সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯, ২৬ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

মমতার জন্য হাড়িভাঙা ও মানিক সাহার জন্য আম্রপালি উপহার প্রধানমন্ত্রীর

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ জুন, ২০২২, ১২:০০ এএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শুভেচ্ছা উপহার হিসেবে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ১ টন হাড়িভাঙ্গা আম এবং ত্রিপুরা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মানিক সাহার জন্য ৮০০ আম্রপালি আম পাঠিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
গতকাল যশোরের বেনাপোল ও ব্রাহ্মণবড়িয়ার আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে আম পাঠানো হয়। বেনাপোলে উপস্থিত ছিলেন নাভারন সার্কেল পুলিশ সুপার জুয়েল ইমরান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার নারায়ণ চন্দ্রপাল, বেনাপোল কাস্টমস হাউসের ডেপুটি কমিশনার তানভীর আহমেদ, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফারজানা ইসলাম, বেনাপোল স্থলবন্দরের উপ-পরিচালক মামুন কবির তরফদারসহ স্থানীয় গোয়েন্দা সংস্থা। ভারতের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিম বঙ্গের পুলিশের ডিআইজি সুকেশ জেল, কোলকাতায় নিযুক্ত বাংলাদেশের ডেপুটি হাই কমিশনার শেখ মারেফাত তরিকুল ইসলাম, প্রটোকল অ্যাসিস্ট্যান্ট মি.আজিজুল আলম ও মি. এস কে ইমাদ।
কোলকাতায় নিযুক্ত বাংলাদেশের ডেপুটি হাই কমিশনার শেখ মারেফাত তরিকুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে দ্বি-পাক্ষিক সম্পর্কের যে সোনালী অধ্যায় পার হচ্ছে তারই অংশ হিসেবে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবারও কোলকাতার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে শুভেচ্ছা উপহার হাড়িভাঙ্গা আম পাঠিয়েছেন। এর মাধ্যমে দুদেশের মানুষের মধ্যে সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় হবে আমরা আশা করি। এ শুভেচ্ছা উপহারে দু’দেশের সম্পর্ক উন্নয়নে অনেক বড় ভূমিকা রাখবে।
এদিকে আখাউড়া কাস্টমস সূত্রে জানা যায়, কার্গোওয়ার্ল্ড লজেষ্টিকের ব্যবস্থাপনায় ঢাকা থেকে একটি পিকআপভ্যানে ১৬০টি কার্টনে ৮০০ কেজি আম্রপালি আম নিয়ে স্থলবন্দরে পৌঁছে। গতকাল বেলা ১টার দিকে আখাউড়া ইমিগ্রেশন চেকপোস্টে সীমান্তের শূন্যরেখায় কার্গোওয়ার্ল্ড লজেস্টিকের স্থানীয় প্রতিনিধি সিএন্ডএফ প্রতিষ্ঠান শোয়েব ট্রেড ইন্টারন্যাশনালের স্বত্বাধিকারি এবং কাষ্টমস্ কর্মকর্তারা আগরতলায় বাংলাদেশ সহকারী হাইকমিশনের সহকারী হাইকমিশনার আরিফ মোহাম্মদের কাছে আমগুলো হস্তান্তর করা হয়। তিনি ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী মানিক সাহার কাছে আমগুলো পৌঁছে দেবেন।
আখাউড়া ইমিগ্রেশন চেকপোস্টে সীমান্তের শূন্যরেখায় আগরতলার বাংলাদেশ সহকারী হাইকমিশনার আরিফ মোহাম্মদ বলেন, এ উপহারের মাধ্যমে ত্রিপুরার সঙ্গে বাংলাদেশের যে আত্মিক সম্পর্ক তা আরও সুদৃঢ় হলো। আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব সময়ই এটা করে থাকেন। এবছরও করেছেন। ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীসহ রাজ্যের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের কাছে প্রধানমন্ত্রীর এই উপহার যথাযথভাবে পৌঁছে দেওয়া হবে।
এ সময় আগরতলায় বাংলাদেশ সহকারী হাইকমিশনের প্রথম সচিব রেজাউল হক চৌধুরী, আখাউড়া কাষ্টমস এর সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা মো. জাকারিয়া, আখাউড়া ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট পুলিশের ইনচার্জ মো. মোর্শেদ আলম, শোয়েব ট্রেড ইন্টারন্যাশনালের স্বত্বাধিকারি রাজিব উদ্দিন ভূইয়া উপস্থিত ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
কামাল উদ্দীন আহম্মেদ চৌধুরী ২১ জুন, ২০২২, ৯:১৪ এএম says : 0
এদের দেশপ্রেমের চেয়ে ভারতপ্রেম বেশি। ভারত বাঁধ ছেড়ে বাংলাদেশ ভাসিয়ে দিয়েছে আর আমাদের ভারতপ্রেমী প্রধানমন্ত্রী আম উপহার দিচ্ছে। বাহ! চমৎকার ভারতপ্রেম।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps