বুধবার, ১০ আগস্ট ২০২২, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৯, ১১ মুহাররম ১৪৪৪

খেলাধুলা

জয়ের ধারায় কিংসরা, শেখ জামালের দ্বিতীয় হার

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ জুন, ২০২২, ৯:৩১ পিএম

দীর্ঘ বিরতির পর ফের মাঠে গড়িয়েছে ঘরোয়া ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)। মঙ্গলবার থেকে শুরু হওয়া লিগের ১৬তম রাউন্ডে এসেও জয়ের ধারাতেই রয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস। অন্যদিকে এবারের আসরে দ্বিতীয় হারের দেখা পেল শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। মঙ্গলবার বিকালে মুন্সিগঞ্জের বীরশ্রেষ্ঠ ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট শহীদ মতিউর রহমান স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে বসুন্ধরা কিংস ২-০ গোলে হারায় রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটিকে। একই দিন রাজধানীর বসুন্ধরা কিংস অ্যারেনায় শেখ জামালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে চমক দেখায় স্বাগতিক শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র।

মুন্সিগঞ্জে রহমতগঞ্জের হোম ম্যাচে আধিপত্য ছিল শক্তিধর বসুন্ধরারই। তারপরও ম্যাচ শুরুর প্রায় আধ ঘন্টা পর গোলের দেখা পায় তারা। ধারাবাহিক আক্রমণের মুখে ম্যাচে ৩৫ মিনিটে এগিয়ে যায় বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। এসময় রহমতগঞ্জ বক্সের কাছেই ফ্রি কিক পায় কিংসরা। শট নেওয়ার সময় ডান প্রান্ত দিয়ে ডামি করেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রবসন রবিনহো। কিন্তু শট নেন ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার মিগুয়েল ফিগুয়েরা। দারুণ চতুরতার সঙ্গে বাঁ পায়ের শটে রহমতগঞ্জের রক্ষণের দেয়াল টপকে বল জালে ফেলেন তিনি (১-০)। মিনিট তিনেক পরেই আরেকবার পরাস্ত হতে হয় রহমতগঞ্জের গোলরক্ষক তুষারকে। ম্যাচের ৩৮ মিনিটে বক্সে বল পেয়ে শরীর ঘুরিয়ে ডান পায়ের দর্শণীয় শটে লক্ষ্যভেদ করেন ব্রাজিলিয়ান রবিনহো (২-০)। আগের ১১ গোল নিয়ে মোহামেডানের মালির ফরোয়ার্ড সুলেমান দিয়াবাতের সঙ্গে সর্বাধিক গোলদাতার তালিকায় যুগ্মভাবে দ্বিতীয় স্থানে থাকলেও এই গোলের সুবাদে এককভাবে দুইয়ে উঠে এলেন রবিনহো। ১৬ গোল করে তালিকার শীর্ষে আছেন চট্টগ্রাম আবাহনীর নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড পিটার থ্যাংকগড। প্রথমার্ধেই দু’গোল অনেকটা আয়েশি ভঙ্গিতে খেলতে দেখা যায় বসুন্ধরার খেলোয়াড়দের। দ্বিতীয়ার্ধে একাধিক সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে না পারায় শেষ পর্যন্ত দুই গোলের জয় নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় তাদের। ম্যাচ জিতে ১৬ খেলায় ১৩ জয়, দুই ড্র ও এক হারে ৪১ পয়েন্ট পেয়ে তালিকার শীর্ষস্থান ধরে রাখলো বসুন্ধরা কিংস। সমান ম্যাচে দুই জয়, চার ড্র ও দশ হারে ১০ পয়েন্ট পাওয়া রহমতগঞ্জের অবস্থান দশম স্থানে।

এদিকে এদিন বিকালে বসুন্ধরা কিংস অ্যারেনায় শেখ জামালের সঙ্গে লড়াইয়ে দারুণ জয় পায় শেখ রাসেল। ম্যাচের শুরু থেকেই জামালের সঙ্গে সমান তালে লড়তে থাকেন রাসেলের ফুটবলাররা। আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে ম্যাচের ২৪ মিনিটে প্রথম গোলের দেখা পায় তারা। এসময় ডান প্রান্ত থেকে সতীর্থ ফুটবলার আকিনাদের বাড়িয়ে দেয়া বল পোস্টের খুব কাছে পেয়ে ডান পায়ের শটে প্রতিপক্ষ গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন রাসেল মিডফিল্ডার হেমন্ত ভিনসেন্ট বিশ্বাস (১-০)। অবশ্য প্রথমার্ধেই সমতায় ফেরে শেখ জামাল। ম্যাচের ৪২ মিনিটে সুলেমান কিং কানফর্মের যোগান দেয়া বল নিয়ে ডানপ্রান্ত থেকে বক্সে ঢুকে দারুণ শটে গোল করেন জামালের উজবেকিস্তানের ফরোয়ার্ড ওটাবেক (১-১)। তবে প্রথমার্ধের যোগকরা সময়ে ফের এগিয়ে যায় শেখ রাসেল। ৪৫+১ মিনিটে বাঁ প্রান্ত দিয়ে বক্সে ঢুকে শট করেন হেমন্ত। তার শটের চলন্ত বলে পা চালিয়ে দেন আইভরিকোস্টের মিডফিল্ডার চার্লস দিদিয়ের। বল চলে যায় শেখ জামালের জালে (২-১)। ৮৭ মিনিটে মিডফিল্ডার মান্নাফ রাব্বির গোলে ব্যবধানটা আরও বড় করে শেখ রাসেল (৩-১)। আর এ গোলেই জয় নিশ্চিত হয়ে যায় তাদের। হারলেও ১৬ ম্যাচে আট জয়, ছয় ড্র ও দুই হারে ৩০ পয়েন্ট নিয়ে থালিকার তৃতীয় স্থান ধরে রাখলো শেখ জামাল। সমান মাচে চার জয় এবং ছয়টি করে ড্র ও হারে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে অষ্টম স্থানেই থাকলো শেখ রাসেল।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন