সোমবার, ০৮ আগস্ট ২০২২, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯, ০৯ মুহাররম ১৪৪৪ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ভুয়া কাবিননামায় স্ত্রী দাবী, ইংল্যান্ড প্রবাসীর সম্পদ দখলের অভিযোগ সংবাদ সম্মেলনে

কুমিল্লা থেকে স্টাফ রিপোর্টার, | প্রকাশের সময় : ২ জুলাই, ২০২২, ৬:৩৩ পিএম

কুমিল্লা নগরীর রাজাপাড়া এলাকার মরহুম সিদ্দিকুর রহমানের পুত্র মিনহাজুর রহমান। তিনি ইংল্যান্ড প্রবাসী এবং বাংলাদেশ ও ইতালির দ্বৈত নাগরিক। নিশাত খান নামে এক সুন্দরী নারীকে তার সম্পদের দেখভাল ও জায়গা জমি সংক্রান্ত মামলা পরিচালনার দায়িত্ব দিয়ে মহাবিপাকে পড়েছেন ইংল্যান্ড প্রবাসী ব্যবসায়ী মিনহাজুর রহমান।

ভুয়া কাবিননামা তৈরি করে মিনহাজুরকে নিজের স্বামী দাবি করে তার ১২ কোটি টাকার সম্পত্তি দখল করে রেখেছেন নিশাত আহম্মেদ খান নামের ওই নারী।
শনিবার দুপুরে নগরীর একটি পার্টি সেন্টারের হলরুমে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন প্রবাসী মিনহাজুর রহমান।

সংবাদ সম্মেলনে মিনহাজুর বলেন, নগরীর রাজাপাড়া গ্রামের আইনজীবী শহীদুল হক স্বপনের মাধ্যমে নিশাতের সঙ্গে আমার পরিচয় হয়। পরে বাংলাদেশে আমার জমিজমা সংক্রান্ত মামলাসহ সম্পত্তির দেখাশোনা ও ভাড়া সংগ্রহের জন্য একজন লোকের প্রয়োজনের বিষয়টি আইনজীবী স্বপনের সঙ্গে আলোচনা করলে স্বপনই ওই নিশাতকে এ দায়িত্ব দিতে বললে সরল বিশ্বাসে আমি নিশাত আহম্মেদ খানকে নিয়োগ দেই।

সংবাদ সম্মেলনে মিনহাজুর অভিযোগ করেন,তিনি ইংল্যান্ড থাকাবস্থায় ২০২১ সালের আগস্ট মাসের শেষের দিকে জানতে পারেন নিশাত অজ্ঞাতনামা একজনকে মিনহাজুর সাজিয়ে ভুয়া নিকাহনামা বানিয়েছেন।
মিনহাজুর বলেন, এই নারী আমাকে স্বামী দাবি করছে। অথচ বিয়ের যে তারিখ বলা হচ্ছে, সেই সময় আমি ইংল্যান্ডে ছিলাম। নিকাহনামায় নিশাত নিজেকে তালাকপ্রাপ্তা বললেও তিনি তালাকপ্রাপ্তা নন। আবার সেই নিকাহনামায় ওই নারী ও আমার জন্ম তারিখ দেখানো হয়েছে একই। এতে বোঝা যায় এটি ভুয়া।এই ভূয়া কাবিননামার বিষয়ে কুমিল্লার আদালতে ফৌজদারী মামলা নং-১০৯/২০২২ দায়ের করলে আদালতের নির্দেশে সিটির ১৮ নং ওয়ার্ডের কাজী অফিসের কাজী মো. জাহিদুল হোসেন আদালতে বিজ্ঞ বিচারকের কাছে অন্য ব্যক্তিকে মিনহাজুর সাজিয়ে ভূয়া বিবাহের কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দেয়।

ভুক্তভোগী মিনহাজুর রহমান বলেন,
নিশাত খান নামের ওই নারী আমার কুমিল্লা ও ঢাকার ফ্ল্যাট বাড়ি দখল করে রেখেছে। শুধু তাই নয়, নিশাত নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে আমার সাড়ে ৩০ শতাংশ জায়গা তার নামে ভুয়া হেবা দলিল করে অন্যত্র বিক্রির চেষ্টা করে আসছেন।

নিশাত খানের সংবাদ সম্মেলন আরেকটি বড় প্রতারণা উল্লেখ করে মিনহাজুর বলেন, যে শিশু সন্তানকে নিশাত আমার ঔরসজাত সন্তান বলে দাবী করছেন, এটা আমার সন্তান নয়। সংবাদ সম্মেলনে আমারও দাবী ডিএনএ টেস্টের মাধ্যমে শিশুটির সঠিক পিতৃপরিচয় নিশ্চিত করা হোক। একই সঙ্গে তিনি নিজেকে রাষ্ট্রীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত রেমিট্যান্স যোদ্ধা উল্লেখ করে নিশাত খানের সকল অন্যায় ও প্রতারণার বিচার দাবি করেন।

সংবাদ সম্মেলনে মিনহাজুরের বড়বোন ফরিদা আক্তার, ভগ্নিপতি মতিউর রহমান, ছোটবোন শাহনাজ রহমান, ভাবী মাসুদা বেগম ও স্থানীয় সাবেক কাউন্সিলর জাকির হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ২৩ জুন নগরীর একটি রেস্তোরাঁয় স্ত্রীর স্বীকৃতি ও সন্তানের পিতৃ পরিচয়ের দাবীতে নিশাত আহম্মেদ খান সংবাদ সম্মেলন করেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন