বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ০৭ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

যুক্তরাজ্যে প্রসূতি সেবাতেও ‘পদ্ধতিগত বর্ণবাদ’

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ মে, ২০২২, ২:০১ পিএম

যুক্তরাজ্যের প্রসূতি সেবার ক্ষেত্রেও কৃষ্ণাঙ্গ, এশিয়ান এবং মিশ্র জাতিসত্তার নারীরা ‘পদ্ধতিগত বর্ণবাদ’ এর শিকার হচ্ছেন। একটি বছরব্যাপী তদন্তে এ তথ্য জানা গিয়েছে।

চ্যারিটি বার্থরাইটস বলেছে যে, ফলাফলগুলি শারীরিক ও মানসিক নিরাপত্তার অভাবের প্রমাণ অন্তর্ভুক্ত করেছে। অশেতাঙ্গ নারীরা উপেক্ষা করা এবং অবিশ্বাস করার অভিজ্ঞতা, অমানবিককরণ আচরণ এবং জবরদস্তির মুখোমুখি হয়েছেন। তদন্তকারী প্রধান শাহীন রহমান কিউসি বলেন, যুক্তরাজ্যে কৃষ্ণাঙ্গ নারীদের গর্ভাবস্থা ও সন্তান প্রসবের সময় মারা যাওয়ার আশঙ্কা চারগুণ বেশি এবং এশিয়ান ও মিশ্র বর্ণের নারীদের ক্ষেত্রে এটি। যার কারণে এ তদন্তের সূত্রপাত হয়েছে।

কালো বা বাদামী দেহের সাথে ‘ভুল’ কিছু নেই যা মাতৃমৃত্যুর হার, ফলাফল এবং অভিজ্ঞতার বৈষম্যকে ব্যাখ্যা করতে পারে, তিনি বলেছিলেন। ‘এখন যা প্রয়োজন তা হল স্বতন্ত্র, অধিকার-সম্মানপূর্ণ যত্নের উপর একটি দৃঢ় মনোনিবেশ।’ তদন্ত প্যানেল প্রসূতি যত্নে জাতিগত অবিচারের জীবিত এবং পেশাদার অভিজ্ঞতা সহ ৩০০ জনেরও বেশি লোকের কাছ থেকে প্রমাণ শুনেছে।

প্যানেলটি একজন মহিলার কাছ থেকে শুনেছে যিনি বলেছিলেন যে, তার কালো শিশুর শরীরে জন্ডিসের লক্ষণ থাকলেও তা পরীক্ষা করা হয়নি এবং তার উদ্বেগ খারিজ করা হয়েছে। ‘হাসপাতালে ডাক্তার স্বীকার করেছেন যে, রিডিং খুব বেশি ছিল কিন্তু তাকে দেখে জোর দিয়ে বলেছিল যে, তার গুরুতর জন্ডিস হয়নি, তার চোখে ‘সামান্য’ হলুদ হয়েছে,’ মহিলা বলেছিলেন। ‘পরে আরেকটি পরীক্ষায় তার তার গুরুতর জন্ডিস ধরা পড়ে, এ আমার বাচ্চাকে অবিলম্বে কয়েক সপ্তাহ ধরে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল,’ তিনি বলেন, ‘সাদা কর্মীরা একটি কালো শিশুর জন্ডিস চিনতে পারেনি।’

স্বাস্থ্য ও সামাজিক যত্ন বিভাগ ফেব্রুয়ারিতে মাতৃত্বকালীন পরিচর্যায় জাতিগত বৈষম্য মোকাবেলার জন্য একটি টাস্কফোর্স প্রতিষ্ঠা করেছে। স্বাস্থ্য ও সামাজিক পরিচর্যা বিভাগের একজন মুখপাত্র বিবিসিকে বলেছেন, ম্যাটারনিটি ডিসপ্যারিটিস টাস্কফোর্স ‘সকল নারীর জন্য মাতৃত্বকালীন যত্নের স্তর বাড়াবে’। ‘এটি যত্ন, অভিজ্ঞতা এবং ফলাফলের গুণমানে অগ্রহণযোগ্য বৈষম্যের সাথে যুক্ত কারণগুলির সমাধান করবে।’ সূত্র: ইউকে স্ট্যান্ডার্ড।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps