢ় ১৪২৯, ২৭ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ইউক্রেনের সাথে লড়াইটা আসলে নেটোর সাথেও, বলছে রাশিয়া

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ মে, ২০২২, ৩:৫৫ পিএম | আপডেট : ৩:৫৭ পিএম, ৭ মে, ২০২২

সামনেই রাশিয়ার বিজয় দিবস। প্রতি বছর ৯ মে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়নের বিজয়োৎসব পালন করে মস্কো। কিন্তু এ বারে দিনটিকে নিয়ে নানা আশঙ্কা, আতঙ্ক ও জল্পনা বাসা বাঁধছে।

গত দু’মাস ধরে চলা রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধকে মস্কো বলে এসেছে ‘বিশেষ সেনা অভিযান’। কূটনীতিকদের আশঙ্কা, ওই দিন আসল যুদ্ধ ঘোষণা করবে মস্কো। আর তার মহড়া চলছে পুরোদমে। ভীত নই বার্তা দিতে ৯ মে-তেই কিয়েভে জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শোলৎজকে আমন্ত্রণ জানালেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। বললেন, শোলৎজের কিভে আসা হবে ‘জোরদার পদক্ষেপ’।

জার্মানি-ইউক্রেন সম্পর্ক সরল রেখায় বইছে, এমন নয়। বরং তাদের বিরোধিতার জন্যই ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)-এ স্থান হয়নি ইউক্রেনের। সে নিয়ে এক সময় প্রকাশ্যে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন জেলেনস্কি। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে নরমে-গরমে সম্পর্ক ঠিক করায় জোর দিয়েছেন তিনি। জার্মানিও অস্ত্র সরবরাহ করছে ইউক্রেনকে।

সম্প্রতি জার্মান প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ক্রিস্টিন ল্যামবার্ক্ট জানিয়েছেন, ৭টি দূরপাল্লার শক্তিশালী অভিঘাত করতে সক্ষম অস্ত্র পাঠাবেন তারা। জার্মানিতে ইউক্রেনীয় বাহিনীকে প্রশিক্ষণও দেওয়া হবে। আমেরিকা শুরু থেকেই সাহায্য করে চলেছে। অস্ত্র ও যুদ্ধকৌশল রচনায় সহযোগিতা করে যাচ্ছে তারা। শুক্রবার এক আমেরিকান সরকারি কর্তা দাবি করেছেন, তারাই কৃষ্ণসাগরে রুশ যুদ্ধজাহাজ মস্কোভার অবস্থান জানিয়ে সতর্ক করছিল ইউক্রেনকে। তবে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার সিদ্ধান্ত সম্পূর্ণ কিয়েভেরই ছিল। ওয়াশিংটন শুক্রবার নিজেরা জানালেও মস্কো গোড়াতেই বলেছিল, ‘‘আমরা আসলে নেটোর বিরুদ্ধে লড়ছি। ইউক্রেনের পক্ষে এত কিছু করা অসম্ভব।’’

রাশিয়ার বিরুদ্ধে বর্তমানে এক হকে পারছে না ইউরোপ-আমেরিকা। জ্বালানি প্রসঙ্গে এখনও নড়বড় অবস্থা। এ বছরের মধ্যে রাশিয়ার উপরে জ্বালানি নির্ভরতা বন্ধ করার প্রস্তাব দিয়েছে ইইউ। জার্মানি রাজি নয়। হাঙ্গেরি জানিয়েছে, তাদের পক্ষে রাশিয়া থেকে জ্বালানি আমদানি বন্ধ করা সম্ভব নয়। এ নিয়ে নিয়মিত বৈঠক চলছে। রবিবার জি-৭-এর সদস্য দেশগুলি জেলেনস্কির সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে বসবে। সূত্র: এপি, রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps