বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯, ০৬ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

অপরাধ খুঁজে পায়নি যুক্তরাষ্ট্র

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ মে, ২০২২, ১২:০৩ এএম

২০১৯ সালে সিরিয়ায় চালানো এক মার্কিন হামলায় নিহত হন বেশ কয়েকজন বেসামরিক নাগরিক। এ নিয়ে চলা এক তদন্তের শেষে যুক্তরাষ্ট্র জানিয়েছে, ওই হামলার মধ্য দিয়ে কোনো ‘অপরাধ’ করেনি মার্কিন বাহিনী। এছাড়া, ওই হামলা মার্কিন নীতি অনুসরণ করেই চালানো হয়েছিল বলে রিপোর্টে জানানো হয়েছে। মঙ্গলবার পেন্টাগনের তরফ থেকে ওই হামলার পক্ষে এমন বিবৃতি পাওয়া গেলো। ২০১৯ সালের ১৮ই মার্চ ওই হামলাটি চালানো হয়। মার্কিন গণমাধ্যম নিউ ইয়র্ক টাইমস তদন্তের পর জানায়, ওই হামলায় অন্তত ৭০ বেসামরিক নিহত হয়েছেন। এরমধ্যে আছে বহু নারী ও শিশুও। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র জানিয়েছে, তারা ইসলামিক স্টেটের অবস্থান লক্ষ্য করে ওই হামলা চালায়। সেখানে বেসামরিক আছেন তা তারা জানতেন না। গত বছর নিউ ইয়র্ক টাইমসের রিপোর্ট প্রকাশিত হওয়ার পর তদন্ত চালু করে পেন্টাগন। কিন্তু তদন্তে মার্কিন বাহিনীর যুদ্ধাপরাধের কোনো প্রমাণ তারা পায়নি। মঙ্গলবারের রিপোর্টে বলা হয়, ঘটনার দিন সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্স (এসডিএফ) মার্কিন বাহিনীর কাছে আকাশ থেকে হামলা চালানোর অনুরোধ জানায়। সেসময় এসডিএফ আইএসের বিরুদ্ধে লড়ছিল। তাদের অনুরোধ পাওয়ার পর মার্কিন কমান্ডার জানতে চান, ওই অবস্থানে বেসামরিক কেউ অবস্থান করছে কিনা। তাদেরকে আশ্বস্ত করা হয় যে, সেখানে শুধু আইএস জিহাদিরাই রয়েছে। এরপরই হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্র। যদিও হামলার পর দেখা যায় সেখানে বেসামরিক নাগরিকরা ছিলেন। কিন্তু এতে যুদ্ধাপরাধ হয়নি বলে দাবি করেছে পেন্টাগন। নিউ ইয়র্ক টাইমস ৭০ বেসামরিক নিহতের কথা বললেও মার্কিন রিপোর্টে জানা গেছে এতে ৫৩ জঙ্গি নিহত হয়। এরমধ্যে এক শিশু রয়েছে। এছাড়া আরও ৪ বেসামরিক মারা গেছে ওই হামলায়। এরমধ্যে এক নারী ও তিন শিশু রয়েছে। আরও ১৫ বেসামরিক ওই হামলায় আহত হয়েছেন। তার মধ্যে ১১ নারী এবং ৪ শিশু রয়েছে। পেন্টাগনকে প্রশ্ন করা হয়, এই বেসামরিকদের হত্যা ও আহত করার জন্য কাউকে অভিযুক্ত করা হয়েছে কিনা। উত্তরে জানানো হয়, নির্দিষ্ট কাউকে অভিযুক্ত করা হয়নি তদন্তে। কারণ, কেউই আইনের বাইরে থেকে কোনো পদক্ষেপ নিয়েছে বলে বিশ্বাস করে না যুক্তরাষ্ট্র। আল-অ্যারাবিয়া।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps