শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২, ০৫ ভাদ্র ১৪২৯, ২১ মুহাররম ১৪৪৪

খেলাধুলা

শিয়াওতেকের বিদায়ের দিনে চেনা ছন্দে নাদাল

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ জুলাই, ২০২২, ১২:০০ এএম

নিজের ছন্দে ফিরে এসেছেন রাফায়েল নাদাল। সেন্টার কোর্টে তৃতীয় রাউন্ডের ম্যাচে ঠিক দুপুরে নামার কথা ছিল রেকর্ড ২২ গ্র্যান্ড সø্যাম জয়ী এই তারকার। কিন্তু সেই কোর্টের আগের ম্যাচগুলো নিষ্পত্তি হতে দেরি হওয়ায় রাফাকে অপেক্ষা করতে হল অনেকক্ষণ। কিন্তু যতটুকু সময় ম্যাচ বিলম্বিত হয়েছে তারচেয়ে অনেক কম সময়েই সরাসরি ৬-১, ৬-২, ৬-৪ সেতে হারিয়েছেন ইতালিয়ান লরেঞ্জ সোনেগোকে। সার্ভিস, ব্যাকহ্যান্ড, রিটার্ন, ফোরহ্যান্ড বা ড্রপ শট, শনিবারের ম্যাচে যা-ই করতে চেয়েছিলেন তাই ঠিকঠাক হচ্ছিল নাদালের। উল্টোদিকে সোনেগো এমন সব ভুল করে যাচ্ছিলেন যা দেখে টেনিসের শিক্ষাণবিসরাও মুখ টিপে হাসবে। ম‚লত নাদালের অভিজ্ঞতা ও মানসিকতার সামনেই ঘাবড়ে গিয়েছিল র‌্যাঙ্কিংয়ের ৫৪-তে থাকা এই প্লেয়ার।
এই উইম্বলডনে এটা রাফার এখন পর্যন্ত সেরা পারফরম্যান্স। প্রথম দুই ম্যাচেই একটা করে সেট হেরলেও এই রাউন্ডে ছিলেন আত্মবিশ্বাসে ভড়পুর। এই ম্যাচে মোট ১৪ টি উইনার মারা রাফা কোর্টের দুই প্রান্তেই ছিলেন সপ্রতিভ। ব্যাকহ্যান্ডে প্রথম দিকে ঝামেলা হলেও ম্যাচের সময় গড়ানোর সাথেসাথে স্বাছন্দেও ফিরে এসেছেন। সর্বশেষ ম্যাচে যে ধরনের দৃঢ় সংকল্পে ছিলেন তাতে ৩য় বারের মতন ঘাসের কোর্টে ট্রফি জিতাটা সমইয়ের ব্যাপার মনে হচ্ছিল। চতুর্থ রাউন্ডে নাদালের প্রতিপক্ষ ডাচ ফান ডে জান্ডশুপ।
উইম্বল্ডনের এখন পর্যন্ত সবচেয়ে জমজমাট ম্যাচটি হইয়েছে শনিবার বাংলাদেশ সময় মধ্যরাতে। তৃতীয় রাউন্ডের এই ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল পঞ্চম বাছাই স্টেফানোস সিসিপাস ও ৪০তম বাছাই নিক কিরিয়াস। অস্ট্রেলিয়ার কিরিয়াস বহু কারণেই বিখ্যাত বা কুখ্যাত। তার খেলা ও আচরণ দুটাই প‚র্বে অনুমান করা বোকামি। তাইতো একটা প্রতিদ্বন্দিতাপ‚র্ণ ম্যাচের প্রত্যাশা সবার থাকলেও কেউ ভাবতে পারেনি সে ম্যাচটা এতো দাপটের সাথে জিতে যাবে বিতর্কিত কিরিয়াস। ৬-৭, ৬-৪, ৬-৩, ৭-৬ গেমে ম্যাচ জিতে নেন ২৭ বছর বয়সী অস্ট্রেলিয়ান। যতই ভাল খেলুক বা দুর্দান্ত রিটার্নে সবাইকে অবাক করে দিক, বিতর্ক কিরিয়াসের নিত্য সঙ্গী। গোটা ম্যাচ জুড়েই নাকি সিসিপাসকে কটাক্ষ করে গিয়েছেন তিনি। কমপক্ষে ৩ বার সিসিপাসকে লক্ষ্য করে বল মেরেছেন। তাই ম্যাচের মাঝেই মেজাজ হারিয়েছেন সদা চুপচাপ থাকা সিসিপাস। ম্যাচ শেষে এই গ্রিক গণমাধ্যমকে বলেন, ‘প্রতিপক্ষকে কটাক্ষ করতে ভালবাসে কিরিয়স। হয়তো ছোটবেলা স্কুলে কেউ ওকে কটাক্ষ করতো। আমি কটাক্ষ একদম সহ্য করি না। যারা অন্যকে টেনে নিচে নামায় তাদের পছন্দ করি না।’ ওর চরিত্রের কিছু ভাল দিক থাকলেও খারাপ দিক কম নেই। তবে ম্যাচ শেষে যথারীতি সবকিছু অস্বীকার করেছেন কিরিয়স। তিনি বলেন, ‘জানি না কি বলব। কীভাবে ওকে কটাক্ষ করলাম বুঝতে পারছি না’। তবে এই অস্ট্রেলিয়ানের কথা বিশ্বাস করার মতন মানুষ কমই আছে। কারণ এই আসরের শুরুতেই দর্শকদের দিকে থুতু ছিটিয়ে ১০ হাজার জাহার ডলার জরিমানা গুনেছেন। ২০১৯ সালের এক প্রতিযোগিতায় নিয়ম ভাঙ্গায় দিতে হয়েছিল ১ লক্ষ ১৩ হাজার টাকার জরিমানা। একই কারণে কারণে সাংহাই মাস্টার্স থেকে তাকে বহিস্কারও করা হয়েছিল। কিরিয়াস আজ ৪র্থ রাউন্ডে যুক্ত্রাষ্ট্রের ২০ বছর বয়সী তারকা ব্র্যান্ডন নাকাসিমার মুখোমুখি হবেন।
এদিন আরও অঘটন ঘটেছে। মহিলা এককের শীর্ষ বাছাই ইগা শিয়াওতেক সরাসরি ৬-৪, ৬-২ ব্যবধানে হেরে গিয়েছেন ফ্রান্সের আলিজা করনেতেকের কাছে। টানা ৩৭টি ম্যাচ জিতে টপকে গিয়েছিলেন মার্টিনা হিঙ্গিসকে। ভাগ্যের কি পরিহাস সেই ৩৭ তম বাছাইয়ের কাছে হেরেই বিদায় নিলেন উইম্বলডন থেকে। এক ঘন্টা ৩৩ মিনিটের এই ম্যাচে ৩৩টি আনফোর্সড এরর করেন শিয়নতেক। তাইতো টানা ৬টি প্রতিযোগিতা জিতে করনেতেকের বিপক্ষে এসে থামলেন এই পোলিশ। ম্যাচশেষে এই শিওনতেক জানান, দ আমি জানি যে ভালো টেনিস খেলতে পারিনি। আর বিচক্ষণ খেলোয়াড় হিসেবে আমার ভুলগুলো দারুণভাবে কাজে লাগিয়েছে করনেতেকদ। এর আগে ২০১৪ সালে সেরেনা উইলিইয়ামস্কে হারিয়ে শেষ ১৬-তে উঠেছিলেন করনেতেক।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন