রোববার, ১৪ আগস্ট ২০২২, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৫ মুহাররম ১৪৪৪

জাতীয় সংবাদ

পদ্মা সেতুর যানবাহনে ঢাকার ট্রাফিকের বেহাল দশা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ জুন, ২০২২, ১২:০১ এএম

স্বপ্নের পদ্মা সেতু চালু হয়েছে। গতকাল সকাল থেকে ওপর দিয়ে যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হয়েছে। রাজধানীসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে লোকজন ছুটে গেছেন পদ্মা সেতু দেখতে। আবার অনেক লোকজন ঢাকার বাইরে থেকে এসেছেন। এজন্য রাজধানীর সব সড়কে বৃদ্ধি পায় গাড়ির চাপ। সৃষ্টি হয় ভয়াবহ যানজট। যানজটের ভয়াবহতা বাড়ার কারণে রাজধানীর ট্রাফিক ব্যবস্থা বেহাল দশায় পরিণত হয়। প্রায় সব রাস্তায় গণপরিবহনগুলোকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। এতে যানজট ও গরমে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন নগরবাসী।

রাস্তায় দাঁড়িয়ে গাড়িগুলো নিয়ন্ত্রণ করতে হিম শিত খেতে হয়েছে দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশের সদস্যদের। আর পদ্মা সেতুগামী রুটে সকাল থেকে শুরু হওয়া গাড়ির চাপ থাকে সারাদিন। অতিরিক্ত গাড়ি বেড়ে যায় এই রুটে। রাজধানীর প্রবেশ মুখগুলোতে অতিরিক্ত গাড়ির চাপ থাকায় সৃষ্টি হয় যানজট। গণপরিবহনের এই যানজট এসে ঠেকেছে রাজধানীর সবগুলো সড়কে। গতকাল রাজধানীর প্রত্যেকটি সড়কে ছিলো ভয়াবহ যানজট। এমন কোন সড়ক পাওয়া যায়নি যে যান চলাচল স্বাভাবিক ছিলো। তবে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশের কর্মকর্তাদের বাড়তি বেগ পেতে হয়েছে। অন্যান্য দিনে যে পরিমাণ কষ্ট করতে হতো তার থেকে অনেক বেশি কষ্ট করতে হয়। দম ফেলার অবকাশ পাননি ট্রাফিক পুলিশের সদস্যরা।

সরেজমিন দেখা গেছে, গত শনিবার মুন্সীগঞ্জের মাওয়া ও শরিয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে ফলক উন্মোচনের মধ্য দিয়ে পদ্মা সেতু উদ্বোধনের আনুষ্ঠানিকতা সারেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল রোববার সকাল ৬টায় সেতুর দুই প্রান্তের ১৪টি টোল গেইট খুলে দিলে বিপুল সংখ্যক মোটরসাইকেল, ব্যক্তিগত গাড়ি, বাস, ট্রাকসহ বিভিন্ন ধরনের যানবাহন টোল দিয়ে সেতু পার হতে শুরু করে। সকাল থেকেই যানবাহনের চাপ ছিল সেতুর দুই প্রান্তে। এর প্রভাব পড়েছে রাজধানীতেও। পদ্মা সেতুতে যান চলাচলের প্রথম দিন কেউ যাচ্ছেন ঘুরতে, উচ্ছ্বাস নিয়ে কেউ রওনা হয়েছেন বাড়ির পানে। মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারে ওঠার প্রতিটি প্রবেশমুখে বাড়তি চাপ দেখা গেছে। দুপুরে মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারের উপরে দীর্ঘ সময় যানচলাচল ছিল স্থবির। এর প্রভাবে রাজধানীর মতিঝিল, ওয়ারী, যাত্রাবাড়ি, চানখারপুল, কাকরাইল, বিজয় সরণি, ফার্মগেট, কারওয়ান বাজার, তেজগাঁও, প্রেসক্লাব, গুলিস্তান, বাড্ডা, রামপুরা, ও মগবাজার ফ্লাইওভারে যানবাহনের বাড়তি চাপ ছিল।

ঢাকা মেট্রোপলিটন ট্রাফিক পুলিশ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, সকাল থেকেই মাওয়া-পদ্মা সেতুগামী যানবাহনের চাপ বেড়েছে, যার প্রভাব পড়েছে রাজধানীর মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারের উপরে ও নিচে। যানবাহনের বাড়তি চাপ সামলাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে ট্রাফিক পুলিশ সদস্যদের। অন্যান্য দিনের তুলনায় এসব এলাকায় চলাচলরত যানবাহনকে ট্রাফিক সিগনাল পাড়ি দিতে বাড়তি সময় দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। ঢাকায় বাইরে থেকে অন্য দিনের চেয়ে বেশি গাড়ি ঢুকছে। বেশিরভাগ ব্যক্তিগত গাড়ি। আগে এত গাড়ি ঢাকায় ঢুকত না, এখন পদ্মা সেতুর উপর দিয়ে আসতেছে। ২১টি জেলার মাওয়া রুট ব্যবহারকারী বাসসহ যানবাহনগুলো এতদিন ফেরিতে পারাপার হত। এখন বঙ্গবন্ধু এক্সপ্রেসওয়ে হয়ে যানবাহন আসছে কেরানীগঞ্জ থেকে বুড়িগঙ্গা সেতু আর বাবুবাজার ব্রিজ হয়ে ঢুকছে ঢাকায়। একই পথে ঢাকা থেকে যানবাহন ছুটছে পদ্মা সেতুর দিকে।

কদমতলী ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক পীযূষ কুমার মালো বলেন, চুনকুটিয়ায় হাইওয়ে সড়ক দিয়ে এক্সপ্রেসওয়েতে নামা ও ওঠার যে লেইন আছে। সকাল থেকে প্রচুর গাড়ি ওই লেন ধরে যাওয়া-আসা করেছে। প্রথম ধাক্কা সামলানোর পর সকাল ১০টার দিকে গাড়ির চাপ একটু কমেছে।
বরিশালগামী অশিক জানান, আমাদের দীর্ঘদিনের কষ্ট দূর হয়েছে। এখন সরাসরি ঢাকায় আসা যাওয়া করতে পারবো। জরুরি কাজ সেরে বাড়ি ফিরতে পারবো। আগে আমরা কখনো সঠিক সময়ে কোন কাজ করতে পারতাম না। ঈদের সময় অনেক দিন ঈদ করতে হয়েছে ফেরিতে অথবা রাস্তায়। এখন আর এই সমস্যা থাকবে না। তবে রাজধানীর বেশিরভাগ সড়কে যানজট থাকায় অনেক দেরি হচ্ছে। ফার্মগেট থেকে মতিঝিল আসতে সময় লেগেছে প্রায় ২ ঘণ্টা।

রাজধানীর গুলিস্তান ফুলবাড়িয়া এলাকায় দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশ কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান ইনকিলাবকে বলেন, অন্যদিনের চেয়ে গাড়ির চাপ দ্বিগুণ বেড়ে গেছে। মানুষও রাস্তায় নেমেছে প্রচুর। আগের দিনের চেয়ে ডাবল কাজ করতে হচ্ছে। আগে যে গাড়িগুলো মাওয়া ঘাটে যাত্রী নামিয়ে দিয়ে আসতো এখন ওপারের গাড়ি সরাসরি ঢাকায় ঢুকছে। আবার অনেকে পদ্মা সেতু উদ্বোধন হলে বাড়ি যাবেন বলে অপেক্ষা করছেন তারা এখন ঈদের মতো বাড়ি যাচ্ছেন। তাই রাস্তায় প্রচন্ড চাপ রয়েছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার মোহাম্মদ মুনিবুর রহমান বলেন, পদ্মা সেতুর উপর দিয়ে আসা কিছু গাড়ি ঢাকায় ঢুকছে, কিছু ফ্লাইওভার ব্যবহার করে নারায়ণগঞ্জ ও চট্টগ্রাম রোডের দিকে চলে যাচ্ছে। সকালে অফিস আদালত খোলার সময়টায় সেতু হয়ে আসা গাড়ি বাড়ায় চাপ বেশি মনে হয়েছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তা অনেকটা স্বাভাবিক হয়ে এসেছে। শনিবার গাড়ি চলাচল বন্ধ ছিল। রোববার অফিস খোলাসহ একটা চাপ থাকে।

সেতু উদ্বোধনের আগে এ বিষয়ে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, অনেক গাড়ি ঢাকায় প্রবেশ করবে, বের হবে, সেখানে ঢাকায় চাপ একটু হবেই, সেটা মোকাবেলার পরিকল্পনা আমাদের রয়েছে। পরিকল্পনা অনুসারে আমরা এগোচ্ছি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (6)
আকিব ২৭ জুন, ২০২২, ৫:০২ এএম says : 0
গতকাল সকাল থেকে ওপর দিয়ে যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হয়েছে। রাজধানীসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে লোকজন ছুটে গেছেন পদ্মা সেতু দেখতে। আবার অনেক লোকজন ঢাকার বাইরে থেকে এসেছেন। এজন্য রাজধানীর সব সড়কে বৃদ্ধি পায় গাড়ির চাপ। সৃষ্টি হয় ভয়াবহ যানজট। যানজটের ভয়াবহতা বাড়ার কারণে রাজধানীর ট্রাফিক ব্যবস্থা বেহাল দশায় পরিণত হয়।
Total Reply(0)
আকিব ২৭ জুন, ২০২২, ৫:০৪ এএম says : 0
আমরা এক ধরনের পাগল হয়ে গেছি। পদ্মা সেতুতে কে প্রথম হয়ে এ নিয়ে কেনো প্রতিযোগিতা করতে হবে। কয়েকদিন পরে এ সেতু দেখলে কি চলবে না। শেষ পর্যন্ত প্রথম দিনে মৃত্যুও হলো
Total Reply(0)
আলিফ ২৭ জুন, ২০২২, ৫:০৭ এএম says : 0
সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, অনেক গাড়ি ঢাকায় প্রবেশ করবে, বের হবে, সেখানে ঢাকায় চাপ একটু হবেই, সেটা মোকাবেলার পরিকল্পনা আমাদের রয়েছে। পরিকল্পনা অনুসারে আমরা এগোচ্ছি। কোথায় গেলো মন্ত্রী মহোদয়ের এ নির্দেশ। শেষ পর্যন্ত এ সেতুতে মৃত্যু দেখতে হলো
Total Reply(0)
আলিফ ২৭ জুন, ২০২২, ৫:১০ এএম says : 0
আমরা দিনে দিনে ছোট মন-মানসিকতার মানুষ হয়ে যাচ্ছি। কিছুদিন পরে সেতু দেখলে কি হবে। শেষ পর্যন্ত হাজারো মানুরে ভিড়ে দুইজন মানুষ সেতুতে রোড এক্সিডেন্টে মারা গেলো। এরপরেও কি আমাদের শিক্ষা হবে না।
Total Reply(0)
আলিফ ২৭ জুন, ২০২২, ৫:১১ এএম says : 0
প্রশাসন কি বুঝে না এখানে আগে থেকে অনেক মানুষ আসবে। তাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা কি ভালো রাখা দরকার ছিল না। তাদেরও তো এ থেকে দায়মুক্ত হওয়ার সুযোগ নেই
Total Reply(0)
salman ২৭ জুন, ২০২২, ৬:০০ এএম says : 0
ahagy e bolesi, akhon DHAKA hobay aro beshi JEM er city.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন