শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯, ০১ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুট: ঈদ শেষে কর্মস্থল মুখো মানুষের ঢল

লৌহজং (মুন্সীগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৭ মে, ২০২২, ৪:১১ পিএম

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে পরিবারের সাথে ঈদ শেষে কর্মজীবী মানুষ কর্মস্থলে ফিরছে। আজ শনিবার (০৭ মে) সকাল থেকে ঢাকামুখী মানুষের চাপ লক্ষ্য করা গেছে। দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ মাদারীপুরের বাংলাবাজার ও শরীয়তপুরের মাঝিরকান্দি ঘাট থেকে পদ্মা পারি দিয়ে রাজধানী ঢাকা ফিরতে মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে মানুষের ঢল নেমেছে৷ এদিকে শিমুলিয় থেকে দক্ষিণবঙ্গমুখী যাত্রীদের কিছুটা চাপ দেখা গেছে।

শিমুলিয়া ঘাটে ব্যবস্থাপনা ভালো থাকায় ফেরি থেকে নেমেই যানজটহীন রাজধানী ফিরতে পারছেন। তাই শিমুলিয়া ঘাটে তেমন কোন যানজট নেই। অনেকটা বিড়ম্বনাহীন ঘাট পার হচ্ছে মানুষ।

বিআইডব্লিউটিএ বলছে, গত ২৪ ঘন্টায় প্রায় ৭৫ হাজার মানুষ পদ্মা পার হয়েছে। শনিবার সকাল থেকে ১০ ফেরিতে যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। তবে রাতে ৭ ফেরি চলাচল করায় ফেরি স্বল্পতায় অনেক যানবাহনকে দীর্ঘ অপেক্ষায় থাকতে হচ্ছে। এই ঘাটে শুধু হালকা যান, অ্যাম্বুলেন্স ও পচনশীল পণ্যের যান পারাপার করা হচ্ছে।
অপরদিকে ১৫৫টি স্পিডবোট ও ৮৫টি লঞ্চ দিয়ে যাত্রী পারাপার করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহণ কর্তৃপক্ষের শিমুলিয়া ঘাটের বন্দর কর্মকর্তা।
বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) ফয়সাল আহমেদ বলেন, ১০ টি ফেরিতে যান পারাপার করা হচ্ছে। শিমুলিয়া ঘাটে যাত্রী এবং যানবাহনের চাপ কম। ঘাট এলাকায় অর্ধশতাধিকের মতো গাড়ি রয়েছে পারাপারের অপেক্ষায়, যার বেশিরভাগই পিকআপ। বাংলাবাজার থেকে যেসব ফেরি আসছে, প্রতিটি ফেরিতে যানবাহনের সঙ্গে যাত্রীদের বহন করতে হচ্ছে। আগামীকাল অফিস-আদালত চালু থাকায় শিমুলিয়া ঘাট এলাকায় ঢাকামুখী বাড়তি যাত্রী ও যানবাহনের চাপ সৃষ্টি হয়েছে।
বিআইডব্লিউটিএ শিমুলিয়া বন্দর কর্মকর্তা শাহাদাত হোসেন বলেন, লঞ্চঘাট এলাকায় যাত্রীদের বাড়তি চাপ রয়েছে। বাংলাবাজার থেকে যেসব লঞ্চ আসছে, প্রতিটি লঞ্চে যাত্রীতে কানায় কানায় পরিপূর্ণ। আগামীকাল অফিস খোলা। তারা পদ্মা লঞ্চে পাড়ি দিয়ে বাসে করে ঢাকায় যাচ্ছে। আজ সকাল থেকে যে যাত্রীর চাপ পড়েছে, মনে হচ্ছে আরও বেশি যাত্রী পারাপার হবে। ১৫৫টি স্পিডবোট ও ৮৫টি লঞ্চ দিয়ে যাত্রী পারাপার করা হচ্ছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps