বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯, ০৬ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

নেদারল্যান্ডে প্রশিক্ষণ শেষে ‘নিখোঁজ’ সিএমপির দুই কনস্টেবল

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৮ মে, ২০২২, ১২:০০ এএম

নেদারল্যান্ডে প্রশিক্ষণে যাওয়ার পর খোঁজ মিলছে না চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) দুই কনস্টেবলের। পুলিশ কর্মকর্তারা বলেছেন, ওই দুই কনস্টেবল ১৫ দিনের আনুষ্ঠানিক এক প্রশিক্ষণে অংশ নিতে আরও ছয় পুলিশ সদস্যের একটি দলের সঙ্গে বিদেশে গিয়েছিলেন এবং পরে প্রশিক্ষণ শেষ করে ফিরে আসার আগের দিন গত ২২ মে থেকে নিখোঁজ হন।
তবে তারা নিশ্চিত নন যে দুই পুলিশ কনস্টেবল প্রশিক্ষণ শেষ করে বিদেশে পালিয়ে গেছেন, নাকি তারা কোনো ধরনের দুর্ঘটনার সম্মুখীন হয়েছেন। কারন তাদের অবস্থান এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।
সিএমপির আট সদস্যের দলটি গত ৯ মে বাংলাদেশ থেকে নেদারল্যান্ডে যায় এবং গত ২৪ মে ছয়জন বাংলাদেশে ফিরে আসেন। খোঁজ না মেলা পুলিশ কনস্টেবলরা হলেন-রাসেল চন্দ্র দে ও শাহ আলম। রাসেলের বাড়ি কক্সবাজারে আর শাহ আলমের বাড়ি কুমিল্লায়। তারা সিএমপির দামপাড়া পুলিশ লাইনস ও মনসুরাবাদ পুলিশ লাইনসের ব্যারাকে থাকতেন। জানা যায়, দুই কনস্টেবল সম্পূর্ণ প্রশিক্ষণে অংশ নেন। ফিরতি ফ্লাইটের আগের দিন দুইজনেই ঘুরতে যাওয়ার কথা বলে বের হন। আর ফিরে আসেননি।
সিএমপির উপ-কমিশনার (সদর) আমির জাফর ইনকিলাবকে বলেন, ফিরতি ফ্লাইটের ঠিক আগের দিন ওই দুই পুলিশ কনস্টেবল নিখোঁজ হন। তাদের পাসপোর্টগুলো তাদের কাছেই আছে। সে দেশের বাংলাদেশ দূতাবাস এবং পরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে এ ব্যাপারে খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি। সিএমপির বায়েজিদ বোস্তামী জোনের সহকারী কমিশনার (এসি) মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেনের নেতৃত্বে আট পুলিশ সদস্যের দলটি চলতি মাসের শুরুতে কুকুর ব্যবস্থাপনা, পরিচালনা ও শ্রশিক্ষণ’ শীর্ষক ১৫ দিনব্যাপী প্রশিক্ষণে অংশ নিতে নেদারল্যান্ডে যায়। ঢাকার মেসার্স রিফা এন্টারপ্রাইজ স্থানীয় এজেন্ট হিসেবে এই প্রশিক্ষণ লিঁয়াজো করেছে। সিএমপির কাউন্টার টেররিজম (সিটি) বিভাগের অধীনে একটি পূর্ণাঙ্গ ডগ স্কোয়াড (কে-৯) ইউনিট চালু করা হচ্ছে। আর সেই ইউনিটের কার্যক্রম হিসেবেই দলটি প্রশিক্ষণে গিয়েছিল।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps