বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯, ২৮ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

তালেবানের আদেশে মুখ ঢেকে টিভি পর্দায় আফগান নারীরা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ মে, ২০২২, ৯:৫৩ এএম

আফগানিস্তানে নারীদের মুখ ঢেকে টেলিভিশনের পর্দায় আসার নিয়ম কার্যকর হতে শুরু করেছে। এর আগে দেশটির তালেবান সরকার এ নিয়ম জারি করে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

জানা গেছে, নিয়মটি কার্যকরের ঘোষণা আসে গত বৃহস্পতিবার। সে সময় হাতে গোনা কয়েকটি গণমাধ্যম আদেশটি কার্যকর করে। কিন্তু রোববার (২২ মে) আফগানিস্তানের প্রায় সব নারী টিভি উপস্থাপক মুখ ঢেকে টেলিভিশনের পর্দায় আসেন। কারণ তালেবানের ভাইস অ্যান্ড ভার্চু মন্ত্রণালয় আদেশটি এরই মধ্যে কঠোরভাবে কার্যকর করা শুরু করেছে।
এর আগে তালেবানের তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় ঘোষণা করে যে, নীতিটি চূড়ান্ত ও এ বিষয়ের ওপর কোনো আলোচনা হবে না।
বিবিসি জানায়, রোববার টোলো নিউজ, আরিয়ানা টেলিভিশন, সাশাদ টিভি ও ওয়ান টিভির মতো টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর নারী উপস্থাপকদের মুখ ঢেকে সম্প্রচারে আসতে দেখা গেছে।
গত বছর আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখলের পর তালেবান প্রশাসন নারীদের জীবন একের পর এক নিষেধাজ্ঞায় বেঁধে ফেলছে। ওই নিষেধাজ্ঞার তালিকায় সর্বশেষ সংযোজন টেলিভিশনের পর্দাতেও নারীদের মুখ ঢেকে হাজির হওয়ার নির্দেশ।
জনসম্মুখে নারীদের মুখ ঢেকে চলার নির্দেশ তো আগেই দেওয়া হয়েছিল। শনিবার থেকে টেলিভিশনের পর্দায় মুখ ঢেকে আসার নির্দেশ কার্যকর হওয়ার কথা বলা ছিল। এর প্রতিবাদে কয়েকজন নারী উপস্থাপক প্রাথমিকভাবে শনিবার মুখ খুলে টিভি সম্প্রচারে এসেছিলেন।
পরে তালেবান কর্মকর্তারা ঘোষণা দেন, তারা ওই নারী সাংবাদিকদের ম্যানেজার এবং অভিভাবকের সঙ্গে কথা বলে তাদের শাস্তি দেওয়ার ব্যবস্থা করবে।
টোলো নিউজ এর উপস্থাপক ফরিদা সিয়াল বিবিসি-কে বলেন, ‘‘ঠিক আছে, আমরা মুসলমান, আমরা হিজাব পরছি, আমরা আমাদের চুল ঢেকে রাখছি। কিন্তু একজন উপস্থাপকের জন্য দুই/তিন ঘণ্টা টানা মুখ ঢেকে রাখা এবং সেভাবেই কথা বলে যাওয়া খুবই কঠিন।”
এই নির্দেশ প্রত্যাহারে তালেবান প্রশাসনকে চাপ দিতে তিনি আন্তর্জাতিক মহলের সাহায্য চেয়েছেন। তিনি বলেন, ‘‘তারা নারীদের সামাজিক ও রাজনৈতিক জীবন থেকে মুছে ফেলতে চাইছে।”
টোলো নিউজের আরেক উপস্থাপক সোনিয়া নিয়াজি বলেন, ‘‘আমরা প্রতিবাদ করেছি এবং মুখ ঢেকে রাখার বিপক্ষে ছিলাম। কিন্তু মালিকপক্ষকে চাপ দেওয়া হয়েছিল। ফলে তারা আমাদের বলেছিল, যদি নারী উপস্থাপকরা মুখ ঢেকে রাখার আদেশ না মানে, তবে তাদের অবশ্যই চাকরি পরিবর্তন করা উচিত, নতুবা তাদের চাকরিচ্যুত করা হবে।”
টোলো নিউজের উপপরিচালক ফেসবুকে এক পোস্টে লেখেন, ‘‘আমরা আজ গভীর শোকের মধ্যে আছি।”
মুখ ঢেকে পর্দায় এলেও শেষ পর্যন্ত নারী সাংবাদিকরা রক্ষা পাবেন কিনা তা নিয়ে তাদের মধ্যে সংশয় দেখা দিয়েছে। টেলিভিশনের একজন জ্যেষ্ঠ নির্বাহী বলেন, অনেক নারী উপস্থাপকের আশঙ্কা, তালেবান হয়ত এরপর তাদের টেলিভিশনের পর্দায় হাজির হওয়াই বন্ধ করে দেবে। সূত্র : টলো নিউজ

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
jack ali ২৩ মে, ২০২২, ১১:১৪ এএম says : 0
ইসলাম তালেবানদের ব্যক্তিগত সম্পত্তি নয় তালেবানরা আল্লাহর বিধান মেনে চলছে মহিলাদেরকে মুখ ঢাকা কোরআনে আছে এবং হাদিসে আছে এবং তালেবান সেটাই প্রচলন করছে তালেবানদেরকে দোষ দেওয়া হচ্ছে যে তারা মহিলাদের পরে অত্যাচার করছে এগুলো সব মিথ্যা দোষ নাই সব দোষ দেয় তারা কাফের
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps