রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

কুষ্টিয়ায় বড় ভাইকে হত্যার দায়ে ছোট ভাইয়ের যাবজ্জীবন

কুষ্টিয়া থেকে স্টাফ রিপোর্টার, | প্রকাশের সময় : ১২ মে, ২০২২, ৬:৩৬ পিএম

কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় আপন বড় ভাইকে হত্যার দায়ে মামুন সরকার (৫০) নামে এক ছোট ভাইকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সেই সঙ্গে তাকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) দুপুরের দিকে কুষ্টিয়া অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. তাজুল ইসলাম এ রায় দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) অনুপ কুমার নন্দী।
যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত মামুন সরদার কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ইবি থানার আব্দালপুর ইউনিয়নের পিয়ারপুর গ্রামের বদর উদ্দিনের ছেলে।
রায় ঘোষণার সময় কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি মামুন আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায় ঘোষণার পরপরই পুলিশ পাহারায় জেলা কারাগারে পাঠানো হয় তাকে।
মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৬ সালের ১ জুনসকাল ১০টার দিকে কুষ্টিয়া সদর উপজেলার আব্দালপুর ইউনিয়নের পিয়ারপুর গ্রামে আসাদুল সরদারের স্ত্রী সাথীর সাথে আসামি মামুন সরদারের স্ত্রী সাফিয়া খাতুনের পারিবারিক কলহের জেরে ঝগড়া হয়। এসময় আসাদুল মাঠে ছিল। মাঠে থেকে বাড়ি এসে ঝগড়ার কথা শুনে। দুপুর আড়াইটার দিকে স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে আসাদুল তার ছোট ভাই মামুন সরদারের বাড়িতে যায়। এসময় মামুন সরদার হাসুয়া দিয়ে বড় ভাই আসাদুলকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। স্থানীয়রা দ্রুত তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সেখানে তার মৃত্যু হয়।
এ ঘটনায় নিহত আসাদুলের স্ত্রী সাথী খাতুন বাদী হয়ে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
আসামি মামুনের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাটি তদন্ত শেষে তার বিরুদ্ধে ২০১৬ সালের ৩০ নভেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা এসএম কাফরুজ্জামান ও শরীফ মনজুর।
১৫ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে ১২ মে রায় ঘোষণার দিন ধার্য করেন আদালত। অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় আসামিকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আদালতে দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করা হয়।
আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) অনুপ কুমার নন্দী বলেন, হত্যা মামলায় দোষী প্রমাণিত হওয়ায় আসামি মামুনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। তাকে রায় ঘোষণার পরপরই পুলিশ পাহারায় জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps