শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৩ মুহাররম ১৪৪৪

জাতীয় সংবাদ

পাকিস্তানের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় বিক্ষোভ

কয়েকদিনের মধ্যেই : ইসলামাবাদে দলের সভায় ইমরান

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১০ জুন, ২০২২, ১২:০২ এএম

পিটিআই চেয়ারম্যান এবং পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বুধবার বলেছেন যে, তিনি আগামী কয়েক দিনের মধ্যে ‘পাকিস্তানের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় বিক্ষোভের’ তারিখ দেবেন।
ইসলামাবাদে দলের ন্যাশনাল কাউন্সিলের সভায় বক্তৃতাকালে ইমরান খান বলেন, ‘আমাদের পরের পর্বে সত্যিকারের স্বাধীনতার জন্য আমাদের প্রচারণার জন্য সর্বাত্মকভাবে যেতে হবে। আমি আগামী কয়েক দিনের মধ্যে একটি তারিখ দেব।’ তিনি যোগ করেছেন যে, দলটি প্রথমে তাদের আইনজীবীদের সাথে পরামর্শ করছে। ‘এটি দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় প্রতিবাদ হবে। এটা আমাদের অধিকার।’

তিনি দলীয় কর্মীদের প্রস্তুত থাকার আহবান জানান। ‘আমি সব দলীয় সংগঠনকে প্রস্তুত থাকতে বলেছি। আমরা সুপ্রিম কোর্টের কাছ থেকে সব-ক্লিয়ারেন্স পাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছি। সেটা হয়ে গেলেই আমি তারিখ দেব।’ এটাকে আমি রাজনীতি মনে করি না, এটাকে দেশের জন্য জিহাদ মনে করি, তিনি বলেন, তারিখ দিলে কর্মীদের প্রস্তুত থাকার আহবান জানান তিনি।
তার ভাষণে, ইমরান ক্ষমতাসীন জোট সরকারের কঠোর সমালোচনা করে বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ‘অনুমতি’ ছাড়া কোনো পদক্ষেপ নেয়ার সাহস তাদের হবে না। মূল্যস্ফীতি বৃদ্ধি নিয়েও তিনি সরকারকে কটাক্ষ করেন।
তিনি হাইলাইট করেছেন যে তার পুরো মেয়াদে, পিটিআই সমষ্টিগতভাবে পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম যথাক্রমে প্রতি লিটার ৫৫ এবং ৫০ টাকা বাড়িয়েছে। ‘১০ দিনে, তারা পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম ৬০ টাকা বাড়িয়েছে,’ তিনি বলেন, গ্যাস এবং বিদ্যুতের দামও বাড়ানো হয়েছে। তিনি প্রশ্ন তোলেন, কেন সরকার সস্তা তেল সরবরাহের জন্য একটি চুক্তি স্বাক্ষরের জন্য রাশিয়ার সাথে যোগাযোগ করেনি। প্রধানমন্ত্রী হিসাবে তার রাশিয়া সফর সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে তিনি বলেন যে, পিটিআই সরকার সস্তা তেলের জন্য একটি চুক্তি করেছে।

ইমরান আরও বলেন যে সরকার যদি প্রকৃতপক্ষে মুদ্রাস্ফীতির বিষয়ে চিন্তা করত, তাহলে রাশিয়ার কাছ থেকে কোনো বিলম্ব না করে সস্তায় তেল আনতে পারত। ‘তাদের অর্থমন্ত্রী বলেছেন যে, রাশিয়ার আমাদের কাছে আসা এবং একটি প্রস্তাব দেয়া উচিত...। সত্য হল তারা আমেরিকার অনুমতি ছাড়া কখনই কিছু করবে না।’

তিনি তুলে ধরেন কিভাবে ভারত তার জনগণকে ত্রাণ দেয়ার জন্য সস্তায় তেল কিনছে। ‘যদি তারা (সরকার) জনগণের কথা চিন্তা করত, তবে তাদের প্রথম অগ্রাধিকার ছিল এটি অনুসরণ করা।’ তিনি দাবি করেন, বর্তমান শাসকরা এমন কোনো পদক্ষেপ নেবেন না যা যুক্তরাষ্ট্রকেক্ষুব্ধ করে। ‘আমার বিরোধিতা হল এই দুই দলের প্রধানদের বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার বিদেশে লুকিয়ে আছে। তারা কখনই জাতির পক্ষে অবস্থান নেবে না যা তাদের (সম্পদ) বিপন্ন করে।’ সূত্র : ডন।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন