শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২, ০৫ ভাদ্র ১৪২৯, ২১ মুহাররম ১৪৪৪

জাতীয় সংবাদ

গ্রামীণফোনের সিম বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা

যতদিন সেবার মান সন্তোষজনক হবে না ততদিন বহাল থাকবে : ইনকিলাবকে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩০ জুন, ২০২২, ১২:০১ এএম

গ্রাহকদের মানসম্মত সেবা দিতে না ব্যর্থ হওয়ায় বেসরকারি মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোনের সিম বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা (বিটিআরসি)। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত অপারেটরটি নতুন সিম বিক্রি করতে পারবে না বলে জানা গেছে।
গতকাল বুধবার দুপুরে বিষয়টি অনুমোদনের পর বিটিআরসি এ বিষয়ক একটি নির্দেশনা গ্রামীণফোনে পাঠিয়েছে। অপারেটরটি গ্রাহকদের কোয়ালিটি অব সার্ভিস নিশ্চিত করতে পারলেই নতুন সিম বিক্রি করতে পারবে বলে জানা গেছে।

গ্রামীণফোনকে চিঠি দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, যেখানে সেবার মান ভালো হওয়ার কথা সেখানে গ্রামীণফোনের সেবার মান দিন দিন খারাপ হচ্ছে। আমরা অনেকবার বলে, চেষ্টা করেও তাদের মান ভালো করাতে পারিনি। তারা গ্রাহক বাড়াচ্ছে কিন্তু সেবার মান বাড়াচ্ছে না। এটা হতে দেয়া যাবে না। এজন্য আমরা তাদেরকে একটি চিঠি দিয়েছি, যেখানে বলা হয়েছে তারা আর নতুন করে গ্রাহক বাড়াতে পারবে না। যতদিন না তারা সেবার মান ভালো করবে এবং তা সন্তোষজনক পর্যায়ে উন্নীত না হবে ততদিন গ্রামীণফোনের সিম বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা থাকবে। যদি মান ভালো হয় তখন আবার সেটি বিবেচনা করা হবে।

এ বিষয়ে বিটিআরসির ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত রায় মৈত্র বলেন, তারা (গ্রামীণফোন) মানসম্মত সেবা (ভয়েস কল ও ইন্টারনেট) দিতে পারছে না। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত অপারেটরটির (গ্রামীণফোন) সিম বিক্রি করতে পারবে না। বিটিআরসি তথ্য অনুযায়ী, গত মে পর্যন্ত গ্রামীণফোনের গ্রাহক সংখ্যা ৮ কোটি ৪৯ লাখ ৫০ হাজার।
গত ৩১ মার্চ অনুষ্ঠিত সর্বশেষ নিলামে সবচেয়ে বেশি তরঙ্গ (৬০ মেগাহার্টজ) কেনে গ্রামীণফোন। এর আগে গ্রামীণফোনের হাতে ছিল ৪৭ দশমিক ৪০ মেগাহার্টজ তরঙ্গ। সব মিলিয়ে অপারেটরটির তরঙ্গের পরিমাণ ১০৭ দশমিক ৪০ মেগাহার্টজ। যদিও বাকি অপারেটরদের মতো গ্রামীণফোনও নতুন বরাদ্দ পাওয়া তরঙ্গ ব্যবহার করতে পারছে না। আগামী ডিসেম্বর থেকে অপারেটরগুলো তরঙ্গ ব্যবহার করতে পারবে বলে জানা গেছে। জানা যায়, বর্তমানে এক মেগাহার্টজ তরঙ্গে গ্রামীণফোন ১৪ লাখ লাখ গ্রাহককে সেবা দিচ্ছে, অন্যান্য অপারেটরের চেয়েও যা বেশি। নতুন তরঙ্গ যুক্ত হলে তা হবে (এক মেগাহার্টজে) ৭ লাখ ৭০ হাজার গ্রাহক।

এবিষয়ে গ্রামীণফোনের পক্ষ থেকে বলা হয়, দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় টেলিকম ব্র্যান্ড গ্রামীণফোন বিটিআরসি  ও আন্তর্জাতিক সংস্থা আইটিইউ’র সেবার মানদন্ড অনুসরণ করার পাশাপাশি সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট মানদন্ড থেকেও এগিয়ে আছে। ধারাবাহিকভাবে নেটওয়ার্ক ও সেবার মানোন্নয়নে আমরা বিটিআরসি’র সাথে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করছি এবং নেটওয়ার্ক আধুনিকীকরণে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। স¤প্রতি অনুষ্ঠিত হওয়া নিলামেও গ্রামীণফোন সর্বোচ্চ অনুমোদিত তরঙ্গ অধিগ্রহণ করেছে। এমতাবস্থায়, অপ্রত্যাশিত এ চিঠি ও নিষেধাজ্ঞা নিয়ে আমাদের পরবর্তী পদক্ষেপ নির্ধারণ আমরা পরিস্থিতি মূল্যায়ন করছি। আমরা মনে করি, আমাদের সম্ভাব্য গ্রাহকদের স্বার্থে নিয়ন্ত্রক সংস্থার সাথে গঠনমূলক আলোচনাই হবে এ সমস্যা সমাধানের সর্বোত্তম উপায়।#

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
Rabbul Islam Khan ৩০ জুন, ২০২২, ৫:৫৯ এএম says : 0
অন্য অপারেটরদেও সতর্ক হওয়া দরকার। কারণ, কারো সার্ভিসই ভালো না। সাধারণ মানুষের হাতে বিকল্প নেই বলে তাঁরা ফোন কোম্পানিগুলোর কাছে জিম্মি হয়ে আছে।
Total Reply(0)
Rajib Ahsan ৩০ জুন, ২০২২, ৫:৫৯ এএম says : 0
গ্রামীন ফোনের যদি সিম বিক্রি নিষিদ্ধ হয়, রবির তো পুরো কোম্পানিটাই নিষিদ্ধ হওয়া উচিত। ওদের মত এত বাজে নেটওয়ার্ক বাংলাদেশে আর নাই
Total Reply(0)
Shahadat Biplob ৩০ জুন, ২০২২, ৫:৫৯ এএম says : 0
অনেকদিন পর বিটিআরসি অন্তত একটা ভালো কাজ করেছে। গ্রামীণফোনের গ্রাহকেরা ওদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ।
Total Reply(0)
Shahadat Biplob ৩০ জুন, ২০২২, ৬:০০ এএম says : 0
এখন গ্রামীণ ফোনের উচিত গ্রাহকদের ২৫ টাকায় ২৫ জিবি অফার দিয়ে বিটিআরসিকে দেখিয়ে দেওয়া যে গ্রামীণের ডাটা প্যাক খুবই সস্তা৷
Total Reply(0)
Mohammad Mohoshin ৩০ জুন, ২০২২, ৬:০১ এএম says : 0
সবগুলি আপারেটর এর মান বৃদ্ধি হওয়া উচিত।গ্রামীণ ফোন রেলওয়ের সাথে চুক্তি থাকায় বিশেষ সেবা দিতে পারছে।এই চুক্তি শেষ হলে বোঝা যাবে তাদের আসল অবস্থা!
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন