শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১ আষাঢ় ১৪২৯, ২৪ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

গাজীপুর জেলা আ.লীগের নেতৃত্বে ফের মোজাম্মেল-সবুজ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ মে, ২০২২, ১০:৫১ পিএম

সম্মেলনের মাধ্যমে গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে গাজীপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন সবুজের নাম ঘোষণা করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (১৯ মে) দিনব্যাপী জেলার রাজবাড়ী মাঠে জাঁকজমকপূর্ণভাবে গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক নতুন এই কমিটি ঘোষণা করেন। নতুন কমিটির সভাপতি- সাধারণ সম্পাদক আগেও কমিটিতে একই পদে ছিলেন। গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আ.ক.ম মোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন সবুজের সঞ্চালনায় এতে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের

প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম। আরও বক্তব্য দেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ হাসান রাসেল, মেহের আফরোজ চুমকি, সিমিন হোসেন রিমি, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির শিল্প ও বাণিজ্যবিষয়ক সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা সাইদ খোকন, আনোয়ার হোসেন, সাহাবউদ্দিন ফরাজী, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আজমত উল্লাহ খান, গাজীপুর জেলা পরিষদের প্রশাসক ও সাবেক ডাকসু নেতা আখতারুজ্জামান প্রমুখ।

সকালে সম্মেলনের প্রথম অধিবেশনের উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক। বিকেলে সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনের শুরুতে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম। সভাপতি পদে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ. ক. ম মোজাম্মেল হক ছাড়া অন্য কোনো প্রার্থী না থাকায় তিনি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আগামী তিন বছরের জন্য সভাপতি পদে পুনরায় নির্বাচিত হন। পরে সাধারণ সম্পাদক পদে ১০ জনের নাম ঘোষণা করে তাদের মঞ্চে ডেকে আনা হয়। সাধারণ সম্পাদক প্রার্থীরা হলেন- ইকবাল হোসেন সবুজ, অ্যাডভোকেট জামিল হাসান দুর্জয়, আব্দুল জলিল, আনিছুর রহমান, আমানত হোসেন খান, আনিছুর রহমান আরিফ, অ্যাডভোকেট আশরাফী মেহেদী হাসান, শিকদার মোশারফ, অ্যাডভোকেট রেজাউর রহমান লঙ্কর মিঠু ও মো. আকবর আলী।

এ সময় কেন্দ্রীয় নেতারা প্রার্থীদের মাঝে সমন্বয় করে একজনের নাম প্রস্তাব চেয়ে পাঁচ মিনিট সময় দেন। ১০ জন প্রার্থীর মধ্যে সমন্বয় না হওয়ায় কেন্দ্রীয় নেতারা প্রার্থীদের কাছে জানতে চান, যে নাম ঘোষণা করবেন সেটি তারা মেনে নেবেন কিনা? এ সময় ওই ১০ প্রার্থী সাধারণ সম্পাদক পদে মনোনয়নের জন্য কেন্দ্রীয় নেতাদের সিদ্ধান্ত মেনে নেওয়ার ঘোষণা দেন। কিছুক্ষণ পর কেন্দ্রীয় নেতারা ইকবাল হোসেন সবুজকে পুনরায় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করেন। তখন তারাও কথা অনুযায়ী মেনে নেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps