শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২, ০৫ ভাদ্র ১৪২৯, ২১ মুহাররম ১৪৪৪

আন্তর্জাতিক সংবাদ

স্নেক আইল্যান্ডে ফসফরাস বোমা ফেলেছে রাশিয়া: ইউক্রেন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ জুলাই, ২০২২, ১০:৩৭ এএম

কৃষ্ণ সাগরের স্নেক আইল্যান্ড থেকে সৈন্য প্রত্যাহারের পর, দ্বীপটিতে রুশ বাহিনীর বিরুদ্ধে ফসফরাস বোমা নিক্ষেপের অভিযোগ তুলছে ইউক্রেন। শুক্রবার (১ জুলাই) ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনীর কমান্ডার-ইন-চীফ ভ্যালেরি জালুঝনি টেলিগ্রাম পোস্টে এ অভিযোগ তুলেন।

ভ্যালেরি জালুঝনি বলেন, ‘‘রাশিয়ান নিয়ন্ত্রিত ক্রিমিয়ান উপদ্বীপ থেকে ফসফরাস বোমা নিক্ষেপকারীটি দুটি এসইউ-৩০ যুদ্ধবিমান দ্বীপের উপর দিয়ে উড়ে গেছে।’’ খবর আল জাজিরা।

টেলিগ্রাম পোস্টে জালুঝনি বলেন, ‘‘রাশিয়ান বিমান বাহিনীর‍ এসইউ-৩০ যুদ্ধবিমান দুবার দ্বীপে ফসফরাস বোমা দিয়ে হামলা চালায়।’’ এরপর একটি পৃথক বিবৃতিতে ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনী এ তথ্য নিশ্চিত করে।

বিবৃতিতে সংযুক্ত ভিডিও চিত্রে দেখা যায়, একটি বিমান দ্বীপে কমপক্ষে দুবার বোমা নিক্ষেপ করছে। এ সময় সাদা দাগ দেখা যাচ্ছিল।

উল্লেখ্য, ফসফরাস বোমা নিক্ষেপের পর এটি আকাশে সাদা ধোয়া বিচ্ছুরণ করে। আন্তর্জাতিক কনভেনশন অনুযায়ী বেসামরিক লক্ষ্য বস্তুতে এ অস্ত্র ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। তবে সামরিক লক্ষ্যবস্তুর জন্য ফসফরাস বোমা ব্যবহারের অনুমতি রয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩৯ জুন) স্নেক আইল্যান্ড থেকে সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দেয় রাশিয়া। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছিল, কৃষ্ণ সাগরের দ্বীপটি থেকে শস্য রফতানি অব্যাহত রাখার সুযোগ হিসেবে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে ক্রেমলিন।

স্নেক আইল্যান্ড কৃষ্ণ সাগরীয় উপকূলে অবস্থিত একটি ছোট ভূখণ্ড। দানিউব ডেল্টা থেকে এর দূরত্ব প্রায় ৩৫ কিলোমিটার। যুদ্ধ শুরুর আগে এটি ছিল একটি সামরিক অঞ্চল, যেটিকে সীমান্ত ফাঁড়ি হিসাবে ব্যবহার করত ইউক্রেনীয় বাহিনী।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন