শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, ০৪ ভাদ্র ১৪২৯, ২০ মুহাররম ১৪৪৪

সারা বাংলার খবর

নেছারাবাদে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হতে না পেরে প্রধান শিক্ষককে হুমকির অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৪ মে, ২০২২, ৪:৩৪ পিএম

পিরোজপুরের নেছারাবাদ উপজেলায় জলাবাড়ী ইউনিয়নের উত্তর পূর্ব আরামকাঠি ১২২নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সভাপতি শ্যামল মিত্র এর বিরুদ্ধে প্রধান শিক্ষক বিজয় মিস্ত্রীকে হুমকি প্রদান করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিদ্যালয়ের সদ্য ম্যানেজিং কমিটিতে তাকে পূনরায় সভাপতি হিসিবে নির্বাচিত না করায় তিনি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিজয় মিস্ত্রীকে দেখিয়ে দেয়ার হুমকি দিয়েছন। শনিবার সকালে বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের কক্ষে এ হুমকির ঘটনা ঘটে। তবে অভিযোগ অস্বীকার করে অভিযুক্ত শ্যামল মিত্র বলেন, আমি বিদ্যালয়ের রানিং কমিটির সভাপতি। আমাকে না জানিয়ে কমিটি করায় সবার সম্মুখে বিদ্যালয় গিয়ে প্রধান শিক্ষকের কাছে জানতে চেয়ে ছিলাম মাত্র।

প্রধান শিক্ষক বিজয় মিস্ত্রী অভিযোগ করেন, শ্যামল মিত্র তার বিদ্যালয়ের আগের কমিটির সভাপতি। কমিটির মেয়াদ শেষ হওয়ায় নতুন করে নিয়মনুযায়ি কমিটি গঠন হয়েছে। সেই কমিটিতে তাকে সভাপতি পদে রাখা হয়নি। এজন্য তিনি আমার উপর খেপে গিয়ে শনিবার বিদ্যালয়ে এসে তিনি আমাকে হুমকি দেন। হুমকি দিয়ে তিনি বলেন, কোন নিয়মে কমটি করেছেন। আমাকে সভাপতি করা হয়নি কেন। দেখব কিভাবে স্কুল চলে। এই বলে উত্তেজিত হয়ে তিনি চলে যান। বিষয়টি নিয়ে আমার খুব চিন্তা হচ্ছে বলেন জানান প্রধান শিক্ষক বিজয় মিস্ত্রী।

অভিযোগ অস্বীকার করে অভিযুক্ত শ্যামল মিত্র বলেন, কোন রেজুলেশন ছাড়া কিভাবে কমিটি হয়। আমি রানিং কমিটির সভাপতি। আমাকে না জানিয়ে কিভাবে কমিটি হল বিষয়টি নিয়ে বোঝার জন্য বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের কাছে জানতে চেয়েছিলাম।

বিদ্যলয়ের সহকারি শিক্ষক শামসুন্নাহার বলেন, আমি ক্লাস নিচ্ছিলাম। এমন দেখেছি সাবেক সভাপতি শ্যামল মিত্র সহ কয়েকজন লোক প্রধান শিক্ষকের রুমে প্রবেশ করেছে। তবে তাদের মধ্য কি কথা হয়েছে তা বলতে পারবোনা।

স্থানীয় লতিফ আকন নামে একজন জানান, শ্যামল মিত্র পূর্বে সভাপতি থাকাকালে ভালভাবে বিদ্যালয় চালায়নি। ঠিকমত সভায় যোগদান করতনা। ইচ্ছেমত যা খুশি তাই করত। তাই তালে সভাপতি করা হয়নি। এজন্য তিনি ক্ষেপে গিয়ে প্রধান শিক্ষকের কক্ষে এসে দেখে নেয়ার হুমকি দিয়েছেন।

স্থানীয় একাধিক ব্যাক্তির অভিযোগ শ্যামল মিত্র এতদিন গায়ের জোরে সভাপতি ছিল। তিনি জমি দাতা সদস্যদের হুমকির উপরে রাখতেন। এখন নিয়ম অনুযায়ি কমিটি হয়েছে।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন