বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ০৭ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

টেক্সাসের ঘটনায় ‘ভুল’ স্বীকার পুলিশের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ মে, ২০২২, ৯:৩৮ এএম

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গত মঙ্গলবার বন্দুকধারীর হামলায় ১৯ শিশুসহ ২১ জন নিহত হয়েছেন। হামলার সময় শিক্ষার্থীরা জরুরি নম্বর ৯১১ এ ফোন করলেও পুলিশ হামলাকারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে প্রায় এক ঘণ্টা দেরি করেছিল। পুলিশের এই দেরি করা ‘ভুল সিদ্ধান্ত’ ছিল বলে স্বীকার করেছেন মার্কিন পুলিশের একজন শীর্ষ কর্মকর্তা। ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

গত মঙ্গলবার দক্ষিণ টেক্সাসের উভালদে শহরের রব এলিমেন্টারি স্কুলে ১৮ বছর বয়সী বন্দুকধারী সালভাদর রামোস হামলা করেন। হামলার সময় পুলিশের নম্বরে একাধিকবার ফোন করে শিক্ষার্থীরা। কিন্তু পুলিশ সাড়া দিতে অন্তত এক ঘণ্টা দেরি করে। পুলিশের এ ভূমিকা নিয়ে পরে অভিভাবক ও সাধারণ মানুষের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ও সমালোচনা তৈরি হয়। তিন দিন পর টেক্সাসের নিরাপত্তা কর্মকর্তারা সংবাদ সম্মেলন করে তাদের ভূমিকার জন্য ক্ষমা চাইলেন।
গতকাল শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে টেক্সাসের প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা স্টিভেন ম্যাকক্র বলেন, ‘পুলিশ কর্মকর্তারা শ্রেণিকক্ষে প্রবেশ করতে দেরি করেছিলেন, কারণ তাঁরা বিশ্বাসই করতে পারেননি যে ওখানে একজন বন্দুকধারী থাকতে পারে। আটকে থাকা শিক্ষার্থীরা অবশ্য একাধিকবার ফোন করে পুলিশের সাহায্য চেয়েছিল। আমার ক্ষমা চাওয়া যদি সহায়ক হয়, তবে আমি আপনাদের কাছে ক্ষমা চাইব।’
এরপর স্টিভেন ম্যাকক্র স্বীকার করেন, পুলিশ রব এলিমেন্টারি স্কুলে পৌঁছাতে অন্তত ৪০ মিনিট দেরি করে ফেলেছিল। এরপর স্কুলের দারোয়ান চাবি নিয়ে না আসা পর্যন্ত পুলিশ কর্মকর্তারা অপেক্ষা করার সিদ্ধান্ত নেন। কারণ পুলিশ ভেবেছিল, স্কুলের ভেতরে আটকে থাকা শিশুরা ‘ঝুঁকিতে নেই’ অথবা ‘আর কেউ বেঁচে নেই’।
শিক্ষার্থীরা কতবার পুলিশের নম্বরে কল করেছিল এবং কোন কোন সময় কল করেছিল, তার একটি ধারাবাহিক বর্ণনাও দেন স্টিভেন ম্যাকক্র। তিনি জানান, শিক্ষার্থীরা অন্তত ১১ বার কল করেছিল।
এদিকে টেক্সাসের গভর্নর গ্রেগ অ্যাবট বলেছেন, যথা সময়ে ব্যবস্থা নিতে না পারার কারণ হচ্ছে, তিনি কিছু তথ্য সম্পর্কে বিভ্রান্ত ছিলেন। অ্যাবট বলেন, ‘আমাকে যে তথ্য দেওয়া হয়েছিল তা আংশিক ভুল ছিল। সেটি প্রমাণিত হয়েছে। এ ঘটনা থেকে আমরা সবাই শিক্ষা নিয়েছি, ভবিষ্যতে যেন এমন ভুল না হয়।’ সূত্র : বিবিসি

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps