বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ০২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৮ মুহাররম ১৪৪৪

মহানগর

খালেদা জিয়া ও মির্জা ফখরুলের আরোগ্য কামনায় দোয়া মাহফিল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩০ জুন, ২০২২, ৯:৪৯ পিএম

বিএনপির চেয়ারপারসন অসুস্থ বেগম খালেদা জিয়া ও দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ অসুস্থ নেতাকর্মীদের আশু রোগমুক্তি কামনায় দোয়া ও মিলাদ মাহফিল করেছে ঢাকাস্থ ঠাকুরগাঁও জেলা জাতীয়তাবাদী ফোরাম। বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) বাদ আসর নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় আয়োজিত দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক আবদুস সালাম, সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু, বিএনপির সমাজকল্যাণ সম্পাদক কামরুজ্জামান রতন, সহসাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল খালেক, ভিপি হারুন অর রশিদ, সহ যুব বিষয়ক সম্পাদক মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজ, কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম বাবুল, বিএনপির সহ তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আমিরুজ্জামান খান শিমুল, কেন্দ্রীয় নেতা হায়দার আলী লেনিন, আবদুল মতিন, সালাহউদ্দিন শিশির, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মোনায়েম মুন্না, গোলাম মাওলা শাহিন, কামরুজ্জামান দুলাল, ইসহাক সরকার, খন্দকার এনাম, সাবেক সহ সাধারণ সম্পাদক কামাল আনোয়ার আহাম্মেদ প্রমুখ। নেতৃবৃন্দ বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান, মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী সহ অসুস্থ নেতাকর্মীদের সুস্থতা কামনায় দোয়া ও মুনাজাত করেন।

এদিকে আজ বৃহস্পতিবার বাদ আসর রাজধানীর শেওড়াপাড়ায় আরো একটি দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন অপরাজেয় বাংলাদেশ। এই দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ওলামা দলের কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম তালুকদার, মৎস্যজীবী দলের কেন্দ্রীয় নেতা হাজী মনির হোসেন, ইসমাইল হোসেন সিরাজী, তাবারক হোসেন, সালাম সরকার, জিয়া নাগরিক ফোরামের মিয়া মোহাম্মদ আনোয়ার, কৃষক দলের কাদের সিদ্দিকী, কাফরুল থানা বিএনপির গোলাম রব্বানী প্রমুখ।

দোয়া মাহফিল পূর্ব সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ বলেন, আজকে সম্পূর্ণ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলায় দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে অবৈধভাবে সাজা দিয়ে কারাবন্দী রাখা হয়েছে। তার বড় ছেলে দেশনায়ক তারেক রহমানকে নির্বাসনে রেখেছে। অথচ খালেদা জিয়া দেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী। আজকে তাকে বন্দী করে সরকার বেপরোয়াভাবে গায়ের জোরে দেশ শাসন করছে। দেশের সম্পদ বিদেশে পাচার করছে।

তিনি বলেন, দেশের নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম হুঁ হুঁ করে বাড়ছে। ভয়াবহ বনবন্যায় দেশের মানুষ মানবেতর জীবন যাপন করছে কিন্তু সরকারের কোনো দায়িত্ববোধ নেই। অথচ খালেদা জিয়া প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে বন্যাকবলিত এলাকায় ছুটে গিয়ে ত্রাণ বিতরণ করেছেন। যেকোনো দুর্যোগে তিনি মানুষের কাছে ছুটে যেতেন।

আলোচনা শেষে বেগম খালেদা জিয়া, তারেক রহমান, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী সহ অসুস্থ সকল নেতাকর্মীর আরোগ্য কামনায় বিশেষ মুনাজাত পরিচালনা করেন অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম তালুকদার।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন