শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯, ০১ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

কুষ্টিয়ায় জাসদ নেতা ইউপি চেয়ারম্যান কারাগারে

কুষ্টিয়া থেকে স্টাফ রিপোর্টার, | প্রকাশের সময় : ২২ মে, ২০২২, ৪:৪৭ পিএম

কুষ্টিয়া ভেড়ামারায় পূর্ব শত্রুতার জেরে রিপন(২৮) নামে প্রতিপক্ষের এক যুবকের উপর হামলা ও ধারালো অস্ত্রের আঘাতে রক্তাক্ত জখমের অভিযোগে করা মামলায় ভেড়ামারা উপজেলা যুবজোটের সভাপতি উপজেলার ০৪নং চাঁদগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হাফিজ তপনকে কারাগারে প্রেরণ করেছে আদালত।

রবিবার দুপুরে জেষ্ঠ্য বিচারিক আদালতের হাকিম জুয়েল রানার আদালতে জামিনাবেদন করেন এই মামলার এজাহার ভুক্ত ০১নং আসামী হিসেবে আত্মসমর্পন করেন ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হাফিজ তপন। আদালত শুনানী শেষে জামিনাবেদন না মঞ্জুর করেন।

তবে এবিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হাফিজ তপনের স্ত্রী রুমানা হাফিজ শিখা(৪৫) অভিযোগ, “রিপনের উপর হামলার ঘটনার সময় ঘটনাস্থল থেকে প্রায় সাড়ে ৫কি:মি: দুরত্বে চন্ডিপুরে আমাদের বাড়িতে পারিবারিক কাজে ব্যস্ত ছিলেন তপন; অথচ এই মামলার এজাহারকারী উল্লেখ করেছেন ঘটনার সময় হুকুমদাতা হিসেবে তিনি ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন। এটা সম্পূর্নরূপে মিথ্যা বানোয়াট ও মনগড়া অভিযোগ এনে হীন উদ্দেশ্যে রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের লোকজন আমার পরিবারকে বিপন্নের মুখে ঠেলে দিচ্ছেন।” “আমিও চাই রিপনের উপর হামলার ঘটনাটি সঠিক তদন্তে প্রকৃত দোষীরা শাস্তি পাক।”
আসামী পক্ষের আইনজীবি তানজিলুর রহামন এনাম জানান,‘দেখুন এটা যে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার মামলা বলেই এজাহারে উল্লেখিত ঘটনার সময় ভিকটিমের সাথে থাকা প্রত্যক্ষদর্শী স্ত্রী ইয়াসমিন খাতুন বাদি না হয়ে তার চাচাত ভাই ওয়াসিম বাদি হয়ে মামলাটি করেছেন। সে বিষয়টি আমরা আদালতকে অবহিত করে জামিনাবেদন করেছিলাম, ‘আদালত না মঞ্জুর করেছেন।’

আদালত পুলিশের উপপরিদর্শক শিপন বলেন, “রিপন নামের যুবকের উপর হামলা ও ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গরুতর রক্তাক্ত জখমের অভিযোগে ভেড়ামারা থানায় ওই যুবকের চাচাতো ভাই বাদি হয়ে করা মামলার ০১নং হুকুম দাতা আসামী হিসেবে আব্দুল হাফিজ তপন মামলার তদন্ত কার্যক্রমে নানা ভাবে প্রভাবিত করতে পারে এমন শংকার বিষয় আদালতকে অবহিত করায় বিজ্ঞ আদালত তার জামিনাবেদন না মঞ্জুর করেছেন।”

উল্লেখ্য, এমাসের ১৬তারিখ দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ভেড়ামারা রেল স্টেশন সংলগ্ন ঢাকা কোচ কাউন্টার ও সিএনজি ষ্ট্যান্ডে উপজেলার চাঁদ গ্রাম মসজিদ মোড়ের বাসিন্দা নুরুজ্জামানের ছেলে মো: রিপন বাড়ি ফেরার পথে অটোরিক্সার জন্য স্ত্রীসহ অপেক্ষারত অবস্থায় একদল দূর্বৃত্ত রিপনের উপর দেশীয় ও ধারলো অস্ত্রসহ হামলা চালায়। এঘটনায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে রক্তাক্ত জখম ও গুরুতর আহত রিপনকে উদ্ধার করে স্থানীয় ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পেøক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আশঙ্কাজনক রিপনের প্রয়োজনীয় উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির পরামর্শ দেন। পরিবারের লোকজন দ্রুত আহত রিপনকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান এবং সে এখনও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এঘটনায় হামলার শিকার আহত রিপনের চাচাতো ভাই উপজেলার চাঁদগ্রামের বাসিন্দা খালিল উদ্দিনের ছেলে মো: ওয়াসিম বাদি হয়ে ভেড়ামারা থানায় পূর্ব শত্রুতার জেরে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ এনে জাসদ নেতা ইউপি চেয়ারম্যা আব্দুল হাফিজ তপনকে প্রধান হুকুমদাতা আসামীসহ ১২জনের নামোল্লেক এবং অজ্ঞাত আরও ৫/৬জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

এমামলায় এজাহারভুক্ত বাকীরা হলেন, রেজাউল ইসলাম, ফাহাদ, সায়েম, আব্দুল হামিদ কটা, জনি, ড্যানী, রনি, আজিম ওরফে আকাশ, ইভন আলী, সুবেল, এবং সজিব হোসেন। এদের মধ্যে ৬জনকে ইতোমধ্যে গ্রেফতার করে আদালতে সৌপর্দ করেছে পুলিশ। আদালত গ্রেফতাকৃতদের কারাগারে প্রেরণ করেছেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps