বৃহস্পিতবার, ১৮ আগস্ট ২০২২, ০৩ ভাদ্র ১৪২৯, ১৯ মুহাররম ১৪৪৪

আন্তর্জাতিক সংবাদ

নূপুর-কীর্তি প্রকাশ্যে আনাই ‘অপরাধ’, ভারতে মুসলমান সাংবাদিক গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ জুন, ২০২২, ৪:৫৯ পিএম

২০১৮ সালে করা টুইটে ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত লেগেছে। সেই অভিযোগে চার বছর পরে দিল্লি পুলিশ গ্রেফতার করেছে অল্ট নিউজের সহ প্রতিষ্ঠাতা মুহাম্মদ জুবায়েরকে। তাকে এক দিনের পুলিশ হেফাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে আদালত। কিন্তু প্রশ্ন উঠছে, একই অভিযোগে দায়ের হওয়া এফআইআরের ভিত্তিতে কেন গ্রেফতার হচ্ছেন না বিজেপির মুখপাত্র (বর্তমানে সাসপেন্ড) নূপুর শর্মা?

নূপুর শর্মা যে টেলিভিশন অনুষ্ঠানে মহানবী (সাঃ) কে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন, তা জুবায়েরই প্রথম প্রকাশ্যে আনেন। নূপুর এখনও অধরা থাকলেও, জুবায়েরকে ২০১৮-য় করা একটি টুইটের ভিত্তিতে গ্রেফতার করেছে দিল্লি পুলিশ। প্রসঙ্গত, দিল্লি পুলিশ সরসরি নিয়ন্ত্রিত হয় অমিত শাহের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দ্বারা। দিল্লি পুলিশ এফআইআরে দাবি করেছে, ‘জুবায়েরের পোস্ট অত্যন্ত প্ররোচনামূলক এবং মানুষের মধ্যে ঘৃণা উৎপাদন করার পক্ষে যথেষ্ট।’

কিন্তু কী টুইট করেছিলেন জুবায়ের? সূত্রের খবর, ২০১৮ সালে জুবায়ের টুইটে একটি ছবি শেয়ার করেছিলেন। সেই ছবিতে নামফলকে হিন্দিতে লেখা ‘হনুমান হোটেল’। যা দেখে বোঝা যাচ্ছে, আগে এই হোটেলের নাম ছিল ‘হানিমুন হোটেল’। হানিমুন মুছে হনুমান করা হয়েছে। সাংবাদিক জুবায়ের সেই টুইটে লিখেছিলেন, ২০১৪-এর আগে যা ছিল হানিমুন হোটেল, ২০১৪-এর পর তা-ই হয়েছে হনুমান হোটেল!

এই ঘটনা ২০১৮ সালের। ২০২২-এ এসে দিল্লি পুলিশ সেই টুইটের জেরে ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাতের অভিযোগে মুসলমান সাংবাদিককে গ্রেফতার করেছে। আদালতে তার সাত দিনের রিমান্ড চায় দিল্লি পুলিশ। কিন্তু বিচারক এক দিন রিমান্ডের অনুমতি দেয়। সূত্র: আল-জাজিরা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
jack ali ২৮ জুন, ২০২২, ৫:৩৫ পিএম says : 0
May Allah's curse upon Modi the butcher and rapist and his BJP, may Allah destroy them and wipe out from India
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন