মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১৪ আষাঢ় ১৪২৯, ২৭ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

সম্পাদকীয়

মানুষ কষ্টে আছে

| প্রকাশের সময় : ২৩ জুন, ২০২২, ১২:০২ এএম

লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে দ্রব্যমূল্য। এর লাগাম টেনে ধরতে নেই কার্যকর কোনো পদক্ষেপ। উন্নয়ন কার্যক্রম দেখিয়ে যে মানুষের খুদা মেটানো সম্ভব না, সেটি হয়তো বুঝতে পারছে না সরকার। মূল্য বৃদ্ধির এই অসুস্থ প্রতিযোগিতায় সবচেয়ে বেশি বেকায়দায় পড়েছে নিন্মআয়ের মানুষগুলো। দেশে তাদের সংখ্যা কয়েক কোটি বেশি। বড় বড় মেগা প্রকল্প প্রশংসার দাবি রাখলেও দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি জনগণের কাছে সরকারের ভাবমর্যাদাকে নষ্ট করছে। সরকারের উপর থাকা জনগণের ন্যূনতম ইতিবাচক মনোভাবটুকুও যদি বিলুপ্ত হয় তবে সরকারের উপর থেকে সম্পূর্ণ আস্থা হারাবে তারা। তাই নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের অযৌক্তিক মূল্যবৃদ্ধির লাগাম টেনে ধরে জনগণকে আস্থায় নেয়ার কোনো বিকল্প নেই। বিষয়টি সরকারের সংশ্লিষ্টদের যথাযথ গুরুত্ব দিয়ে চিন্তা করা প্রয়োজন। তা নাহলে সরকার জনসমর্থন হারানোর পাশাপাশি দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হলেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না।

জিহাদ হোসেন রাহাত
শিক্ষার্থী, প্রিন্সিপাল কাজী ফারুকী কলেজ, লক্ষ্মীপুর।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
sha ২৪ জুন, ২০২২, ৭:২৩ পিএম says : 0
নির্বোধরা বিশ্বাস করে অমানুষ পিচাশরা মানুষের কল্যাণে কাজ করে! বাস্তবে অমানুষ পিচাশ ও পিচাশি সরকার জনকল্যাণের যে অসংখ্য ধরনের ভন্ডামিপূর্ণ নাটক করে, বাস্তবে এরা সর্বদিক থেকে মানুষের সর্বোচ্চ ক্ষতি করে। অথচ নির্বোধরা এ বিষয়ে সম্পূর্ণ বেখেয়াল ! অহংবাদ মিথ্যা ভণ্ডামি ধোকা বিভ্রান্তি অমানবিকতা ক্ষতিকারক পিচাশ শয়তানবাদের সর্বোচ্চ অন্ধকার যুগে বর্তমান বিশ্বে আমরা অবস্থান করছি। তাই আপনারা সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করুন! গভীর তদন্ত না করে অন্ধভাবে কোন কিছু বিশ্বাস করবেন না। সর্বোচ্চ শয়তানবাদের এই যুগে "রক্ষকরাই ভক্ষক" এর ভূমিকা পালন করছে, আপনার চারপাশে এর অসংখ্য প্রমাণ রয়েছে। সুতরাং বিশ্বাস শুধুমাত্র সত্যকে করা যায়। আর শুধুমাত্র সর্বশক্তিমান আল্লাহ সত্তের উৎস। কিন্তু সাবধান! শয়তান ও এর দালালরা নিজেদেরকে সত্যবাদী হিসেবে প্রকাশ করে অথচ এরাই সমস্ত ধরনের মিথ্যার উৎস! এরা বলে, Covid19 ভাইরাস নাকি ভয়ঙ্কর! অথচ ঐ সমস্ত অমানুষ পিচাশ কথিত ভাইরাস থেকে লক্ষ কোটি গুণ বিষাক্ত, এদের দ্বারা পৃথিবীর কোটি কোটি মানুষ নানাভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে ও মারা যাচ্ছে। বর্তমানে পৃথিবীতে কথিত ভাইরাসের নাম দিয়ে মানুষের বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত ও মৃত্যুর যে কারণ বলা হচ্ছে তার আসল কারণ হচ্ছে বিষাক্ত ভ্যাকসিন বিষাক্ত ড্রাগস্ বিষাক্ত খাদ্য বিষাক্ত পরিবেশ বিষাক্ত মোবাইল রেডিয়েশন বিষাক্ত মানসিক চাপ- যা শয়তান ও এর দালালরা এই পৃথিবীতে প্রতিষ্ঠা করেছে। মানুষের রূপ ধারী অমানুষ পিচাশরা নানাভাবে মানুষের সাথে মিথ্যা ধোকা প্রতারণা ভন্ডামি করে, মানুষের রক্ত শোষণ করে পিচাসি ক্ষমতা ও সম্পদের পাহাড় গড়ছে, সাধারণ মানুষকে তাদের ক্রীতদাসে রূপান্তর করছে l তাদেরকে অন্ধভাবে বিশ্বাস করে নিজেদের জীবনকে বিষাক্ত অভিশপ্ত করবেন না। সদা সর্বদা সবসময় সত্যের পক্ষে থাকুন। আর এই পৃথিবীতে সর্বোচ্চ পর্যায়ের সত্য হচ্ছে মনুষত্ব ন্যায় বিচার কল্যাণ মানবতা শান্তি। পিচাশরা মুখে মুখে মনুষত্ব ন্যায় বিচার শান্তির কথা বলে, অথচ এরাই এই পৃথিবীতে তাদের নিজস্ব লোভ স্বার্থ শয়তানি ক্ষমতার জন্য ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে নানারকম অশান্তি সৃষ্টি করছে। আপনি যতই এদেরকে সমর্থন করবেন এরা ততোই শক্তিশালী হয়ে নানাভাবে আপনাকে শোষণ করবে। মানুষ যদি এদের ক্ষতিকর কর্মকাণ্ড গুলোকে বন্ধ করতে বাধ্য না করে তাহলে কখনই এরা তা থেকে নিজেদেরকে বিরত রাখবে না। সুতরাং এদেরকে সকল ধরনের সহযোগিতা করা বন্ধ করুন, না হলে সর্বোচ্চ পর্যায়ের ক্ষতিগ্রস্ত হবেন আপনি।
Total Reply(0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps