বৃহস্পিতবার, ১৮ আগস্ট ২০২২, ০৩ ভাদ্র ১৪২৯, ১৯ মুহাররম ১৪৪৪

আন্তর্জাতিক সংবাদ

সৌদি নারীরা কেন ছেলেদের মতো চুল রাখছে?

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ জুন, ২০২২, ২:৫১ পিএম

সৌদি আরবে কর্মজীবী নারীর সংখ্যা বাড়ছে। তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে কর্মজীবী নারীদের বড় একটা অংশের মাঝে ছোট চুল-প্রীতিও বাড়ছে। রাজধানী রিয়াদে তাই প্রায়ই দেখা যায় বয়-কাট চুলের সৌদি নারী।

সৌদি আরবের অনেক কর্মজীবী নারীরই এখন ছোট চুল খুব পছন্দ। রিয়াদের হেয়ারড্রেসার লামিস জানান, এখন তার কাছে এসে প্রতি ৩০ জনের অন্তত সাত-আটজনই বলেন বয়-কাট করে দিতে। তার মতে, ‘এই হেয়ারকাট এখন খুব জনপ্রিয়৷ বিশেষ করে নারীরা শ্রমবাজারে প্রবেশের পর এই হেয়ারকাটের জনপ্রিয়তা অনেক বেড়েছে’।

ক্রাউন প্রিন্স হিসেবে অভিষিক্ত হওয়ার পর তেলনির্ভর সৌদি আরবের অর্থনীতিকে আরো বিস্তৃত করার উদ্যোগ নেন যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। এ লক্ষ্যে ‘ভিশন ২০৩০’ ঘোষণা করেন তিনি। ভিশন ২০৩০-এর বড় একটা অংশ জুড়েই ছিল কর্মক্ষেত্রে নারী অংশগ্রহণ বৃদ্ধির পরিকল্পনা।

মোহাম্মদ বিন সালমান চেয়েছিলেন এক দশকের মধ্যে দেশের কর্মক্ষেত্রে অন্তত ৩০ ভাগ নারীর অংশগ্রহণ। মাত্র পাঁচ বছরে সেই লক্ষ্য পেরিয়ে গেছে সৌদি আরব। গত মে মাসে দাভোসের বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামে সৌদি আরবের পর্যটন মন্ত্রী প্রিন্সেস হাইফা আল-সাউদ জানান, বর্তমানে কর্মক্ষেত্রের ৩৬ ভাগই নারী। তিনি আরো জানান, এ মুহূর্তে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের ৪২ ভাগের মালিকই নারী।মোহাম্মদ বিন সালমানের সময়ে সৌদি নারীদের হিজাব পরার প্রবণতা কমেছে। অনেক কর্মজীবী নারীই এখন মনে করেন, কর্মস্থলে হিজাব পরে দ্রুত চলাফেরা করা কঠিন। অনেকে হিজাব পরেন না। তাদের অনেকে মিশরের অভিনেত্রী ইয়াসমিন রায়েসসহ আরব বিশ্বের অনেক তারকাকে অনুসরণ করে বয়কাট চুল রাখছেন।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
মো.জাকির হোসেন ২৮ জুন, ২০২২, ৩:১৬ পিএম says : 0
মরার পরে বুঝবে ঠেলা।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন