বৃহস্পিতবার, ১৮ আগস্ট ২০২২, ০৩ ভাদ্র ১৪২৯, ১৯ মুহাররম ১৪৪৪

আন্তর্জাতিক সংবাদ

আত্মসমর্পণ করেছে ইউক্রেনীয় সেনারা

সেভেরোডোনেৎস্ক জয়ের দ্বারপ্রান্তে রুশ সেনা ইউক্রেনের সঙ্কট সমাধানে সাহায্য করতে প্রস্তুত চীন আরো মার্কিন যুদ্ধাস্ত্র পাঠানো নিয়ে হুঁশিয়ারি রুশ রাষ্ট্রদূতের রাশিয়া যখন ইচ্ছা ইউক্রে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ জুন, ২০২২, ১১:৫৫ পিএম

সেভেরোডোনেৎস্কের একটি রাসায়নিক প্ল্যান্টে লুকিয়ে থাকা ইউক্রেনীয় বাহিনী বুধবার সকালে তাদের অস্ত্র ফেলে দিয়ে আত্মসমর্পণ করেছে। রাশিয়ার পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এদিকে, ইউক্রেনে আরও মার্কিন যুদ্ধাস্ত্র পাঠানো নিয়ে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন রুশ রাষ্ট্রদূত।

মস্কোর বাহিনী এখন কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ শহরটির নিয়ন্ত্রণ অর্জনের কাছাকাছি চলে এসেছে। এটি হচ্ছে ডনবাস অঞ্চলের সর্বশেষ এলাকা যেটি এখনও পুরোপুরি জয় করতে পারেনি রুশ সেনা। ইউক্রেন বলেছে, সেখানকার আজোট রাসায়নিক কারখানার ভেতর ৫০০ জনেরও বেশি বেসামরিক নাগরিক এবং একটি অনির্দিষ্ট সংখ্যক সৈন্য আটকা পড়েছে। রাশিয়ার ন্যাশনাল ডিফেন্স ম্যানেজমেন্ট সেন্টারের প্রধান মিখাইল মিজিনসেভ ইন্টারফ্যাক্স নিউজ এজেন্সিকে বলেছেন যে. ইউক্রেনীয় সৈন্যদের উচিত ‘তাদের বুদ্ধিহীন প্রতিরোধ বন্ধ করা এবং অস্ত্র সমর্পণ করা।’ তিনি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যে, বেসামরিক ব্যক্তিরা একটি মানবিক করিডোর দিয়ে চলে যেতে সক্ষম হবে। যদিও জানা গেছে যে, শহরের বাইরে তিনটি সেতুর মধ্যে দুটি ইউক্রেনীয় সেনারা ধ্বংস করে দিয়েছে। তৃতীয়টি পুরানো এবং অনিরাপদ।

লুহানস্কের গভর্নর সেরহি হাইদাই বলেছেন যে, আজোটের বেসামরিক লোকেরা ‘আশ্রয়কেন্দ্রে আর খাততে পারছে না, তারা তাদের মানসিক অবস্থার শেষ প্রান্তে রয়েছে’। পরিস্থিতি মারিউপোলের আজভস্টাল স্টিল প্ল্যান্টের যুদ্ধের কথা মনে করিয়ে দেয়, যেখানে শত শত যোদ্ধা এবং বেসামরিক লোক মে মাসে তাদের আত্মসমর্পণ পর্যন্ত আশ্রয় নিয়েছিল। এই পরিস্থিতিতে ইউক্রেনের সৈন্যরা রাশিয়ার হেফাজতে রয়েছে। হাইদাই বলেছেন যে, রাশিয়ানরা সেভেরোডোনেৎস্কের প্রায় ৮০ শতাংশ নিয়ন্ত্রণ করে এবং তিনি অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসকে বলেছিলেন যে, বেসামরিক লোকদের ব্যাপকভাবে সরিয়ে নেয়া এখন ‘সম্ভব নয়’। এখনও প্রায় ১২ হাজার লোক সেভেরোডোনেৎস্কে রয়ে গেছে। এদিকে, ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি মঙ্গলবার রাতে বলেছেন যে, সেভেরোডোনেৎস্ক এবং উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় শহর খারকিভের ক্ষয়ক্ষতি ‘বেদনাদায়ক’। ‘তবে আমাদের ধরে রাখতে হবে - এটি আমাদের রাষ্ট্র,’ তিনি যোগ করেছেন।

ইউক্রেনের সঙ্কট সমাধানে সাহায্য করতে প্রস্তুত চীন : রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের সাথে টেলিফোন কথোপকথনে চীনের নেতা শি জিনপিং ইউক্রেনের সঙ্কট সমাধানে সহায়তা করার জন্য তার প্রস্তুতি ব্যক্ত করেছেন, বুধবার চীনের কেন্দ্রীয় টেলিভিশন জানিয়েছে। ‘সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষকে অবশ্যই দায়িত্বশীল অবস্থান নিতে হবে, এইভাবে ইউক্রেনের সঙ্কটের সঠিক মীমাংসাকে প্রচার করতে হবে,’ ব্রডকাস্টার শিকে উদ্ধৃত করে বলেছে, ‘চীন তার গঠনমূলক ভূমিকা পালন করতে প্রস্তুত।’ শি যেমন ব্যাখ্যা করেছেন, বেইজিং ইউক্রেনীয় ইস্যুতে ‘তথ্য ও ঐতিহাসিক বাস্তবতা বিবেচনায় নিয়ে একটি স্বাধীন অবস্থান নিচ্ছে।’ ‘আমরা সক্রিয়ভাবে বিশ্বব্যাপী শান্তি রক্ষায় অবদান রাখি। একইভাবে, আমরা বিশ্বে একটি স্থিতিশীল অর্থনৈতিক শৃঙ্খলা বজায় রাখতে অবদান রাখি,’ তিনি জোর দিয়েছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ২৪ ফেব্রুয়ারী, পুতিন দুটি ডনবাস প্রজাতন্ত্রের নেতাদের সাহায্যের অনুরোধের পরে একটি বিশেষ সামরিক অভিযান শুরু করেছিলেন। এর পরে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্ররা রাশিয়ার উপর ব্যাপক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে এবং কিয়েভে অস্ত্র সরবরাহ বাড়ায়।
আরও মার্কিন যুদ্ধাস্ত্র পাঠানো নিয়ে হুঁশিয়ারি রুশ রাষ্ট্রদূতের : ইউক্রেনে হাই মোবিলিটি আর্টিলারি রকেট সিস্টেম (এইচআইএমএআরএস) সরবরাহ বাড়ানোর পরিকল্পনা সম্পর্কে মার্কিন আন্ডার সেক্রেটারি অফ প্রতিরক্ষা কলিন কাহলের মন্তব্য অত্যন্ত উদ্বেগজনক এবং উত্তেজনা বৃদ্ধির দিকে ওয়াশিংটনের আগ্রহ প্রকাশ করে। বুধবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আনাতোলি আন্তোনোভ বলেছেন। ‘পেন্টাগনের একজন উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা দূর-পাল্লার ব্যবস্থার সরবরাহ প্রসারিত করার সম্ভাবনা দেখেন তা চরম উদ্বেগের কারণ। এই মন্তব্যটিকে উত্তেজনা আরও বৃদ্ধির দিকে এগিয়ে যাওয়ার ওয়াশিংটনের অভিপ্রায় হিসাবে দেখা যেতে পারে। এটি কেবল নিশ্চিত করে যে, একটি শান্তিপূর্ণ সমাধানের উপায় খোঁজার বিষয়ে আমেরিকানদের কোন ইচ্ছা নেই,’ তিনি বলেন।

‘আশ্চর্যের কিছু নেই যে ইউক্রেনের সামরিক সমর্থন নিয়ে আলোচনার জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্রদের আরেকটি বৈঠকের দৌড়ে কর্মকর্তার মন্তব্য করা হয়েছিল।’ ‘স্পষ্টতই, প্রশাসন এভাবেই তার সহযোগীদের বিশ্বাস করাচ্ছে যে, কিয়েভ সরকারকে আরও অস্ত্র সরবরাহ করা ছাড়া আর কোন বিকল্প নেই,’ আন্তোনভ যোগ করেছেন।

রাশিয়া যখন ইচ্ছা ইউক্রেনে অভিযান শেষ করবে : বুধবার রাশিয়া-১ টেলিভিশন চ্যানেলে ৬০ মিনিটের অনুষ্ঠানে রাশিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই রিয়াবকভ বলেছেন, যেখানে উপযুক্ত মনে হবে সেখানে রাশিয়া ইউক্রেনে তার সামরিক অভিযান বন্ধ করবে। তিনি সামরিক অভিযানের মূল ঘোষিত লক্ষ্যগুলির প্রতি মস্কোর দৃঢ় প্রতিশ্রুতির উপর জোর দেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রতিক্রিয়া প্রমাণ করা যে, রাশিয়াকে পরাজয়ের সম্মুখীন করা এ পরিকল্পনাগুলো ভেস্তে যাবে, যে তারা ব্যর্থ হবে, যেখানে আমরা সঠিক মনে করব সেখানে এটি শেষ করব, এবং যেখানে কিছু কৌশলবিদ, আদর্শবাদী বা সামরিক ব্যক্তিরা নয় ওয়াশিংটন বা অন্যান্য রাজধানীতে পরিকল্পনাকারীরা কল্পনা করেন।’

‘আমাদের ইচ্ছাশক্তি, অস্ত্রের জোর এবং আমাদের নেতৃত্বের দ্বারা ঘোষিত লক্ষ্যগুলিকে মেনে চলা এবং তাদের অর্জন নিশ্চিত করার জন্য আমাদের প্রস্তুতির মাধ্যমে এটি প্রমাণ করতে হবে,’ রিয়াবকভ মস্কোর বিবৃতিতে আমেরিকানদের উদাসীনতার প্রতি রাশিয়ার প্রতিক্রিয়া ছিল কিনা সে সম্পর্কে এক প্রশ্নের উত্তরে বলেন। ‘যদি জেলেনস্কি এবং তার দল আলোচনার জন্য প্রস্তুত না হয়, যদি তার পিছনের নির্বোধ লোকেরা তাদের অস্ত্র দিয়ে ইউক্রেনের পাগলামি চালিয়ে যেতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ হয়, তবে এটি তাদের পছন্দ, এটি দুঃখজনক, এটি দুঃখজনক। কিন্তু আমরা পিছু হটতে পারি না,’ রিয়াবকভ যোগ করেছেন।

ইউক্রেনে ন্যাটোর সরবরাহ করা অস্ত্রের ডিপো ধ্বংস : গতকাল রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট-জেনারেল ইগর কোনাশেনকভ বলেছেন, রাশিয়ান বাহিনী লভভ অঞ্চলের একটি ডিপোকে নির্মূল করতে কালিব্র ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র দ্বারা হামলা চালিয়েছে যেখানে, ন্যাটো দেশগুলো দ্বারা ইউক্রেনের কাছে হস্তান্তর করা অস্ত্রের জন্য গোলাবারুদ ছিল। ‘কালিব্র দূরপাল্লার উচ্চ-নির্ভুল ক্ষেপণাস্ত্রগুলো লভভ অঞ্চলের জোলোচেভ সম্প্রদায়ের একটি ডিপোকে নিশ্চিহ্ন করে দিয়েছে যেখানে ন্যাটো দেশগুলি ইউক্রেনের কাছে হস্তান্তর করা বিদেশী অস্ত্রের জন্য গোলাবারুদ সঞ্চয় করেছিল, যার মধ্যে ১৫৫ মিমি এম৭৭৭ হাউইটজারের গোলাবারুদ রয়েছে,’ মুখপাত্র বলেছেন।

রুশ পাসপোর্টের জন্য আবেদন করছেন সমগ্র খেরসনের বাসিন্দারা : খেরসন অঞ্চলের বাসিন্দাদের কাছ থেকে রাশিয়ান পাসপোর্টের জন্য হাজার হাজার আবেদন আসতে শুরু করেছে। আঞ্চলিক সামরিক-বেসামরিক প্রশাসনের মুখপাত্র সের্গেই মরোজ বুধবার এ তথ্য জানিয়েছেন। ‘চাহিদা রয়ে গেছে, মানুষ রাশিয়ান পাসপোর্ট পেতে আগ্রহী। অনেকে রাশিয়ান নাগরিকত্ব চাইছে কিন্তু বর্তমানে একটি মাত্র আবেদন কেন্দ্র আছে তাই সেখানে ভিড় এবং দীর্ঘ লাইন। সমস্ত অঞ্চল থেকে মানুষ আসতে শুরু করেছে,’ তিনি উল্লেখ করেছেন। গত ২৫ মে, রাশিয়ান প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন ইউক্রেনের জাপোরোজিয়ে এবং খেরসন অঞ্চলের বাসিন্দাদের রাশিয়ান নাগরিকত্ব প্রদানের জন্য শিথিল বিধিতে একটি ডিক্রি স্বাক্ষর করেছেন। সূত্র : তাস, বিবিসি নিউজ, স্কাই নিউজ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
হামজা ১৬ জুন, ২০২২, ১:১৪ এএম says : 0
এ যুদ্ধে ইউক্রেন হারবে, রাশিয়ার জয়ী হবে
Total Reply(0)
হামজা ১৬ জুন, ২০২২, ১:১৬ এএম says : 0
ইউক্রেন কি করে ভাবলো তারা এ যুদ্ধে জয়ী হবে। পাগলের মতো প্রলাপ, কখনো ইউক্রেন রাশিয়ার সাথে জিততে পারবে না। ইউক্রেনের উচিত হবে এখনই রাশিয়ার কাছে আত্মসমর্পন করা।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন