বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯, ২৯ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

গণকমিশনের আইনে কোনো ভিত্তি নেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ মে, ২০২২, ২:৫৩ পিএম

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, গণকমিশনের আইনে কোনো ভিত্তি নেই। তাঁরা কাদের নামে সন্ত্রাস ও দুর্নীতির দায় দিয়েছেন এগুলো আমরা কেউই কোনোও তদন্ত করিনি। সুতরাং এ বিষয়ে আমরা কিছু বলতে পারব না।
আজ শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে লায়ন্স ক্লাব ইন্টারন্যাশনালের ২৭তম বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা বলেন।
আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, গণকমিশনের আইনে কোনো ভিত্তি নেই। তাঁরা একটি বই প্রকাশ করেছে ‘২০০৩ এ সন্ত্রাস’ নামে। বইয়ের ভেতরে কি লিখেছে তা আমি জানি না। এগুলো আমাদের দেখতে হবে। তাঁরা কাদের নামে সন্ত্রাস ও দুর্নীতির দায় দিয়েছেন এগুলো আমরা কেউই কোনোও তদন্ত করিনি। সুতরাং এ বিষয়ে আমরা কিছু বলতে পারব না। তাঁরা দিয়েছেন। আমরা না দেখে বলতে পারব না, দেখে বলতে হবে।
গণকমিশনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে হেফাজত আন্দোলনে নামার ঘোষণা দিয়েছে। তাঁরা আন্দোলনে নামলে কি ব্যবস্থা নেওয়া হবে? এমন প্রশ্নের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আইন কেউ হাতে নিলে আমাদের যা করনীয় সেটাই করবো। এটা স্পষ্ট করে বলে দিচ্ছি। আমরা একটি কথা জোর দিয়ে বলতে চাই যে অভিযোগের কোনো প্রমাণ নেই সে অভিযোগ আমরা আমলে নেই না।
একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি এবং জাতীয় সংসদের আদিবাসী ও সংখ্যালঘুবিষয়ক ককাসের যৌথ উদ্যোগে গঠন করা হয় ‘বাংলাদেশে মৌলবাদী ও সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস তদন্তে গণকমিশন’। কমিশনের চেয়ারম্যান বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক ও সদস্যসচিব ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ।
গত ১১ মে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান মঈনউদ্দীন আবদুল্লার কাছে শ্বেতপত্র ও সন্দেহভাজন ১১৬ ব্যক্তির তালিকা হস্তান্তর করে গণকমিশন। শ্বেতপত্র ও তালিকাটি একই সঙ্গে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনেও দেওয়া হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
ম নাছিরউদ্দীন শাহ ২০ মে, ২০২২, ৫:২৫ পিএম says : 0
কিছু মানুষ সরকারের পিছনে বাশ দিচ্ছেন ইউটিউবের বিতরে দেশের প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে দেশের বিরুদ্ধে ভয়ানক ভয়াবহ অপপ্রচার প্রতিদিন হচ্ছে অবিরাম অবিশ্বাস্য ভাবেই। প্রতিবাদ প্রতিরোধ হচ্ছে না। রাষ্ট্রীয়ভাবে নিরভ আইন শৃংখলা বাহিনী শান্ত ক্রিয়া প্রতিক্রিয়া কিছুই নেই। আওয়ামীলীগের নেতা কর্মি নিরভ লিখনীর মাধ্যমে প্রতিবাদমুখর কাওকে তেমনি দেখাই যাচ্ছেন না সোশ্যাল মিডিয়া ইউটিউবে। পৃথিবীর কোন রাষ্ট্রের নির্বাহী প্রধান কে দেশের মানুষ বিদেশের মাঠিতে অনুষ্ঠান সাজিয়ে জঘন্যতম ভাষায় গালগল্প ভয়ানক মিথ্যাচার ইতিপৃর্বে হয়ে ছিল কিনা জানিনা???। গন কমিশন মানুষের ধারণা এই কমিশনের মানুষ গুলো সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায় এইসব করেছে। তুহিন কে আন্তর্জাতিক ট্রাইব্যুনাল থেকে সরকার বাদ দিয়ে ছিলেন। আইন মন্ত্রী তার নৈতিকতা আদশ‍্যের রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারী হিসাবেই থাকে বাদ দিয়েছিলেন। মানিক কথাবার্তায় আচার আচারণে সরকারের গৃহপালিত বুদ্ধিজীবী সে বিরুদ্ধে একেবারেই নাবালক সূলভ কাজ করে দিয়েছেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মন্ত্রী আজ বলেছেন এটি সঙ্গে সরকারের যোগসূত্র নেই। যারা করেছেন দায় দায়িত্ব তাদের। রাষ্ট্রের নির্বাহী প্রধান কি বলেন এই বিষয়ে দেখার আগ্রহ। শিয়া সুন্নী ওয়াবী মওদুদী এজিদের অনুসারীদের কওমী সকল আলেমদের বিরুদ্ধে গন কমিশনের রিপোর্ট। দেশের সাধারণ মানুষের কাছে কি সংবাদ পৌছালো। সরকারের গুরুত্ব দিয়ে দেখা উচিৎ। মানিক তুরিন দেশীয় আন্তর্জাতিক পৃষ্ঠপোষকতায় এই কাজ করে থাকে তাদের বিচার হওয়া উচিৎ। সরকার যদি এর মধ্যে জড়িত থাকে তার হিসাব মোটেও ভাল হবে না। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহোদয় ভিত্তি নেই এমন কাজ করার অধিকার কে তাদের দিয়েছেন। আইনের বিধিবিধান কি? জাতি জানার অধিকার রাখেন। চলবে।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps