শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯, ০১ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

সরকারি টাকায় অন্তর্বাস!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ মে, ২০২২, ১২:০০ এএম

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁর দলের এক নেত্রীর তহবিলের খরচ পর্যবেক্ষণ করার সময় দেখা যায়, প্রায় ৭ হাজার ইউরো দিয়ে (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৬ লাখ ৩৯ হাজার ৫৭৬ টাকা) দামি জামাকাপড় ও অন্তর্বাস কিনে খরচ করেছেন।
আর এ কাজটি করেছেন পেশায় আইনজীবী ও ম্যাখোঁর দলের সদস্য ক্যারোলি ডাবস্ট। ২০১৬ সালে ম্যাখোঁ দল গঠন করার পর তিনি এলআরইএম দলে যোগ দেন। ২০১৭ সালে দক্ষিণ ফ্রান্সের মন্টপেলিওর থেকে পার্লামেন্টের সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন ক্যারোলি।

সেই বছরেই ম্যাখোঁ তহবিলের অর্থ খরচ করার ক্ষেত্রে আরও কঠোর নিয়ম জারি করেন। পার্লামেন্টের যেসব সদস্যের বেতন ৮৬ হাজার ইউরো (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৭৮ লাখ ৫৭ হাজার ৬৪৮ টাকা), তাদের খরচের রসিদ খতিয়ে দেখতে বলা হয় নিরীক্ষা বিভাগকে।
পার্লামেন্টের সদস্যদের খরচ নিয়ে তদন্তে উঠে আসে তহবিলে সঞ্চিত বিশাল পরিমাণ অর্থ ব্যক্তিগত শখ-শৌখিনতার পিছনে তারা খরচ করেন। ২০০৯ সাল থেকেই এ রকম নানা তথ্য প্রকাশ পেতে থাকে। ফ্রান্সের ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলি অডিট এজেন্সির কর্মকর্তারা গত বছর থেকেই ক্যারোলিকে নিয়ে তদন্ত শুরু করেন। এতদিন এই তথ্যগুলো গোপন রেখেছিলেন তারা।

কিন্তু দ্বিতীয় বার দল পুনর্গঠনের সময় ম্যাখোঁ আবার খতিয়ে দেখতে বলেছিলেন। তখনই তথ্যসহ সমস্ত প্রমাণ প্রকাশ্যে আসে। ২০১৮ সাল থেকেই ক্যারোলি ফ্রান্সের নামী ব্র্যান্ডের জামা ছাড়াও ৪২০ ইউরোর (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৩৩ হাজার ৩৭৫ টাকা) অন্তর্বাস পর্যন্ত কেনেন। টানা তিন মাস তহবিলের টাকা খরচ করেই কেনাকাটা করেন ক্যারোলি।

ক্যারোলি প্রথমে এই অভিযোগ অস্বীকার করলেও সংবাদমাধ্যমে তার কীর্তি প্রকাশ্যে আসায় তিনি নিজে থেকেই দলত্যাগ করেন। ক্যারোলির দাবি, ‘আমি কাউকে ঠকাইনি। সংসদ সদস্য হিসেবে আমাকে যে ধরনের জামা পরতে হত, ব্যক্তিগত জীবনে আমি কখনোই সেগুলো পরতাম না।’
তিনি জানান, ‘আমি রাজনৈতিক জীবন থেকে নিজেকে সম্পূর্ণ ভাবে সরিয়ে নিলাম। এখন নিজের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সুন্দর সময় কাটাতে পারব।’ সূত্র : ডেইলি মেইল, দ্য সিডনি মনিং হেরাল্ড।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
Md Foysal ১৮ মে, ২০২২, ১০:৫৬ এএম says : 0
বিদেশের আইন কত সুন্দর । তাদের পুলিশ প্রশাসন ও কত সুন্দর যে প্রধান মন্ত্রীর বিরুদ্ধেও তদন্ত করে ? আর কিছু বলবোনা তাহলে চাকরি থাকবে না ।
Total Reply(0)
Ahammed Shamim ১৮ মে, ২০২২, ১০:৫৬ এএম says : 0
আমাদের দেশের অনেক মন্ত্রীর পি এস এর সকালের নাস্তায় খরচ হয় এই টাকা।কেননা এখানে চার হাজার কোটি টাকা কিছুই না।
Total Reply(0)
Jonayet Alom ১৮ মে, ২০২২, ১০:৫৭ এএম says : 0
আমাদের দেশের সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীদের বিদেশে ভ্রমণ খরচ ও এর থেকে কয়েক গুণ বেশি। আলহামদুলিল্লাহ আমাদের দেশ কত এগিয়ে গেছে।
Total Reply(0)
MD Sabbeir Mollah ১৮ মে, ২০২২, ১০:৫৭ এএম says : 0
এই সব নিউজ আমাদের দেশের ক্ষমতা অপব্যবহার করা রাজনৈতিক নেতাদের এবং সরকারি কর্মকর্তাদের চোখে পরে না। নাকি তাদের চোখে লজ্জা সরম নাই।
Total Reply(0)
Pijus Saha ১৮ মে, ২০২২, ১১:০৫ এএম says : 0
All is right. It is impossible for some countries.
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps